২৩ মার্চ ২০১৯

গদি দখলে আ’লীগের ভোট ডাকাতি নজিরবিহীন ফ্যাসিবাদী শাসন অবসানে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে জাতীয় মুক্তি কাউন্সিল

-

জাতীয় মুক্তি কাউন্সিলের জাতীয় অধিবেশন গতকাল ঢাকায় সংগঠনের সভাপতি বদরুদ্দীন উমরের সভাপতিত্বে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়। অধিবেশনে বিগত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ও নির্বাচনের পরিস্থিতি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়। অধিবেশনের শুরুতে সাভারে পুলিশের গুলিতে নিহত গার্মেন্টশ্রমিক সুমন মিঞার স্মরণে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।
অধিবেশনে বলা হয়, বিদ্যমান ব্যবস্থায় জনগণের ন্যূনতম গণতান্ত্রিক অধিকার ভোটদানের অধিকারকে হরণ করে যেভাবে ভোট ডাকাতির মধ্য দিয়ে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ নিরঙ্কুশভাবে গদি দখলে রেখেছে তা নজিরবিহীন।
অধিবেশনে বলা হয়, এই ভোট ডাকাতির নির্বাচনে গঠিত জাতীয় সংসদে ব্যবসায়ীদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করেছেন দেশের লুণ্ঠনজীবী ব্যবসায়ী শ্রেণী রাষ্ট্র ক্ষমতা কুক্ষিগত করেছে।
অধিবেশনে আরো বলা হয়, জনগণ নির্বিঘেœ ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারলে বিদ্যমান ব্যবস্থার কোনো মৌলিক পরিবর্তন সাধিত না হলেও যে গণতান্ত্রিক পরিবেশ প্রাপ্তির সম্ভাবনা ছিল তা ধূলিস্যাৎ হয়েছে। জনগণের রাজনৈতিক স্বাধীনতা কেড়ে নিয়ে জনগণের বিরুদ্ধে এক চক্রান্ত সম্পন্ন হয়েছে।
অধিবেশনে বলা হয়, জনগণের ভোটদানের অধিকার হরণে যেভাবে দেশব্যাপী নির্বাচনের পূর্বে বিরোধীদলের প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণায় বাধা প্রদান, পুলিশ কর্তৃক গায়েবি মামলা দিয়ে গ্রেফতার-হয়রানি, সরকারিদলীয় গুণ্ডারা হামলা-নির্যাতন করেছে, নির্বাচনের পূর্ব রাতে বাড়ি-ঘরে হামলা-ভাঙচুর করা হয়েছে যা বর্বরোচিত ও ভয়াবহ। নির্বাচন কমিশন, রিটার্নিং অফিসারসহ প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের ন্যক্কারজনক ভূমিকা জনসম্মুখে নগ্নভাবে প্রকাশিত হয়েছে।
নির্বাচনোত্তর পরিস্থিতির পর্যালোচনা করে অধিবেশনে বলা হয়, নোয়াখালীর সুবর্ণচরে চার সন্তানের জননীকে সন্তানদের সামনে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতার নেতৃত্বে গণধর্ষণের ঘটনা, রাজশাহীর তানোরের কলমা গ্রামবাসীর ওপর আওয়ামী গুণ্ডাদের নির্যাতন প্রভৃতি ঘটনা ভয়াবহ।
অধিবেশনে সাভার, উত্তরা, মিরপুরসহ বিভিন্ন স্থানে গার্মেন্টশ্রমিকদের ন্যায়সঙ্গত আন্দোলনের প্রতি সমর্থন জানিয়ে বলা হয়, গুলি করে শ্রমিক হত্যা-নির্যাতন করে সরকার শ্রমিক আন্দোলন দমনের পথে নেমেছে। অধিবেশনে জনগণের রাজনৈতিক স্বাধীনতা অর্জনের লক্ষ্যে ক্ষমতাসীন ফ্যাসিবাদী কর্তৃত্ববাদী শাসনের অবসানে জাতীয় ভিত্তিতে গণতান্ত্রিক সংগ্রাম বেগবান করতে দেশের গণতান্ত্রিক ও প্রগতিশীল দল, সংগঠন, ব্যক্তি পর্যায়ে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানানো হয়।
অধিবেশনে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় মুক্তি কাউন্সিল সম্পাদক ফয়জুল হাকিম, সজীব রায়, হাসিবুর রহমান, ডা: আবদুল হাকিম, কাজী ইকবাল, মজিবর রহমান, পারভেজ লেলিন প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি।


আরো সংবাদ

iptv al Epoksi boya epoksi zemin kaplama Daftar Situs Agen Judi Bola Net Online Terpercaya Resmi

Hacklink

instagram takipçi satın al ofis taşıma Instagram Web Viewer

canli radyo dinle

Yabanci Dil Seslendirme

instagram takipçi satın al