২৬ জানুয়ারি ২০২০

সাপের কামড়ের পরও ক্লাস থামাননি শিক্ষক, মারা গেছে ছাত্রী

সাপের কামড়ের পরও ক্লাস থামাননি শিক্ষক, মারা গেছে ছাত্রী - ছবি : সংগৃহীত

ক্লাসরুমেই সাপের কামড়ে মারা গেল ১০ বছরের এক ছাত্রী। ভারতের কেরলের ওয়েনাড় জেলার সুলতান বাথেরির এক স্কুলে এই ঘটনায় ক্ষোভে ফেটে পড়েন অভিভাবকরা। পুলিশ জানিয়েছে, নিহত পঞ্চম শ্রেণির ওই ছাত্রীর নাম শেহালা। ওই স্কুলের ছাত্রী জানিয়েছে, সাপে কামড়ানোর প্রায় এক ঘন্টা পর তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এক সহপাঠীর অভিযোগ, শেহালাকে সাপে কামড়ালেও শিক্ষক পড়ানো থামাননি। এরপর শেহালার বাবা এসে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যান। কিন্তু ততক্ষণে নীল হয়ে গিয়েছিল তার পা।

গত বুধবার এই ঘটনা ঘটেছে। টেলিভিশন চ্যানেলগুলিতে যে ছবি সম্প্রচার করা হয়েছে, ওই ক্লাসরুমে যেখানে ছাত্রীটি বসেছিল, সেখানে ডেস্কের নিচে গর্ত রয়েছে।

ঘটনার খবর প্রকাশ্যে আসার পর এক শিক্ষককে বহিস্কার করা হয়েছে। ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে সরকার।

শেহালার এক আত্মীয় অভিযোগ করেছেন, স্কুল কর্তৃপক্ষের গাফিলতি ছিল। এই সাথে গাফিলতি ছিল যেখানে তাকে চিকিত্সার জন্য প্রথমে নিয়ে যাওয়া হয়, সেই হাসপাতালেরও। পরে ছাত্রীকে কোঝিকোড় মেডিক্যাল কলেজে রেফার করা হয়।

ওয়েনাড়ের জেলা কালেক্টর পুরো ঘটনাকে দুর্ভাগ্যজনক আখ্যা দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, এই ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ওই ছাত্রীর চিকিত্সার ক্ষেত্রে বিলম্বের অভিযোগ সম্পর্কে রিপোর্ট জমা দিতে শিক্ষা বিভাগের এক আধিকারিককে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। কালেক্টর জানিয়েছেন, অতিরিক্ত জেলা শাসককে ওই স্কুলে যাওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

এক ডেপুটি ডিরেক্টর বৃহস্পতিবার স্কুলে এসে সংশ্লিষ্ট শ্রেণিকক্ষটি পর্যবেক্ষণ করেন। রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী সি রবীন্দ্রনাথ এই ঘটনায় রিপোর্ট তলব করেছেন।

ছাত্রীর মৃত্যুতে ক্ষুব্ধ স্থানীয় লোকজন ও আত্মীরা ওই স্কুলের স্টাফরুমে ঢুকে শিক্ষকদের ওপর চড়াও হওয়ার চেষ্টা করেন। পুলিশ কোনওক্রমে পরিস্থিতি সামাল দেয়। সূত্র : এবিপি


আরো সংবাদ

মিসর সফরে গেছেন বিমান বাহিনী প্রধান বাংলাদেশী হত্যা করে ভারত লাশ ফেরত দেয় না, অথচ নেপালে একই কাজ করে ক্ষমা চায় : মেনন খেলাধুলার মাধ্যমে যোগ্য নাগরিক গড়ে তুলতে চাই : প্রধানমন্ত্রী এনআরসির প্রতিবাদে বিজেপি থেকে ৮০ মুসলিম নেতার পদত্যাগ বিসিএস ট্যাক্সেশন অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি রেজাউল সম্পাদক কায়ছার মাসুদ বাউলের ইন্তেকাল টঙ্গীতে জাপা নেতার বাড়িতে ভাঙচুর অগ্নিসংযোগ ইভিএম বুথে কেউ যেন জোর করে না ঢোকে : শাহ নেওয়াজ শত বাধা সত্ত্বেও শৃঙ্খলা না ভাঙার আহ্বান তাবিথের গাজীপুরে কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেফতার ৪ সীমান্ত হত্যা: ঢাবি ক্যাম্পাসে নিহতদের গায়েবানা জানাজা অনুষ্ঠিত

সকল

কোলে তুলে দেড়ঘণ্টা লাগাতার উদ্দাম নাচ, হিজড়াদের 'অত্যাচারে' নবজাতকের মৃত্যু (২৪০৫৮)এক ধাক্কায় বিজেপি ছাড়লেন ৮০ মুসলিম নেতা (৯৬৫৬)পাইলটকে দেখে নেয়ার হুমকি বিমানযাত্রীর (৯০৮৩)ইরাকের মার্কিন ঘাঁটিতে ইরানের হামলায় ৩৪ মার্কিন সেনা গুরুতর আহত (৭৯০৭)করোনা ভাইরাসে কেউটে-কালাচে আতঙ্ক (৬০৪২)বাংলাদেশকে যেমন নিরাপত্তা দিচ্ছে পাকিস্তান (৫৫৪৮)“স্বেচ্ছায় ইরাক থেকে মার্কিন সেনা সরিয়ে নেয়া উচিত ‘আহাম্মক’ ট্রাম্পের” (৫১৬০)‘মনে হচ্ছে যেন পৃথিবীর শেষ দিন’, ভাইরাস আতঙ্কে চীন (৪৮১৩)মোদি-অমিত শাহ’র দিন শেষ, বাতিল হবে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন (৪৬২৩)‘এসকে সিনহাকে মাজায় দড়ি লাগিয়ে আনা হবে’ (৪১৪৫)