১৬ জুলাই ২০১৯

আধুনিক নগরের সুবিধা পাবেন সাতারকুল-বাড্ডাবাসী : মেয়র আতিকুল

-

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মোঃ আতিকুল ইসলাম বলেছেন, বাড্ডা ও সাতারকুল এলাকার লোকজন এখন থেকে আধুনিক নগরের সব সুযোগ সুবিধাই পাবেন। আগে এই দুটি এলাকা ইউনিয়ন পরিষদের অন্তর্ভুক্ত থাকলেও এখন যেহেতু সিটির অন্তর্ভুক্ত হয়েছে তাই অগ্রাধিকার দিয়ে এই দুই এলাকার উন্নয়নে বেশি নজর দেয়া হবে। এ এলাকার লোকজন পাবেন আধুনিক নগরের সব সেবা।

বৃহস্পতিবার মেয়র নিজেই সম্প্রসারিত এলাকার দুটি ওয়ার্ড পরিদর্শন করেন। ওয়ার্ড দুটি হচ্ছে সাবেক সাতারকুল ইউনিয়ন (৪১ নং ওয়ার্ড) ও বাড্ডা ইউনিয়ন (৩৮ নং ওয়ার্ড)।

সকাল ১১টায় শুরু করে বিকেল সাড়ে ৩টা পর্যন্ত মেয়র আতিকুল ইসলাম দু’টি ওয়ার্ডের বেরাইদ, সাতারকুল, দাদার বাজার, আলী নূর, উত্তর বাড্ডাসহ আরো বিভিন্ন এলাকায় পথসভায় যোগদান করেন। তাছাড়া ৩৮ ও ৪১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর কার্যালয়ে মতবিনিময় সভায় যোগদান করেন।

ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া রোগ সম্পর্কে জনসচেতনতা বৃদ্ধি, জনগণকে উন্নয়ন পরিকল্পনায় আরো বেশী করে সম্পৃক্ত করার লক্ষ্যে তিনি এই দুটি ওয়ার্ড পরিদর্শন করেন। পথসভায় উপস্থিত জনগণের উদ্দেশে মেয়র বলেন, ২০১৯-২০ অর্থবছরে সম্প্রসারিত এলাকাসমূহের উন্নয়ন কাজ শুরু হবে। এজন্য ৪ হাজার ২ শত কোটি টাকা একনেকে শিগগিরই অনুমোদন হবে। এর আগেই প্রতিটি ওয়ার্ডে ২ কোটি ২৬ লাখ0 টাকা ডিএনসিসির ফান্ড থেকে বরাদ্দ দেয়া হয়েছে বলে তিনি জানান।

উত্তরের মেয়র আরো বলেন, প্রতিটি ওয়ার্ডে প্রশস্থ রাস্তা, ড্রেন, ফুটপাত, কমিউনিটি সেন্টার, খেলার মাঠ, পার্ক, কবরস্থান, বর্জ্য ব্যবস্থাপনার জন্য সেকেন্ডারি ট্রান্সফার স্টেশনসহ অন্যান্য অবকাঠামো নির্মাণ করা হবে। নিয়ম অনুযায়ী এসব অবকাঠামো নির্মাণের জন্য জায়গা অধিগ্রহণের প্রয়োজন হতে পারে। এসব অধিগ্রহণের জন্য মেয়র সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

মেয়র বলেন, আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কথা চিন্তা করে এখনই এসব অধিগ্রহণের কাজ শুরু করতে হবে। তিনি বলেন, দীর্ঘ সময়ের কথা মাথায় রেখে সম্প্রসারিত এলাকাসমূহের উন্নয়নের কথা চিন্তা করতে হবে। তবে সংশ্লিষ্ট এলাকার জনগণ ও জনপ্রতিনিধিদের চাহিদা অনুযায়ী উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণ করা হবে বলে তিনি জানান।

ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া নিয়ন্ত্রণে সবাইকে সচেতন হতে হবে বলে মেয়র জানান। তিনি বলেন, বাড়ি বা বাড়ির আশেপাশে তিন দিনের বেশি যেন পানি জমে না থাকে সেজন্য সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। কারণ তিন দিনের বেশি জমে থাকা স্বচ্ছ পানিতে ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া রোগের বাহক এডিস মশা বংশ-বিস্তার করে। পথসভায় জনগণের মাঝে ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া রোগ সম্পর্কে জনসচেতনতামূলক তথ্যসম্বলিত লিফলেট ও স্টিকার বিতরণ করা হয়।

পরিদর্শনকালে অন্যান্যের মধ্যে ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ শফিকুল ইসলাম ও শেখ সেলিম, ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আব্দুল হাই, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মোমিনুর রহমান মামুন, প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা ক্যাপ্টেন এম মনজুর হোসেন, প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মোঃ শরীফ উদ্দিন, আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা মীর নাহিদ আহসান, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা আব্দুল হামিদ মিয়া প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।


আরো সংবাদ

বেসরকারি টিটিসি শিক্ষকদের এমপিওভুক্তির দাবিতে স্মারকলিপি কলেজ শিক্ষার্থীদের শতাধিক মোবাইল জব্দ : পরে আগুন ধর্ষণসহ নির্যাতিতদের পাশে দাঁড়াতে বিএনপির কমিটি রাজধানীতে ট্রেন দুর্ঘটনায় নারীসহ দু’জন নিহত রাষ্ট্রপতির ক্ষমাপ্রাপ্ত আজমত আলীকে মুক্তির নির্দেশ আপিল বিভাগের রাষ্ট্রপতির ক্ষমাপ্রাপ্ত আজমত আলীকে মুক্তির নির্দেশ আপিল বিভাগের রাষ্ট্রপতির ক্ষমাপ্রাপ্ত আজমত আলীকে মুক্তির নির্দেশ আপিল বিভাগের কাল এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশ এরশাদের মৃত্যুতে ড. ইউনূসের শোক ক্ষমতার অপব্যবহার করবেন না : রাষ্ট্রপতি ধর্মপ্রতিমন্ত্রীর নেতৃত্বে ১০ সদস্যের হজ প্রতিনিধিদল সৌদি আরব যাচ্ছেন

সকল




gebze evden eve nakliyat instagram takipçi hilesi