২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯

টিকিট বিক্রির প্রথম দিনেই কমলাপুরে অসঙ্গতি পেয়েছে দুদক

টিকিট বিক্রির প্রথম দিনেই কমলাপুরে অসঙ্গতি পেয়েছে দুদক - নয়া দিগন্ত

পবিত্র ঈদুর ফিতর উপলক্ষে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রির প্রথম দিনেই অসঙ্গতি পেয়েছে দুদক। বুধবার সকালে কমলাপুর রেলস্টেশনে দুদকের সহকারি পরিচালক আলমগীর হোসেনের নেতৃত্বে তিন সদস্যের এই টিম বিভিন্ন কাউন্টার ঘুরে এবং টিকিট কিনতে আসা লোকজনের সাথে কথা বলে এই অসঙ্গতি পান।

দুদক টিমের অপর দুই সদস্য ছিলেন উপ সহকারি পরিচালক মনিরুল ইসলাম ও আফনান জান্নাত কেয়া। সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তারা জানান, কমলাপুরে টিকিট বিক্রির প্রথম দিনেই আমরা বেশি কিছু অসঙ্গতি ধরতে পেরেছি। তবে আমরা এই অসঙ্গতিগুলো এখনি মিডিয়াতে বলবো না। আমাদের আরো কিছু কাজ আছে।

পরে সবগুলোকে একসাথে করেই রিপোর্ট আকারে দুদকে জমা দেব। অপর প্রশ্নের জবাবে জানানো হয়, দুদক চায় মানুষ যাতে নির্বিঘ্নে সেবা পায়। টিকিট কোনো অবস্থাতেই যেন কালোবাজারি না হয়। পর্যায়ক্রমে রাজধানীর রেলের টিকিট বিক্রির পাঁচটি কেন্দ্রেই দুদকের নজরদারি থাকবে বলেও তিনি জানান।

বুধবার সকাল ৯টা থেকে কমলাপুর রেলস্টেশনসহ রাজধানীর পাঁচটি স্টেশন থেকে সারাদেশের বিভিন্ন রুটের ট্রেনের টিকিট বিক্রি হয়েছে। প্রথম দিন দেয়া হয়েছে ৩১ মে’র ট্রেনের টিকিট।

রাজধানীর কমলাপুর রেলস্টেশনে সকাল থেকেই, অগ্রিম টিকিট পেতে যাত্রীদের উপচে পড়া ভিড় ছিল। সকাল থেকেই স্টেশনের ২৩টি কাউন্টার থেকে টিকিট দেয়া হচ্ছে। জানা গেছে, এবার একজন যাত্রী একসাথে সর্বোচ্চ চারটি টিকিট কিনতে পারবেন। এজন্য অবশ্যই জাতীয় পরিচয়পত্র লাগবে। এবারই রেলের ৫০ শতাংশ টিকিট অ্যাপের মধ্যে বিক্রি করা হচ্ছে।


আরো সংবাদ




gebze evden eve nakliyat Paykasa buy Instagram likes Paykwik Hesaplı Krediler Hızlı Krediler paykwik bozdurma tubidy