০৬ ডিসেম্বর ২০১৯

দিনে গড়ে ৫২ মিনিট পরনিন্দা-পরচর্চা!

দিনে গড়ে ৫২ মিনিট পরনিন্দা-পরচর্চা! - সংগৃহীত

গসিপ করতে কার না ভালো লাগে। আসলে, এর চেয়ে ভালো সময় কাটানোর আর কী বা উপায় হতে পারে। স্কুল, কলেজ, অফিস-- সব জায়গাতেই টাইম পাস করার জন্য আমরা প্রত্যেকেই কম-বেশি গসিপ করে থাকি। আবার অনেকের গসিপ না করলে সারাদিনের খাবার হজম হয় না। এমন মানুষের সংখ্যাও খুব একটা কম নয়। কিন্তু এই গসিপ নিয়ে সম্প্রতি একটি চাঞ্চল্যকর তথ্য সামনে এসেছে। ক্যালিফোর্নিয়ার একটি বিশ্ববিদ্যালয় এ নিয়ে একটি সমীক্ষা চালিয়েছে।

সমীক্ষায় কী বলা হচ্ছে?

ক্যালিফোর্নিয়া-রিভারসাইড বিশ্ববিদ্যালয়ের ওই সমীক্ষায় উঠে এসেছে একজন মানুষ প্রতিদিন মোট ৫২ মিনিট গসিপ করেন। প্রথমে সমীক্ষায় প্রশ্ন করা হয়েছিল, মানুষ কোন সময় বেশি গসিপ করে? কী কী বিষয়ে গসিপ করতে মানুষ পছন্দ করেন? পরে এগুলি নিয়ে সমীক্ষা চালাতে গিয়েই ৫২ মিনিটের তথ্য সামনে আসে গবেষকদের। এরই সঙ্গে বলা হয়েছে, কম বয়সীরা নেতিবাচক গসিপ করতে পছন্দ করেন। এবং যারা কম উপার্জন করেন তারা গসিপে বিশ্বাসী বেশি।

সমীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছিলেন প্রায় ৪৬৭ জন। এদের মধ্যে ২৬৯ জন মহিলা ও বাকিরা পুরুষ। ১৮ থেকে ৫৮ বছর বয়সী মানুষ ছিলেন এই সমীক্ষায়। তাদের কথোপকথন রেকর্ড করার জন্য প্রত্যেকের শরীরে লাগানো হয়েছিল পোর্টেবল লিসনিং ডিভাইস। সারাদিনের কথার মধ্যে থেকে ১০ শতাংশ রেকর্ড করেছে ওই ডিভাইস। সেখান থেকেই গবেষকরা গসিপের ধরন ও সময়ের পরিমাণ জানতে পেরেছেন। এক্ষেত্রে কোনো অনুপস্থিত ব্যক্তিকে নিয়ে চর্চাকেই গসিপ বলে বিবেচনা করা হয়েছে। একইসঙ্গে দেখা গেছে মহিলারা পুরুষদের তুলনায় পরনিন্দা পরচর্চায় বেশি আগ্রহী।


আরো সংবাদ

যেভাবে বোতল-বন্দি হলো 'জ্বীনের বাদশাহ্‌' অস্বাভাবিক হারে বাড়ছে সরকারের ঋণ পর্দা নামলো নাগরিক নাট্য সম্প্রদায়ের নতুনের উৎসবের চার গুণীজনকে সম্মাননা না’গঞ্জে ল ইয়ার্স কাউন্সিল : সভাপতি আবদুল কাদের সেক্রেটারি মাইন উদ্দিন জানুয়ারিতে পরীক্ষামূলক পণ্য ট্রান্সশিপমেন্ট করবে ভারত ১২ ডিসেম্বরের আগ পর্যন্ত শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির সিদ্ধান্ত জাগপার জাতীয় সম্মেলন আজ সিদ্ধেশ্বরী থেকে উদ্ধার হওয়া লাশটি স্ট্যামফোর্ড ইউনিভার্সিটির ছাত্রী রুম্পার কায়সার কামালকে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ সরকারের তিন মন্ত্রণালয়সহ ৭ জনকে বিবাদি করে মেয়র আইভীর রিট টঙ্গীতে স্পিনিং মিলে অগ্নিকাণ্ডে ব্যাপক ক্ষতি

সকল




Paykwik Paykasa
Paykwik