১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

তুরস্ক-রাশিয়া সম্পর্ক হচ্ছে গভীর ও শক্তিশালী : পুতিন

তুরস্ক-রাশিয়া সম্পর্ক হচ্ছে গভীর ও শক্তিশালী : পুতিন - সংগৃহীত

তুরস্ক-রাশিয়া সম্পর্ক গভীর ও শক্তিশালী হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। সম্প্রতি তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী  মেভলুত চাভুসওগ্লু, শীর্ষ কূটনীতিক, জাতীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী হুলুসি আকার এবং জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার (এমআইটি) প্রধান হাকান ফাইদানের সাথে সাক্ষাৎ শেষে মস্কোতে এসব কথা বলেন পুতিন।

পুতিন বলেন, তুরস্কের সাথে আমাদের সম্পর্ক আরো গভীর হচ্ছে, আরো বেশি অর্থপূর্ণ হচ্ছে। অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে সহযোগিতা বাড়ছে, আঞ্চলিক বিভিন্ন ইস্যুতে ঘনিষ্ঠতা বাড়ছে।

পুতিন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগানের সাথে সম্পর্ক ও চুক্তির কথা উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, রাশিয়া এবং তুরস্কের দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের উন্নতি সিরিয়ার সঙ্কট সমাধানে ভূমিকা রেখেছে। আমি ধন্যবাদ জানাচ্ছি সেসব দেশকে, যারা আগ্রহী দেশগুলোকে সহায়তা করেছেন। ইরানের ব্যাপারে আমাদের সহযোগিতা ছিল জাতিসঙ্ঘের সাথে, ইউরোপীয় দেশগুলোর সাথে, যুক্তরাষ্ট্রের সাথে। আমরা সিরিয়ার সঙ্কট সমাধানে যথেষ্ট উন্নতি সাধন করেছি।

রাশিয়া, তুরস্ক ও ইরানের নয়া কৌশলে বেকায়দায় যুক্তরাষ্ট্র!

১৬ আগস্ট ২০১৮

রাশিয়া, তুরস্ক ও ইরানের বিরুদ্ধে আমেরিকার অবৈধ নিষেধাজ্ঞার কারণে বিশ্বের দেশগুলোর কাছে ডলারের গ্রহণযোগ্যতা কমে যাচ্ছে। এভাবে চলতে থাকলে আন্তর্জাতিক লেনদেনের ক্ষেত্রে ডলারের ব্যবহার বন্ধ হয়ে যাবে। এ মন্তব্য করেছেন রাশিয়া ও তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা।

মঙ্গলবার আঙ্কারায় তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত চাভুসওগ্লুর সাথে সাক্ষাতের পর এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ বলেন, কয়েক বছর আগে থেকেই আমরা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যের ক্ষেত্রে নিজস্ব মুদ্রা ব্যবহারের কথা ভাবছি। ইরান ও তুরস্কের সাথে এরইমধ্যে এ ব্যাপারে সমঝোতা হয়েছে এবং চীনের সাথে সমঝোতার কাছাকাছি অবস্থায় রয়েছি।

ল্যাভরভ আরো বলেন, অন্য দেশগুলোর বিরুদ্ধে আমেরিকার নিষেধাজ্ঞা সম্পূর্ণ অবৈধ; এমনকি মার্কিন আইনের সাথেই সাংঘর্ষিক।  অচিরেই আন্তর্জাতিক লেনদেনে ডলারের প্রভাব কমতে শুরু করবে এবং বিশ্বের বহু দেশ ডলারের ব্যবহার বন্ধ করে দেবে।

সংবাদ সম্মেলনে তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমরা আমেরিকার নিষেধাজ্ঞা আরোপের নীতির বিরোধী। ইউরোপীয় দেশগুলিও এ ব্যাপারে উদ্বিগ্ন। ইরান বিরোধী মার্কিন নিষেধাজ্ঞায় অংশ নেবে না তুরস্ক। আমরা আমেরিকাকে জানিয়ে দিয়েছি, আগের মতোই ইরানের কাছ থেকে গ্যাস কেনা অব্যাহত রাখব।


আরো সংবাদ