২১ নভেম্বর ২০১৮

মার্কিন আধিপত্যের দিন শেষ : ইরান

মার্কিন আধিপত্যের দিন শেষ : ইরান - সংগৃহীত

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাভেদ জারিফ বলেছেন যুক্তরাষ্ট্রের আধিপত্য বিশ্বকে অসুস্থ ও বিরক্ত করে তুলেছে। বিশ্ব আর টুইটারে দেয়া একনায়কের আদেশ শুনবে না। এক টুইট বার্তায় এ কথা বলেন তিনি। 

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘বিশ্ব যে যুক্তরাষ্ট্রকে আর মানছে না তা ইউরোপ, চীন ও রাশিয়াসহ কয়েক ডজন দেশের নেতাদের প্রশ্ন করলেই বোঝা যাবে।’

এদিকে নতুন করে অবরোধ আরোপের একদিন পর তেহরানে উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী রি ইয়ং-হো এর সঙ্গে বৈঠক করেছেন ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী। এ ঘটনাকে ঔদ্ধত্যের প্রকাশ হিসেবে দেখছেন বিশ্লেষকরা। উভয় দেশই বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রের আরোপ করা অবরোধ সহ্য করছে।

এ বৈঠককে ‘সর্বোচ্চ উত্তেজনাকর’ আখ্যা দিয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্পও। তেহরানে আল-জাজিরার সংবাদদাতা জেইন বাসরাভি বলেন, ‘ইরান দেখাতে চাইছে যুক্তরাষ্ট্র ছাড়াও তাদের অনেক বন্ধু আছে।

ইরানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুররেজা রাহমানি ফাজলি বলেছেন, আন্তর্জাতিক সমাজের সাথে তার দেশের স্বাক্ষরিত পরমাণু সমঝোতা থেকে বেআইনিভাবে বেরিয়ে যাওয়ার জন্য আমেরিকাকে ইরানের জনগণের কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে ক্ষমা চাইতে হবে।

তিনি বৃহস্পতিবার ইরানের মধ্যাঞ্চলীয় ‘ইয়ায্‌দ’ প্রদেশ সফরে গিয়ে এ আহ্বান জানান। ইরানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পরমাণু সমঝোতায় ফিরে আসার জন্যও ওয়াশিংটনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

ইরানি জনগণের সাথে আমেরিকার প্রকাশ্য শত্রুতার কথা উল্লেখ করে রাহমানি ফাজলি বলেন, তার দেশের জনগণ মার্কিন শাসকগোষ্ঠীকে বিশ্বাস করে না এবং তারা ওয়াশিংটনের সাথে কোনো ধরনের আলোচনা মেনে নেবে না।

ইরানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী একইসাথে বলেন, বিশ্বের বেশিরভাগ দেশ আমেরিকার একতরফা নিষেধাজ্ঞা মেনে না নেয়ায় এসব দেশের সাথে অর্থনৈতিক সম্পর্ক আরো স্বচ্ছ হওয়ার পরিবেশ তৈরি হয়েছে।

মার্কিন সরকার সব সময় ইরানকে দুর্বল করে রাখার চেষ্টা করেছে বলে উল্লেখ করেন রাহমানি ফাজলি। তিনি বলেন, ইসলামি বিপ্লবের ৪০ বছর পর এখন আর ইরানের তেল রফতানি বন্ধ করে দেয়া সম্ভব নয়।


আরো সংবাদ