২১ অক্টোবর ২০১৯

ইসরাইলে নতুন সঙ্কট, বেকায়দায় নেতানিয়াহু

ইসরাইলের সদ্য সমাপ্ত নির্বাচনে কেউ সংখ্যাগরিষ্ঠ আসন না পাওয়ায় কোন দলই এককভাবে সরকার গঠন করতে পারবে না। জোটভুক্ত হয়েই সরকার গঠন করতে হবে।

দেশটির বর্তমান প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর দল লিকুদ পার্টি এবারের নির্বাচনে মাত্র ৩১টি আসন পেয়েছে। যেখানে সরকার গঠন করতে হলে নূন্যতম ৬১টি আসনের দরকার। অন্যদিকে, লিকুদ পার্টির চেয়ে ২টি আসন এগিয়ে আছে মধ্যপন্থী দল ব্লু এন্ড হোয়াইট জোট।

এমন পরিস্থিতিতে উভয় শীর্ষস্থানীয় দুই দলই জোট সরকার গঠনের লক্ষে বিভিন্ন দলের সাথে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে। এবারের নির্বাচনে তৃতীয়স্থানে থাকা ইসরায়েলি-আরব জোট প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ব্লু এন্ড হোয়াইট দলের সাবেক সেনা প্রধান বেনি গান্টেজকে চাচ্ছে।

১৯৯২ সালের পর এই প্রথম ইসরাইলের আরব রাজনৈতিক জোট প্রধানমন্ত্রী পদে কাউকে মনোনয়ের জন্য অনুমোদন করলো।

এবারের নির্বাচন ইসরাইলে এবছরের দ্বিতীয় নির্বাচন। এপ্রিলে অনুষ্ঠিত গত নির্বাচনের পর গঠিত জোট ভেঙ্গে গেলে এবার পুনরায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

এবারের নির্বাচনেও সরকার গঠনের ক্ষেত্রে অচলাবস্থা তৈরি হওয়ায় ইসরাইলের প্রেসিডেন্ট রেউভেন রিভলিন নির্বাচনে সবচেয়ে বেশি ৩৩ আসন পাওয়া ব্লু এন্ড হোয়াইট দলের বেনি গান্টেজ ও ৩১ আসন পাওয়া লিকুদ পার্টির বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুকে মনোনয়ন দিয়েছেন।

রিভলিন বলেন, এবছর ইসরাইলের তৃতীয় নির্বাচন ঠেকাতে তিনি তার করণীয় সবকিছু করবেন।

আরব জোটের প্রধান আইয়ান ওদেহ ইসরাইলের প্রেসিডেন্টকে জানিয়েছেন, তার জোট নেতানিয়াহুকে আরেকবার ক্ষমতায় না রাখার ব্যাপারে বদ্ধপরিকর। ইসরাইলের রাজনীতিতে আবর জোটকে শক্ত রাজনৈতিক জোট হিসেবে মনে করা হয়।

তিনি বলেন, আমরা বেনি গান্টেজের নীতিকে পছন্দ না করলেও বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুকে আর ক্ষমতায় দেখতে চাই না। আর এর মাধ্যমে সুস্পষ্ট বার্তা দিতে চাই ভবিষ্যতে ইসরাইলের সকল ক্ষেত্রে দেশটিতে অবস্থানরত ফিলিস্তিরা সমানভাবে অংশগ্রহণ করবে।

কিন্তু আরব জোটের ১৩ আসন পেলেও ব্লু এন্ড হোয়াইট দলের বেন্টি গান্টেজ সরকার গঠনের জন্য প্রয়োজনীয় ৬১ আসন পায় না। আরব জোট ছাড়াও ব্লু এন্ড হোয়াইট দলকে ডেমোক্রেটিক ইউনিয়ন এবং লেবার পার্টি সমর্থন দিয়েছে। তাতে এই জোট ৫৭টি আসন পায়। যদিও ৫৪টি আসন তিনি নিশ্চিত করতে পেরেছেন।

অন্যদিকে লিকুদ পার্টি অন্য ছোট দলগুলোর সমর্থন নিয়ে ৫৫টি আসন নিশ্চিত করেছে।

এখন এই দুই নেতা তাকিয়ে আছেন এবারের নির্বাচনের ‘কিংমেকার’ ইসরাইল বিয়াইটাইনু পার্টির প্রধান ও সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী আভিগডোর লিবারম্যানের দিকে। তার দল এবারের নির্বাচনে ৮ আসন পেয়েছে। তিনি আরব জোট বা কট্টরপন্থী ধর্মীয় দলগুলোর সাথে জোট করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন।

তিনি এখন নেতানিয়াহু ও বেনি গান্টিজের গলার কাঁটা হয়ে ঝুলে রইলেন, আর ইসরাইলেরও। বিবিসি ও সিএনএন।


আরো সংবাদ




portugal golden visa
paykwik