২২ আগস্ট ২০১৯

ব্রিটিশ তেল ট্যাংকার আটকে রাশিয়ার হাত!

ব্রিটিশ তেল ট্যাংকার আটকে রাশিয়ার হাত! - ছবি : সংগৃহীত

ব্রিটিশ পতাকাবাহী তেল ট্যাংকার আটকের ঘটনায় রাশিয়ার হাত ছিল বলে একটি ব্রিটিশ দৈনিক দাবি করেছে। তবে তা নাকচ করে দিয়েছে মস্কো। রুশ পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ ফেডারেশন কাউন্সিলের নীতি নির্ধারণী কমিশনের চেয়ার‍ম্যান অ্যালেক্সি পুশকভ ব্রিটিশ পত্রিকার ওই দাবি প্রত্যাখ্যান করেন।

তিনি গতকাল (রোববার) নিজের অফিসিয়াল টুইটার পেজে লিখেছেন, “ব্রিটিশরা এর আগেও রাশিয়ার বিরুদ্ধে এরকম অভিযোগ করেছে। কিছুদিন আগে কার্চ প্রণালীতে রাশিয়া যখন দেশটির পানিসীমায় ঢুকে পড়া ইউক্রেনের জাহাজ আটক করে তখনও লন্ডন একই ধরনের দাবি করে। ব্রিটিশ সরকার তখন রাশিয়ার ওই পদক্ষেপ বিদ্বেষী পদক্ষেপ বলে অভিহিত করে; অথচ ওই ঘটনা ঘটেছিল ইউক্রেনের সাবেক প্রেসিডেন্ট পেতরো পোরোশেঙ্কোর উসকানিতে।”

পুশকভ আরো বলেন, এখন আবার ব্রিটিশরা ইরানের হাতে তাদের তেল ট্যাংকার আটকের ঘটনায় রাশিয়াকে জড়ানোর চেষ্টা করছে। মনে হচ্ছে, ব্রিটেনে ভুয়া খবর তৈরি করা লোকজন কখনো ছুটি কাটায় না।

এর আগে একটি অজ্ঞাত সূত্রের বরাত দিয়ে ব্রিটিশ পত্রিকা সানডে মিরর দাবি করেছিল, দেশটির গোয়েন্দা সংস্থা এমআইসিক্স ইরানের হাতে ব্রিটিশ তেল ট্যাংকার জব্দ হওয়ার ঘটনায় রাশিয়ার সম্ভাব্য জড়িত থাকার বিষয়টি তদন্ত করবে।

ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসি গত শুক্রবার হরমুজ প্রণালী দিয়ে সৌদি আরব যাওয়ার সময় ব্রিটিশ পতাকাবাহী একটি তেল ট্যাংকার আটক করে। এর আগে গত ৪ জুলাই ব্রিটিশ নৌবাহিনী জিব্রাল্টার প্রণালী থেকে ২১ লাখ ব্যারেল তেলবাহী ইরানের একটি সুপার ট্যাংকার আটক করেছিল।
সূত্র : পার্স টুডে

 


আরো সংবাদ

৭৫-এর পরিকল্পনাকারীদের বিচারে জাতীয় কমিশন গঠনের দাবি রাজধানীতে জেএমবির চার সদস্য গ্রেফতার ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় জড়িতদের শাস্তি নিশ্চিত করা হবে : প্রধানমন্ত্রী মিয়ানমারে ফিরে না গেলে রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে পাঠানো হবে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী সংসদ সচিবালয়ের আবাসন সমস্যা দূর করতে আরো ৫০০ ফ্যাট কুড়িগ্রামে ব্রহ্মপুত্র নদে ভেলায় সবজি চাষ বর্জ্য ব্যবস্থাপনা খাতে বিনিয়োগ করার আহ্বান অবশেষে রোহিঙ্গারা ফিরছেন আজ থেকে মিয়ানমারে রোহিঙ্গা পরিস্থিতি আরো অবনতির আশঙ্কা ১৫ আগস্ট আর ২১ আগস্টের হত্যাকাণ্ড একই সূত্রে গাঁথা : কাদের কাশ্মির নিয়ে আন্তর্জাতিক আদালতে যাবে পাকিস্তান

সকল




mp3 indir bedava internet