১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯

মধ্যপ্রাচ্যে আবারো তেলবাহী জাহাজে হামলা

-

মধ্যপ্রাচ্যের সমুদ্রসীমায় আবারো তেলবাহী ট্যাঙ্কারে হামলার ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবার ওমান উপসাগরে সংযুক্ত আরব আমিরাতের উপকূলের কাছে দুটি তেলবাহী ট্যাঙ্কারে হামলার ঘটনা ঘটেছে। হামলার পর জাহাজ দুটির ক্রুদের নিরাপদে উদ্ধার করা গেছে বলে জানিয়েছে ডেইলি সাবাহ।

গত মাসেও আরব উপসাগরে চারটি ট্যাঙ্কারে হামলার ঘটনা ঘটেছে। যার মধ্যে দুটি ট্যাঙ্কার ছিলো সৌদি আরবের। ওই ঘটনার জন্য ইরানকে দায়ী করা হয়েছিল। যদিও ইরান তা অস্বীকার করেছে।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের ফুজাইরাহ আমিরাতের উপকূলের কাছে বৃহস্পতিবার হামলার শিকার হওয়া জাহাজ দুটির একটির মালিক নরওয়ের তেলপরিবহন সংস্থা ফ্রন্টলাইন। সংস্থাটির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, মার্শাল আইল্যান্ডের দিকে যাওয়ার সময় ফ্রন্ট অলটেয়ার নামের তাদের একটি ট্যাঙ্কারে হামলা হয়েছে। পাশে থাকা আরেকটি নৌযান ওই ট্যাঙ্কারের ক্রুদের উদ্ধার করেছে।

ট্যাঙ্কারটি তাইওয়ানের রাষ্ট্রীয় কোম্পানি ভাড়া করেছিল। তাদের হয়ে ৭৫ হাজার টন পেট্রোক্যামিকেল বহন করছিলো সেটি। দুপুরের দিকে ট্যাঙ্কারটিতে একটি টর্পেডো আঘাত হেনেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এদিকে হামলার পর এই জাহাজটি ডুবে গেছে বলে জানিয়েছে রয়টার্স। ইরানের বার্তাসংস্থা ইরনার বরাত দিয়ে রয়টার্স জানিয়েছে একথা।

হামলার শিকার অপর জাহাজটির নাম কোকুকা কোরাজিয়াস, যেটি যাচ্ছিল পানামার দিকে। দ্বিতীয় এই জাহাজটির ডুবে যাওয়ার ঝুঁকি নেই বলে জানা গেছে। এই জাহাজটির মালিক সিঙ্গপুর ভিত্তিক একটি কোম্পানি। তারা জানিয়েছে, জাহাজটি আরব আমিরাত উপকূল থেকে ৭০ নটিক্যাল মাইল দূরে ছিল, আর ইরান উপকূল থেকে ১৪ নটিক্যাল মাইল দূরে ছিল।


আরো সংবাদ