২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯

এস-৪০০ কিনেছি, এস-৫০০ নিজেরাই বানাব : এরদোগান

রজব তাইয়েব এরদোগান - ফাইল ছবি

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান বলেছেন, রাশিয়া থেকে এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কেনা থেকে আর পিছিয়ে আসার সুযোগ নেই। আর এই সর্বাধুনিক অস্ত্রের পরবর্তী সংস্করণ এস-৫০০ রাশিয়ার সাথে যৌথভাবে বানাবে তুরস্ক।

রাশিয়া থেকে তুরস্কের এস-৪০০ কেনা সাম্প্রতিক বিশ্বের সবচেয়ে আলোচিত ঘটনাগুলোর একটি। যুক্তরাষ্ট্রের প্রবল বিরোধীতা উপেক্ষা করে এরদোগান সরকার এই অস্ত্র কেনার চুক্তি করেছ। এমনকি যুক্তরাষ্ট্র নিষেধাজ্ঞা আরোপ করার হুমকিও দিয়েছে।

শনিবার ইস্তাম্বুলে তরুণদের সাথে এক অনুষ্ঠানে এ সংক্রান্ত প্রশ্নের জবাবে এরদোগান বলেন, এস-৪০০ কেনা থেকে পিছিয়ে আসার আর কোন সুযোগ নেই। এ বিষয়ে চুক্তি হয়ে গেছে। এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার পর আমরা রশিয়ার সাথে যৌথভাবে এস-৫০০ তৈরি করব।

যুক্তরাষ্ট্রের সাথে তুরস্কের খারাপ সম্পর্ক রয়েছে কয়েকটি কারণে। ন্যাটো জোটের সদস্য এই দেশ দুটি সিরিয়ার কুর্দি ইস্যুতে দুই মেরুতে অবস্থান করছে। তুরস্কের বিরুদ্ধে সক্রিয় কুর্দি সশস্ত্র যোদ্ধাদের সহায়তা করছে যুক্তরাষ্ট্র আবার তুরস্কের অভ্যুত্থান চেষ্টার মাস্টারমাইন্ড ফেতুল্লা গুলেনকেও রাজনৈতিক আশ্রয় দিয়েছে তারা।

এরপর তুরস্ক যখন রাশিয়া থেকে এস-৪০০ কেনার পদক্ষেপ নেয়, যুক্তরাষ্ট্র বলে এটি পশ্চিমা বিশ্বর প্রতিরক্ষার জন্য হুমকি। যুক্তরাষ্ট্র থেকে তুরস্কের কেনা এফ-৩৫ ফাইভ স্টিলথ যুদ্ধবিমান ডেলিভারি বন্ধ করে দেয় ওয়াশিংটন।
তুরস্ক সর্বাধুনিক প্রযুক্তির ১০০টি এফ-৩৫ যুদ্ধবিমান কিনবে যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে। এ লক্ষ্যে তুর্কি পাইলটরা মার্কিন ঘাঁটিতে প্রশিক্ষণও নেয়া শুরু করেছে।

তবে এরদোগান বলেছেন, আজ হোক কাল হোক তুরস্ক এফ-৩৫ পাবেই। অন্যদিকে আগামী জুলাই মাসেই রাশিয়ার তৈরি এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা হাতে পাবে তুরস্ক।


আরো সংবাদ