২০ নভেম্বর ২০১৮

ইরাকের প্রতি ইরানের আহ্বান

ইরাকের প্রতি ইরানের আহ্বান - সংগৃহীত

ইরানের সেনাপ্রধান মেজর জেনারেল মোহাম্মাদ বাকেরি ইরাকে অবস্থানরত ইরান বিরোধী সন্ত্রাসীদেরকে তেহরানের কাছে হস্তান্তরের জন্য বাগদাদ সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, এ কাজ করতে না পারলে বাগদাদ যেন এসব সন্ত্রাসীকে অন্তত ইরাক থেকে বহিষ্কার করে।

ইরাকের কুর্দিস্তান থেকে কয়েকটি উগ্রপন্থী গোষ্ঠী গত কয়েক মাসে ইরানের উত্তর-পশ্চিম সীমান্তে বেশ কিছু সন্ত্রাসী হামলা চালিয়েছে। এসব হামলায় জানমালের ক্ষয়ক্ষতির জের ধরে গত শনিবার ইরান স্বল্পপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে ইরাকের একটি উগ্রপন্থী গোষ্ঠীর ঘাঁটিতে হামলা চালিয়েছে।  হামলায় ওই গোষ্ঠীর ১৫ নেতা-কর্মী নিহত ও অপর ৪০ জন আহত হয়।

এ সম্পর্কে জেনারেল বাকেরি বলেন, ইরানে হামলা চালানোর কাজে ইরাকের কুর্দিস্তান অঞ্চলকে ব্যবহার করতে দেয়া হবে না বলে কুর্দিস্তানের আঞ্চলিক সরকার ১৯৯৬ সালে ইরানকে লিখিত প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল। কিন্তু আমেরিকার উসকানিতে ওই সরকার সে প্রতিশ্রুতি লঙ্ঘন করে ইরানে হামলা চালানোর অনুমতি দিয়েছে।

ইরানের সশস্ত্র বাহিনীর চিফ অব স্টাফ জেনারেল বাকেরি আরো বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে কুর্দিস্তানে ঘাঁটি গেড়ে বসা উগ্রপন্থী গোষ্ঠীগুলোকে ইরানের পক্ষ থেকে সতর্ক করা সত্ত্বেও তারা ইরান সীমান্তে হামলা বন্ধ করেনি। হুঁশিয়ার করে দেয়ার পরও কাজ না হওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালাতে বাধ্য হয়েছে তেহরান।

তিনি বলেন, ইরান সীমান্তে কোনো অবস্থাতেই নিরাপত্তাহীনতা সহ্য করা হবে না। ওই উগ্রপন্থী গোষ্ঠী এরপরও নাশকতামূলক তৎপরতা অব্যাহত রাখলে তেহরানের পরবর্তী প্রতিক্রিয়া হবে আরো ভয়ঙ্কর।

ইরাকের বসরায় ইরানের নয়া কনস্যুলেট ভবন

ইরাকের দক্ষিণাঞ্চলীয় বসরা নগরীতে নতুন কনস্যুলেট ভবন উদ্বোধন করেছে ইরান। একদল ভাড়াটে দুর্বৃত্ত ইরানের সাবেক কনস্যুলেট ভবনে আগুন দেয়ার তিনদিনের মাথায় নয়া কূটনৈতিক মিশন চালু করল তেহরান।

বাগদাদে নিযুক্ত ইরানের রাষ্ট্রদূত ইরাজ মাসজেদি মঙ্গলবার বসরা সফরে যান এবং সেখানে নয়া কনস্যুলেট ভবনে ইরানি পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে এই কূটনৈতিক মিশন উদ্বোধন করেন। উদ্বোধনি অনুষ্ঠানে ইরাকের স্থানীয় কর্মকর্তাদের পাশাপাশি দেশি-বিদেশি সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় ইরানি রাষ্ট্রদূত বলেন, ইরাকের সাথে তার দেশের সম্পর্ক ক্ষতিগ্রস্ত করার লক্ষ্যে বিশেষ মহলের প্রতারণার শিকার কিছু দুর্বৃত্ত ইরানের কনস্যুলেট ভবনে আগুন দিয়েছে। এ ধরনের নাশকতামূলক তৎপরতা চালিয়ে তেহরান-বাগদাদ ঘনিষ্ঠ সম্পর্কের ক্ষতি করা যাবে না বলেও তিনি দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

অনুষ্ঠানে বসরার গভর্নর আসাদ আল-ঈদানি বলেন, দ্রুততম সময়ের মধ্যে ইরানি কনস্যুলেট আবার চালু করার মাধ্যমে ইরান-ইরাক ঘনিষ্ঠ সম্পর্কের বিষয়টি ফুটে উঠেছে এবং বসরার স্থানীয় সরকার তেহরানের সঙ্গে সম্পর্ক আরো গভীর করার চেষ্টা করছে। 

ইরাকে অর্থনৈতিক সঙ্কট, দুর্নীতি, বেকারত্ব এবং পানি ও বিদ্যুৎ সংকটের প্রতিবাদে বসরা শহরে বর্তমানে সরকার বিরোধী বিক্ষোভ চলছে। বিক্ষোভকারীরা এ পর্যন্ত ইরাকের বেশ কিছু সরকারি স্থাপনায় হামলা চালিয়েছে।  কিন্তু শুক্রবার রাতে হঠাৎ করে কিছু দুর্বৃত্ত ইরানি কনস্যুলেটে হামলা চালিয়ে তাতে আগুন ধরিয়ে দেয় যদিও হামলায় কনস্যুলেট কর্মীদের কোনো ক্ষতি হয়নি। 


আরো সংবাদ