২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

পরমাণবিক ইস্যুতে ইরানের পাশে থাকার ঘোষণা পাকিস্তানের

ইমরান খানের সাথে সাক্ষাৎ করেন ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাভেদ জারিফ - ছবি : সংগ্রহ

পারমাণবিক কর্মসুচি ইস্যুতে ইরানের পাশে থাকার ঘোষণা দিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। সেই সাথে এই ইস্যুতে ইরানের
অবস্থানের প্রতি সমর্থন জানিয়ে অন্য পক্ষগুলোকে চুক্তির শর্তের প্রতি অঙ্গীকারাবদ্ধ থাকার আহ্বান জানিয়েছেন ইমরান।

ইসলামাবাদে সফররত ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাভেদ জারিফের সাথে সাক্ষাৎকালে দুই দেশের ‘অবিচ্ছিন্ন সম্পর্কের’ কথা উল্লেখ করে
পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী বলেন, তার সরকার দুই দেশের সম্পর্ককে সকল ক্ষেত্রে জোরদার করার চেষ্টা করবে, যাতে উভয় দেশ লাভবান হয়।

আঞ্চলিক রাজনীতিতে পাকিস্তান ও ইরানের গুরুত্ব উল্লেখ করেন ইমরান খান। তিনি বলেন, উভয় দেশ সংযোগ বৃদ্ধির মাধ্যমে এই অঞ্চলের মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ সমৃদ্ধি ও প্রবৃদ্ধি অর্জন করে চলছে এবং একই সাথে দুই দেশের নাগরিকদের মধ্যেও সম্পর্ক বৃদ্ধি পাচ্ছে।
কাশ্মিরের সংগ্রামের বিষয়ে ইরানের সমর্থনের জন্যও ধন্যবাদ জানান ইমরান খান।

দুই দেশের মধ্যে বিগত দশকের ভুলবোঝাবুঝি পেছনে ফেলে এগিয়ে যাওয়ার আশা ব্যক্ত করে ইরান। পররাষ্ট্রমন্ত্রী জারিফ তার দেশে অনুষ্ঠিতব্য এশিয়া সহযোগিতা সংলাপে(এসিডি) ইমরান খানকে আমন্ত্রণ জানান।
চলিত বছর ইরানে ব্যাপক আয়োজনে উদযাপিত হয়েছে পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবস। এজন্য ইমরান খান ইরান সরকারকে ধন্যবাদ জানান।

আরো পড়ুন :

প্রিন্সেস ডায়ানার জন্য করা 'বোরকা'র নকশা নিলামে
বিবিসি
ব্রিটিশ বধূ প্রিন্সেস ডায়ানা যখন উপসাগরীয় এলাকায় ভ্রমণে যান তখন তার জন্য অনেক পোশাকের ডিজাইন করেছিল দি এমানুয়েল। ১৯৮৬ সালে প্রিন্সেস ডায়ানার উপসাগরীয় অঞ্চল ভ্রমণের জন্য নকশা করা হয়েছিল এমন একটি বোরকা এই মাসে যুক্তরাষ্ট্রে নিলামে তোলা হবে।

এই নিলামে অন্যান্য পোশাকের নকশা এবং কাপড়ের নমুনা প্রদর্শন করা হবে। এসব পোশাক এসেছে ডেভিড এবং এলিজাবেথ এমানুয়েল এর ফ্যাশন হাউজ থেকে যারা প্রিন্সেস-ডায়ানার বিয়ের পোশাকেরও নকশা করেছিলেন।

এক চিঠিতে গালফ ট্যুরের জন্য পোশাকের নকশার নির্দেশনা দিয়ে প্রিন্সেস ডায়ানার রাজকীয় সাহায্য-কর্মী লিখেছেন : 'সব দিকে মার্জিত পোশাক হবে প্রধান বিবেচ্য বিষয়'।

ডিজাইনাররা একটি বিভাগের নাম দিয়েছেন "দি গালফ ট্যুর ১৯৮৬ : দিবা ও সান্ধ্য-কালীন পোশাকের নকশা" শিরোনামে। এর মধ্যে রয়েছে ডিজাইনারের হাতে আঁকা নকশার পাঁচটি অরিজিনাল বা মূল পোশাক।

একটি বোরকার বিষয়ে লেখা আছে : "প্রিন্সেস অব ওয়েলস, সৌদি আরব সফর, নভেম্বর, ১৯৮৬, রিজার্ভ আউট-ফিট"। 

একটি নেভি এবং সাদা ডোরাকাটা কোট, সান্ধ্য-কালীন পোশাক, সাদা সিল্ক ক্রেপে এমব্রয়ডারি করা ক্রিস্টাল বসানো আরেকটি সান্ধ্য-কালীন পোশাকও থাকবে নিলামে। একজন সংগ্রাহকের ব্যক্তিগত সংগ্রহ থেকে এসব দ্রব্য বিক্রি করা হবে যার মূল্য ধরা হয়েছে ২৩ হাজার পাউন্ড।

ডিজাইনার এলিজাবেথ এমানুয়েলকে উদ্দেশ্য করে ডায়ানার রাজকীয় সাহায্য-কর্মী অ্যানি বেক-উইথ-স্মিথ গালফ ট্যুরের জন্য পোশাকের ডিজাইন করতে অনুরোধ তুলে ধরে যে চিঠি লিখেছিলেন তা-ও এই নিলামে স্থান পাবে।

মিজ বেক-উইথ-স্মিথ বলেন, সবগুলোতেই মার্জিত পোশাকের ব্যাপারটিকে প্রাধান্য দিতে হবে"।

প্রিন্সেস ডায়ানা এবং প্রিন্স চার্লস ছয়দিনের সফরে উপসাগরীয় অঞ্চলে এবং সৌদি আরবে যান। নিলামের উদ্যোক্তারা বলছেন, সফরের সময় প্রিন্সেস ডায়ানা পোশাকের ক্ষেত্রে স্থানীয় রীতি-নীতির সাথে সামঞ্জস্য রেখে পোশাক পরার চেষ্টা করেন, তবে গলা এবং মাথা অনাচ্ছাদিতই রাখেন তিনি।

উল্লেখযোগ্য হলো, রিজার্ভ আউট-ফিট হিসেবে মার্ক করা বোরকা প্রিন্সেস ডায়ানার পরা হয়নি। সান্ধ্য-কালীন ভোজসভায় লম্বা হাতাওয়ালা পোশাক পরে উপস্থিত হতে দেখা গেছে তাকে যেসব পোশাক ওই সফরের জন্য বিশেষভাবে তৈরি করা হয়েছিল।


আরো সংবাদ

বিলাসী জীবনযাপন ও স্বেচ্ছাচারী আচরণে ফেঁসে যাচ্ছেন নাজিব রাজাকের স্ত্রী থাইল্যান্ডে বৌদ্ধমন্দির ধসে নিহত ১, আহত ১১ মুসলিম ছাত্রের সাথে কেন সম্পর্ক! ছাত্রীকে পুলিশের মারের ভিডিও ভাইরাল মোহাম্মদ নবীর মুখে আফগান ক্রিকেটের সংগ্রামী গল্প রায়ের তারিখ ধার্যের আবেদন : আদেশ ৩০ সেপ্টেম্বর পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ম্যাচ : 'সাকিব নিচ্ছেন ইঞ্জেকশন, মাশরাফি ওষুধ' দেবিদ্বারে উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যানসহ জামায়াত-শিবিরের ১২ নেতাকর্মী আটক মুন্সীগঞ্জে র‌্যাবের সাথে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ব্যবসায়ী নিহত ম্যাচ ফিক্সিংয়ের অভিযোগের পরই শতরান! ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন : প্রফেসর আসিফ নজরুলের বিশ্লেষণ আফগানিস্তান নিয়ে যা বললেন ধোনি

সকল