২১ অক্টোবর ২০১৮

সিরিয়া যুদ্ধের জন্য কে দায়ী?

সিরিয়া যুদ্ধের জন্য কে দায়ী? - সংগৃহীত

সিরিয়া যুদ্ধ উস্কে দেওয়ার জন্য পশ্চিমাদের দায়ী করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদ। রোববার এক টেলিভিশন সাক্ষাতকারে এ অভিযোগ করেন তিনি।

পশ্চিমাদের সব ষড়যন্ত্র শক্ত হাতে দমন করা হবে বলেও সতর্ক করেন আসাদ। তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রসহ বিভিন্ন দেশের মদদে মাথাচাড়া দিয়ে ওঠা সন্ত্রাসীদের দমন করা হয়েছে।

এছাড়া অন্যসব বিদ্রোহী গোষ্ঠীদেরও পরাজিত করতেও দেশটির সামরিক বাহিনী অভিযান অব্যাহত রেখেছে বলে জানান আসাদ।

এসময় সন্ত্রাসী সংগঠন সৃষ্টির জন্য যুক্তরাষ্ট্র এবং তার মিত্রদের দায়ী করেন। আন্তর্জাতিক আইন মেনেই রাশিয়া সিরীয় সেনাবাহিনীকে সাহায্য করছে বলে উল্লেখ করেন সিরীয় প্রেসিডেন্ট।

 

সিরিয়া প্রশ্নে ইরান-রাশিয়া ইসরাইল ত্রিপক্ষীয় দ্বন্দ্ব
বিবিসি

ইরান ও ইসরাইলের মধ্যেকার বহুদিনের সঙ্ঘাত মে মাসের শুরুর দিকে বেশ নাটকীয়ভাবেই তীব্রতা পেয়েছে।
গোলান মালভূমিতে ইসরাইলি সেনা অবস্থানে ইরানের রকেট হামলাকেই অবস্থার পরিবর্তনের কারণ হিসেবে মনে করা হচ্ছে। অবশ্য এটি ছিল ইরানের অবস্থানে ইসরাইলি বাহিনীর বিমান হামলার জবাব। আর তারপর থেকেই ইসরাইল অনেক বেশি আক্রমণাত্মক হয়ে উঠেছে।

সিরিয়ায় অবস্থান নেয়া ইরানের অন্তত ৫০টি স্থাপনা লক্ষ্য করে ইসরাইল এমনভাবে বিমান হামলা চালিয়েছে যে ওই সব সামরিক স্থাপনা আবার আগের মতো অবস্থায় নিয়ে যেতে হয়তো অনেক সময় লেগে যাবে বলে মনে করেন বিশ্লেষকেরা। এটা এখন পরিষ্কার যে ওই হামলা ভবিষ্যতের জন্যও পুরো অঞ্চলের হিসাব-নিকাশই পাল্টে দেবে।

এমনকি দক্ষিণ গোলান মালভূমি পরিস্থিতি হয়তো পাবে নতুন মাত্রা। ইসরাইল সীমান্তবর্তী সিরিয়ার দক্ষিণ-পশ্চিমের এই অঞ্চল কুনেত্রা প্রশাসনিক এলাকার অন্তর্ভুক্ত, যা কি না নতুন করে সিরিয়ার সরকারি বাহিনীর হামলার সম্মুখীন হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। বাশার আল আসাদ সরকার সব সময়েই বিভিন্ন বাহিনীকে উৎখাত করতে প্রস্তুত, বিশেষ করে যাদের সাথে ইসলামিক স্টেট গোষ্ঠীর বিন্দুমাত্র সংশ্লিষ্টতা রয়েছে। এখানে সম্ভাব্য যুদ্ধ নতুন এ অঞ্চলে যাদের কৌশলগত স্বার্থ রয়েছে সিরিয়ার বাইরের এমন তিন শক্তির জন্য একটি পরীক্ষা হয়ে দাঁড়াতে পারে। সেই দেশ তিনটি হলো- ইরান, ইসরাইল ও রাশিয়া।

ভারসাম্যের চেষ্টা

এই তিন দেশের মধ্যে সম্পর্ক যে একেবারেই স্বাভাবিক নয়, তা বলাই বাহুল্য। ইরান আর ইসরাইল তো দৃশ্যতই শত্রু। অন্য দিকে সিরিয়া দ্রুতই হয়ে উঠছে তাদের তিক্ত সম্পর্ক প্রতিফলনের বিপজ্জনক ক্ষেত্র। রাশিয়া আর ইরান হলো বাশার সরকারের সামরিক শক্তির প্রধান উৎস্য। এদের সমর্থন ছাড়া বাশার সরকারের পতন অনিবার্য বলেই ধরে নেয় হয়।


আরো সংবাদ