১২ ডিসেম্বর ২০১৯

মোবাইল ব্যাংকিংয়ে ঘুষ লেনদেনে নজর রাখবে দুদক

মোবাইল ব্যাংকিংয়ে ঘুষ লেনদেনে নজর রাখবে দুদক - ছবি : সংগৃহীত

মোবাইল ব্যাংকিং চ্যানেল ব্যবহার করে অপরাধীরা যাতে ঘুষ লেনদেন কিংবা জঙ্গিবাদে অর্থায়ন ও বিদেশে অর্থপাচার করতে না পারে সেজন্য এ সেবা সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোর সহযোগিতা চেয়েছে দুদক। বৃহস্পতিবার দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) প্রধান কার্যালয়ে মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসসমূহের নির্বাহীদের সাথে এক বৈঠকে দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ তাদের সহযোগিতা চান।

এসময় মোবাইল ব্যাংকিং প্রতিষ্ঠানগুলোর উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনারা মোবাইল ব্যাংকিং চ্যানেলে প্রতিটি লেনদেনের বিস্তারিত তথ্য সংরক্ষণ করবেন। সন্দেহজনক লেনদেন সংঘটিত হলে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে রিপোর্টিং এজেন্সিকে রিপোর্ট করবেন। প্রতিটি লেনদেনের ডিজিটাল রসিদ রাখতে হবে।

দুদক চেয়ারম্যান আরো বলেন, কমিশনে একজন কর্মকর্তাকে ফোকাল পয়েন্ট হিসেবে নিয়োগ করা হবে। তিনি অনুসন্ধান বা তদন্তের স্বার্থে কমিশনের অনুমোদন সাপেক্ষে আপনাদের কাছে তথ্য চাইলে তাৎক্ষণিকভাবে ফোকাল পয়েন্ট কর্মকর্তাকে তথ্য প্রদান করবেন।

এসময় মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসসমূহের নির্বাহীরা দুদক চেয়ারম্যানকে জানান, তাদের মোবাইল ব্যাংকিং চ্যানেলের সকল রেকর্ডপত্র যথাযথভাবে সংরক্ষণ করা হয়। দুর্নীতি দমন কমিশন চাইলে এসব লেনদেনের তথ্য তারা কমিশনকে সরবরাহ করবে। তারা আরও জানান, সন্দেহজনক লেনদেন হলে সংশ্লিষ্ট সংস্থাকে নিয়মিত জানানো হয়।

মতবিনিময় সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- রকেটের এসইভিপি আবেদুর রহমান সিকদার, বিকাশের হেড অব রেগুলেটরি এন্ড কর্পোরেট অ্যাফেয়ার্স হুমায়ুন কবীর, বাংলাদেশ ব্যাংকের জেনারেল ম্যানেজার মো. মেজবাউল হক, ডাক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এসএস ভদ্র, দুদকের মানিলন্ডারিং অনুবিভাগের মহাপরিচালক আ ন ম আল ফিরোজ, প্রশিক্ষণ ও আইসিটি অনুবিভাগের মহাপরিচালক এ কে এম সোহেল, গোয়েন্দা শাখার পরিচালক মীর মো. জয়নুল আবেদীন শিবলী, মানিলন্ডারিং অনুবিভাগের পরিচালক গোলাম শাহরিয়ার চৌধুরী প্রমুখ।


আরো সংবাদ




hacklink Paykwik Paykasa
Paykwik