১৬ ডিসেম্বর ২০১৮

চিকিৎসা শেষ না করে খালেদা জিয়াকে কারাগারে নেয়ার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট

-

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার চিকিৎসা শেষ না করে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) থেকে কারাগারে পাঠানোর বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে একটি রিট আবেদন করা হয়েছে। একই সঙ্গে বিশেষায়িত কোনো হাসপাতালে তার চিকিৎসার ব্যবস্থা করার নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে আবেদনে।

খালেদা জিয়ার পক্ষে আইনজীবী ব্যারিস্টার নওশাদ জমির হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এ রিট আবেদন করেন। আজ সোমবার হাইকোর্টের বেঞ্চে এ রিট আবেদনের শুনানির জন্য কার্যতালিকায় ছিল। তবে এ বিষয়ে আগামীকাল (মঙ্গলবার) হাইকোর্টের বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চে শুনানি হতে পারে বলে আইনজীবীরা জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে খালেদার অন্যতম আইনজীবী কায়সার কামাল সাংবাদিকদের বলেন, বিএসএমএমইউতে খালেদা জিয়ার চিকিৎসা শেষ না করে কারাগারে পাঠিয়ে দেয়া হয়, যা মৌলিক অধিকারের পরিপন্থী। এ যুক্তিতে রিট আবেদনটি করা হয়। রিটে খালেদা জিয়াকে বিশেষায়িত হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসাসেবা চলমান রাখার আরজি জানানো হয়েছে। রিটটি আদালতে আজ সোমবার উত্থাপন করা হয়েছে, আাগমীকাল (মঙ্গলবার) শুনানি হতে পারে।

রিটে স্বরাষ্ট্রসচিব, কারা কর্তৃপক্ষ, বিএসএমএমইউ কর্তৃপক্ষসহ নয়জনকে বিবাদি করা হয়েছে।

বিশেষায়িত হাসপাতালে খালেদা জিয়ার চিকিৎসাসেবা দিতে নির্দেশনা চেয়ে এর আগে করা রিট আবেদনটি গত ৪ অক্টোবর নিষ্পত্তি করে কিছু নির্দেশনা ও পর্যবেক্ষণসহ আদেশ দেন হাইকোর্ট। ওই আদেশের পর চিকিৎসার জন্য ৬ অক্টোবর তাকে বিএসএমএমইউতে নেয়া হয়। এরপর থেকে তিনি ওখানে চিকিৎসাধীন ছিলেন। প্রায় এক মাস চিকিৎসার পর গত ৮ নভেম্বর বিএসএমএমইউ থেকে তাকে আবারো নাজিমুদ্দিন রোডের পুরনো কারাগারে ফিরিয়ে নেয়া হয়।


আরো সংবাদ