২২ জুলাই ২০১৮
সুপ্রিম কোর্টে কালো পতাকা মিছিল

কুমিল্লায় এক মামলায় খালেদার জামিনের রুল শুনানি ১০ জুলাই

খালেদা জিয়া - সংগৃহীত

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম থানায় করা হত্যা মামলায় কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার জামিন প্রশ্নে জারি করা রুলের শুনানি আগামী ১০ জুলাই ধার্য করেছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে বিস্ফোরক আইনে দায়ের করা অপর একটি মামলায় কার্যক্রমের ওপর স্থগিতাদেশ চেয়ে করা আবেদনে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের সময় আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত আগামী রোববার শুনানির দিন ধার্য করেছে। আজ বুধবার বিচারপতি এ কে এম আসাদুজ্জামান ও বিচারপতি এস এম মজিবুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ দুই মামলায় শুনানির এই দিন ধার্য করেন।
এর আগে গত ২ জুলাই কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম থানায় করা হত্যা মামলায় খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টের দেয়া জামিন স্থগিত করে জামিন বিষয়ে হাইকোর্টের জারি করা রুল চার সপ্তাহের মধ্যে নিষ্পত্তি করার নির্দেশ দেন আপিল বিভাগ। প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে আপিল বিভাগের চার সদস্যের বেঞ্চ রাষ্ট্রপক্ষের করা লিভ টু আপিল নিষ্পত্তি করে ওই আদেশ দেন।
আজ আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে আইনজীবী ছিলেন, এ জে মোহাম্মদ আলী, মাহবুব উদ্দিন খোকন, কায়সার কামাল, আনিছুর রহমান খান, মীর মোহাম্মদ হেলাল উদ্দিন, মাসুদ রানা, সালমা সুলতানা সোমা প্রমুখ। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।
গত ২৮ মে কুমিল্লার নাশকতার দুই মামলায় ৬ মাসের জামিন পান বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। বিচারপতি এ কে এম আসাদুজ্জামান ও বিচারপতি জে বি এম হাসানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ জামিনাদেশ দেন। এরপর রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনের পর গত ২৯ মে আপিল বিভাগের চেম্বার আদালত খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টের দেয়া জামিনাদেশ স্থগিত করেন এবং ৩১ মে আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে শুনানির আদেশ দেন।
৩১ মে শুনানির পর আপিল বিভাগ খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টের দেওয়া জামিন স্থগিত রাখেন এবং রাষ্ট্রপক্ষকে লিভ টু আপিল করতে আদেশ দেন। ২৪ জুন এ বিষয়ে শুনানি শেষে ২ জুলাই আদেশের দিন ধার্য করা হয়।
২ জুলাই কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম থানায় করা হত্যা মামলায় খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টের দেয়া ছয় মাসের জামিন স্থগিত করেন আপিল বিভাগ। একইসঙ্গে এ মামলায় জামিন বিষয়ে হাইকোর্টের জারি করা রুল চার সপ্তাহের মধ্যে নিষ্পত্তি করতে বলা হয়।
২০১৫ সালের শুরুর দিকে ২০ দলীয় জোটের অবরোধ চলাকালে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চৌদ্দগ্রামে দুষ্কৃতিকারীদের ছোড়া পেট্রোল বোমায় আইকন পরিবহনের একটি বাসের কয়েকজন যাত্রীর অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত্যু হয়। আহত হন আরও ২০ জন। এ ঘটনায় একটি হত্যা মামলা করা হয়।

কালো পতাকা মিছিল


খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে সুপ্রিম কোর্ট বার ভবনের সভাপতির কক্ষের সামনে কালো পতাকা মিছিল ও বিক্ষোভ করেছেন আইনজীবীরা। বুধবার দুপুরে বিএনপি সমর্থক আইনজীবীদের সংগঠন জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের ব্যানারে কালো পতাকা নিয়ে মিছিল করেন আইনজীবীরা।
আইনজীবী আবেদ রাজার সভাপতিত্বে কলো পতাকা মিছিলে অংশ নেন অ্যাডভোকেট মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন, তৈমুর আলম খন্দকার, শওকাতুল হক, মো: আলী, আনিছুর রহমান খান, রফিকুল ইসলাম তালুকদার রাজা, আরিফা জেসমিন নাহীন, শরিফ ইউ আহমেদ, জুলফিকার আলী প্রমুখ আইনজীবী বক্তব্য রাখেন। তারা খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে সকল মামলা প্রত্যহার করে মুক্তির দাবি জানান। বক্তারা বলেন, খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে দেশব্যাপী আন্দোল করা হবে। প্রয়োজনে স্বেচ্ছায় কারাবরণের মতো কর্মসূচি দেয়া হবে।


আরো সংবাদ

‘মাহমুদুর রহমানের ওপর আক্রমণ বিচার বিভাগীয় তদন্ত দাবি’ সাকিব তামিমের অর্ধশতকে বড় সংগ্রহের ইঙ্গিত বাংলাদেশের মাহমুদুর রহমানের উপর হামলার সময় দর্শকের ভূমিকায় ছিল পুলিশ মসজিদে নববীর সাবেক ইমাম ও মুসাইদ আত তাইয়ারকে গ্রেফতার মাহমুদুর রহমানের ওপর হামলা লজ্জাজনক: ইউট্যাব জুহি কে সালমান খানের আনুষ্ঠানিক বিয়ের প্রস্তাব, এবং.. মাহমুদুর রহমানকে সন্ত্রাসীদের হাতে দিয়েছেন কোর্টের ওসি : ফখরুল মঞ্জুর হত্যা মামলায় এরশাদসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন অস্ত্রবিরতি লঙ্ঘন করে গাজায় ফের ইসরাইলি হামলা গণমাধ্যমে ছাত্রশিবিরকে জড়িয়ে ভিত্তিহীন খবর প্রকাশের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ রাবিতে ভর্তি পরীক্ষা ২২ ও ২৩ অক্টোবর, আবেদন শুরু ১ সেপ্টেম্বর

সকল