২৩ অক্টোবর ২০১৮

খালেদা জিয়াকে প্যারোলে মুক্তি দিন : খন্দকার মাহবুব

বেগম খালেদা জিয়া - সংগৃহীত

রাজনীতির ঊর্ধ্বে উঠে মানবিক বিবেচনায় সুচিকিৎসা নেয়ার সুবিধার্থে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে প্যারোলে মুক্তি দেয়ার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তার আইনজীবী অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন। বুধবার বিকেলে রাজধনীর মালিবাগের বাসভবনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই আহ্বান জানান।

খালেদা জিয়ার আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, দীর্ঘ ৪ মাস কারাবন্দি থেকে খালেদা জিয়ার রোগ আরও বৃদ্ধি পেয়েছে। এবার তার জীবনের আশঙ্কার সৃষ্টি হয়েছে। তাকে দ্রুত চিকিৎসার জন্য প্যারোলে মুক্তি দিন। যেহেতু আপিল বিভাগে তার জামিন নিয়ে কয়েকটি মামলা পেন্ডিং আছে, আপিল বিভাগে জামিরে বিষয়ে শুনানি রয়েছে ২৪ জুন।

এছাড়া ঈদের কারণে উচ্চাদালত ও নিম্নাদালাত বন্ধ। এই অবস্থায় আইনি প্রক্রিয়ায় তাকে মুক্তি দেয়া সম্ভব নয়। সুতরাং তার চিকিৎসার জন্য একটাই পথ খোলা রয়েছে, তা হচ্ছে প্যারোলে মুক্তি।খালেদা জিয়াকে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসার প্রস্তাব দেয়া হবে, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর এমন মন্তব্যের বিষয়ে তিনি বলেন, যেহেতু ইউনাইটেড হাসপাতালে তিনি (খালেদা জিয়া) চিকিৎসা করাতে ইচ্ছুক, তার ইচ্ছার গুরুত্ব দেয়া উচিত। তার চিকিৎসার দায়িত্ব যেন সরকার না নেয়।
সামরিক শাসনের সময় বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও প্যারোলে মুক্তি পেয়েছিলেন উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, সেনাশাসনের সময় বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও এভাবে মুক্তি পেয়েছিলেন এবং তিনি চিকিৎসার সুযোগ পেয়েছিলেন। এমনকি তিনি প্যারোলে মুক্ত হয়েই বিদেশে গিয়ে চিকিৎসা নিয়েছেন। খালেদা জিয়াকেও সেই সুযোগ দেয়া উচিত।


আরো সংবাদ

ইউক্রেনের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞার নির্দেশ পুতিনের মির্জাপুরে নিরাপদ সড়কের দাবিতে রাস্তায় শিক্ষার্থীরা ব্যাটিং ব্যর্থতায় সফলতা দেখছেন মাশরাফি ‘মেহেদী স্যারের মহানুবতায় স্বামীর স্মৃতি ফিরে পেয়েছি’ ভারতীয় মুসলমান ও উগ্র হিন্দুবাদিদের নিয়ে যা বললেন কবীর সুমন আদালতে যেমন ছিলেন ব্যারিস্টার মইনুল মইনুল হোসেনের জামিন আবেদন নামঞ্জুর, কারাগারে প্রেরণ হত্যার পর খাশোগির পোশাক পরেই বের হয়ে যান ঘাতক! ব্যারিস্টার মইনুলের মুক্তির দাবিতে সুপ্রিম কোর্টে আইনজীবীদের বিক্ষোভ মিয়ানমারের পাঁচ সেনা কর্মকর্তার ওপর অস্ট্রেলিয়ার কঠোর নিষেধাজ্ঞা শাসক শ্রেণী ডাকসু নির্বাচনকে ভয় পায় : অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম

সকল