esans aroma gebze evden eve nakliyat Ezhel Şarkıları indir Entrumpelung wien Installateur Notdienst Wien webtekno bodrum villa kiralama
২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০

বেপরোয়া বাস... রাজধানীতে মামা ভাগ্নেসহ নিহত ৪

-

রাজধানীতে পৃথক সড়ক দুর্ঘনায় মামা-ভাগ্নেসহ চারজন নিহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন যাত্রাবাড়ীতে পথচারী আনোয়ার হোসেন (৪০) ও তার ভাগ্নে সালাউদ্দিন (২০) এবং উত্তরায় মোটরসাইকেল আরোহী লিটন (৩৬) ও জুয়েল (৩৫)। গত বৃহস্পতিবার দিবাগত গভীর রাত ও গতকাল শুক্রবার দুপুরে এ দুর্ঘটনা দু’টি ঘটে। ময়নাতদন্তের জন্য তাদের লাশ ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ মর্গে পাঠিয়েছে সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশ।
নিহত আনোয়ারের স্ত্রী দুই সন্তানের জননী শাহেদা বেগম জানান, তারা সাদ্দাম মার্কেট এলাকায় থাকেন। আনোয়ার মতিঝিল এলাকায় পানির ব্যবসা করতেন। তার ভাগ্নে সালাউদ্দিন। তাদের গ্রামের বাড়ি কুমিল্লা।
আনোয়ার ও সালাউদ্দিনকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যালে নিয়ে আসা পথচারী আবদুল্লাহ জানান, গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে যাত্রাবাড়ীর সাদ্দাম মার্কেটের সামনে রাস্তা পার হওয়ার সময় অনাবিল পরিবহনের একটি বাস তাদের ধাক্কা দেয়। এতে তারা দু’জনই গুরুতর আহত হলে তাদেরকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হয়। পরে রাত ১টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।
যাত্রাবাড়ী থানার ওসি মাজহারুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। তবে কোন বাসের চাপায় তারা নিহত হয়েছেন সেটি নিশ্চিত হওয়া যায়নি। ঘটনাস্থল থেকে একটি সিসি ক্যামেরা উদ্ধার করা হয়েছে। সেটি পরীক্ষা করে বাসটি শনাক্তের চেষ্টা চলছে বলে জানান ওসি।
এ দিকে গতকাল দুপুরে উত্তরা পূর্ব থানার সামনে বাস চাপায় লিটন ও জুয়েল নামে মোটরসাইকেলের দুই আরোহী নিহত হয়েছে। উত্তরা পূর্ব থানার ওসি নূরে আলম সিদ্দিকী বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, দুপুরে থানার সামনের রাস্তায় ঢাকাগামী ওই চলন্ত মোটরসাইকেলটিকে পেছন থেকে ধাক্কা দেয় অভি পরিবহনের একটি বাস (ঢাকা মেট্রো ব-১৪-৪৪৫৮)। এতে মোটরসাইকেলে থাকা দু’জনই গুরুতর আহত হন। পরে তাদেরকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক বেলা ৩টার দিকে মৃত ঘোষণা করেন।
তিনি আরো জানান, এ ঘটনায় ঘাতক বাস ও এর চালককে বনানী এলাকা থেকে আটক করা হয়েছে। পাশাপাশি নিহতদের বিস্তারিত পরিচয় জানার চেষ্টা চলছে।

 


আরো সংবাদ




short haircuts for black women short haircuts for women Ümraniye evden eve nakliyat