২৪ জানুয়ারি ২০২০

ঢাকা প্লাটুনের দ্বিতীয় জয়

-

অধিনায়ক মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের অর্ধশত রানও ঠেকাতে পারেনি সিলেট থান্ডারের টানা তৃতীয় হার। গতকাল তাদের ২৪ রানে হারিয়ে বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) টি-২০তে দ্বিতীয় জয় তুলে নিয়েছে ঢাকা প্লাটুন। ঢাকার চার উইকেটে ১৮২ রানের জবাবে সিলেটের সংগ্রহ সাত উইকেটে ১৫৮। মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে টসে জিতে ঢাকা প্লাটুনকে ব্যাটিংয়ে পাঠান সিলেট থান্ডারের অধিনায়ক মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। তামিম ইকবাল এবং এনামুল হক বিজয়ের উদ্বোধনী জুটিতে ৮১ রানই ঢাকাকে ভালো ভিত্তির উপর দাঁড় করিয়ে দেয়। এরপর থিসারা পেরেরা এবং ওয়াহাব রিয়াজের অপরাজিত ৩২ রানের পঞ্চম উইকেটের জুটি দলের স্কোর ১৮২তে নিয়ে যায়। চার উইকেটে তাদের এই সংগ্রহ। ১৬ বলে এই রান করেন তারা। এর মধ্যে পেরেরা ১১ বলে ২২ এবং ওয়াহাব রিয়াজ সাত বলে ১৭ রান করেন। এর আগে তামিম ইকবাল ২৮ বলে ৩১ এবং এনামুল বিজয় ৪২ বলে ৬২ রান তোলেন। লরি ইভান্স ২১ বলে ২১ এবং জাকির আলী ১২ বলে ২০ রান করেন। সিলেটের এবাদত হোসেন, নাঈম ইসলাম, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত এবং দেলোয়ার হোসেন একটি করে উইকেট নেন যথাক্রমে ৩৯, ৩৫, ১৬ ও ২৮ রানের বিনিময়ে।
জবাবে ১৮৩ রানের জয়ের টার্গেট নিয়ে সুবিধা করতে পারছিল না সিলেটের ব্যাটসম্যানরা। ১৩ রানে তাদের প্রথম উইকেটের পতন। হাসান মাহমুদের বলে জাকির আলীর হাতে বন্দী আন্দ্রে ফেচার (১০ রান, ছয় বলে)। পাকিস্তানি ওয়াহাব রিয়াজ প্যাভিলিয়নে পাঠান রনি তালুকদারকে (১১ রান, ১৪ বলে)। ৪৭ রানে তাদের দুই ওপেনারের বিদায়। ততক্ষণ পর্যন্ত ৩.৫ ওভার ব্যয় হয়েছিল। এরপর ৬১ রানে পঞ্চম ব্যাটসম্যান হিসেবে মোহাম্মদ মিথুন ( ১৩ বলে আট রান) আউট হলে ম্যাচ থেকে একপ্রকার ছিটকে পড়ে সিলেট। দলের ছয় নাম্বার ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতে নামা মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত বাকি সময়ে নাঈম হাসান ও দেলোয়ার হোসেনকে সঙ্গী করে দলের জয়ের কিঞ্চিৎ আসা জাগিয়ে রাখলেও শেষ হাসি আর হাসতে পারেননি তারা। ফলে ১৫৮ রানে ইনিংস শেষ করতে হয় সিলেটকে। এ সময় উইকেট হাতে ছিল তিনটি। ৪৫ বলে ৬০ রানে অপরাজিত ছিলেন মোসাদ্দেক। নাঈম ১৩ বলে ১০ ও দেলোয়ার ১৫ বলে ১৭ রান করেন। ঢাকার মাশরাফি ২৯ রানে এবং হাসান মাহমুদ ২৪ রানে নেন দুই উইকেট। ৩২ রানে ওয়াহাব রিয়াজ নেন এক উইকেট। ম্যাচ সেরা হন এনামুল হক বিজয়।


আরো সংবাদ