১৬ অক্টোবর ২০১৯

গোপালগঞ্জে বাস-ট্রাক সংঘর্ষে নিহত ৪ কটিয়াদীতে যুবদল নেতা ও বড়াইগ্রামে বাস সুপারভাইজার নিহত

-

গোপালগঞ্জে বাস ও ট্রাকের সংঘর্ষে চারজন নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে যুবদল নেতা ও নাটোরের বড়াইগ্রামে বাসের সুপারভাইজারসহ পাঁচজন নিহত হয়েছেন।
বাসস জানায়, গোপালগঞ্জ জেলার সদর উপজেলায় গতকাল ভোরে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে পিরোজপুরগামী যাত্রিবাহী বাস ও ট্রাকের মধ্যে সংঘর্ষে চারজন নিহত হয়েছেন। ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের শোনাশুর নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেনÑ নারায়ন হাওলাদারের ছেলে বিজন হাওলাদার (২৫), নুর ইসলামের ছেলে রাসেল (২৪) এবং যশোরথ মণ্ডলের ছেলে কমল মণ্ডল (২৫), অপরজনের নাম জানা যায়নি। এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো ১২ জন। পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা হতাহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠিয়েছে।
গোপালগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের উপসহকারী পরিচালক মো: জানে আলম জানান, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা পিরোজপুরের নাজিরপুরগামী ইমাদ পরিবহনের একটি নৈশকোচ (ঢাকা মেট্রো-ব-১৫-৩৮৫৫) ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর পর সড়কের ওপর দাঁড়িয়ে থাকা পণ্যবাহী একটি ট্রাককে (ঢাকা মেট্রো-ট-২০-৭০৮৪ পেছন থেকে সজোরে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই বাসের তিনজন যাত্রী নিহত ও অপর ১২ জন আহত হন। আহতদের গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
কটিয়াদী ( কিশোরগঞ্জ) জানান, কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজেলা যুবদলের সভাপতি হাবিবুর রহমান রাসেল সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন। রাসেলের মোটরসাইকেলে বসা আরোহী তার স্ত্রী স্কুলশিক্ষক সৌরভী আক্তার এ সময় গুরুতর আহত হন।
দুর্ঘটনাটি ঘটে গতকাল সকালে কিশোরগঞ্জ-ভৈরব মহাসড়কের কটিয়াদী উপজেলাধীন বানিয়াগ্রাম বাসস্ট্যান্ডের উত্তর পাশে মোবাইল টাওয়ারসংলগ্ন রাস্তায়। রাসেল কটিয়াদী পৌরসভার ভোগপাড়া মহল্লার মো: আবদুল গফুরের ছেলে। তিনি পেশায় কটিয়াদী সাব রেজিস্ট্রারের কার্যালয়ে দলিল লেখক ছিলেন।
জানা যায়, হাবিবুর রহমান সকালে কিশোরগঞ্জ জেলা সদরের বাসা থেকে তার স্ত্রী সৌরভী আক্তারকে নিয়ে মোটরসাইকেলে কটিয়াদী উপজেলাধীন ঘাগৈর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে আসার পথে কাভার্ডভ্যানের সাথে দুর্ঘটনায় তিনি স্ত্রীসহ গুরুতর আহত হন। রাসেলকে চিকিৎসার জন্য কটিয়াদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পথে তিনি মারা যান।
তার স্ত্রী সৌরভী আক্তারকে মুমূর্ষু অবস্থায় চিকিৎসার জন্য বাজিতপুরের জহুরুল ইসলাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
বড়াইগ্রাম (নাটোর) সংবাদদাতা জানান, নাটোরের বড়াইগ্রামে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে সেলিম হোসেন নামে ঢাকাগামী বাসের সুপারভাইজার ঘটনাস্থলেই নিহত হয়েছেন। গতকাল দুপুর আড়াইটার দিকে নাটোর-পাবনা মহাসড়কের বনপাড়া বাইপাস মোড় এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত সেলিম হোসেন কুষ্টিয়া জেলার মিরপুর উপজেলার পোড়াদহ গ্রামের মোফাজ্জল হোসেনের ছেলে ও দূরপাল্লার শ্যামলী পরিবহনের সুপারভাইজার।
বনপাড়া হাইওয়ে থানার সার্জেন্ট সরোয়ার আলম জানান, দুপুরে বনপাড়া বাইপাস মোড়ে কুষ্টিয়া থেকে ঢাকাগামী শ্যামলী পরিবহন কাউন্টার থেকে যাত্রী উঠাচ্ছিল। এ সময় সুপারভাইজার সেলিম হোসেন কাউন্টার থেকে রাস্তা পার হয়ে বাসে ফেরার পথে পেছন থেকে আসা সবজিবোঝাই একটি ট্রাক (ঝিনাইদহ ট ১১-১৭৪৮) তাকে চাপা দিলে তিনি ঘটনাস্থলেই মারা যান। ট্রাকটি জব্দ করা হয়েছে।
সাপাহার (নওগাঁ) সংবাদদাতা জানান, নওগাঁর সাপাহারে সড়ক দুর্ঘটনায় আফতাব উদ্দীন (৭৫) নামের এক বৃদ্ধ হয়েছেন। গতকাল সকালে উপজেলা সদরের অদূরে গোডাউন পাড়া মোড়ের কাছে ঘটনাটি ঘটে। মৃত আফতাব উদ্দীন উপজেলার গোডাইনপাড়া ধাতালপাড়ার মৃত জামাল মণ্ডলের ছেলে।
জানা গেছে, বৃদ্ধ আফতাব উদ্দীন ওই সময় তার বাড়ির পাশের মাঠ থেকে রাস্তা পার হয়ে বাসায় যাচ্ছিলেন। এমন সময় নজিপুর হতে সাপাহারের দিকে দ্রুতগতিতে ছুটে আসা একটি এপাসি ১৫০সিসি মোটরসাইকেলের তার ধাক্কা লাগে। সাথে সাথে মোটরসাইকেল চালক ও বৃদ্ধ পাকা রাস্তায় পড়ে গুরুতর আহত হন। এ সময় বৃদ্ধ জ্ঞান হারিয়ে ফেললে লোকজন তাকেসহ মোটরসাইকেল আরোহীকে স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। এখান থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে দু’জনকেই রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। তারা রাজশাহী পৌঁছার আগেই রাস্তায় বৃদ্ধ আফতাব উদ্দীনের মৃত্যু হয়। মোটরসাইকেল চালক চপলকে (৩০) রাজশাহীতে পাঠানো হয়েছে। মোটরসাইকেল মালিক চপল পতœীতলা উপজেলার পারকাটা গ্রামের ছলিম উদ্দীনের ছেলে।
সোনারগাঁও (নারায়ণগঞ্জ) সংবাদদাতা জানান, নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে ব্যাটারি চালিত গাড়ির ধাক্কায় এক শিশু নিহত হয়েছে। গতকাল বেলা ১১টায় উপজেলার সাদিপুর ইউনিয়নের গঙ্গাপুর শিবপুর এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।
নিহত শিশুর নাম নূর মোহাম্মদ (৫)। সে গঙ্গাপুর শিবপুর এলাকার ইসমাইল মিয়ার ছেলে। নূর মোহাম্মদ রাস্তা পার হচ্ছিল। এ সময় বেপরোয়াভাবে একটি ব্যাটারি চালিত অটো নূর মোহাম্মদকে ধাক্কা দিলে মারাত্মক আহত হয়। পরে পথচারীরা তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় কাঁচপুর হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
সোনারগাঁও থানার এসআই মোক্তার হোসেন জানান, ঘটনাস্থল থেকে শিশুর লাশ উদ্ধার এবং অটোগাড়িটি আটক করা হয়েছে।
পাকুন্দিয়া (কিশোরগঞ্জ) সংবাদদাতা জানান, কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় সিএনজি চাপায় ফাতেমা নামে সাড়ে চার বছরের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। গতকাল সন্ধ্যায় কিশোরগঞ্জ-ঢাকা সড়কের কোদালিয়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। ফাতেমা উপজেলার কোদালিয়া গ্রামের কামাল মিয়ার মেয়ে। পাকুন্দিয়া থেকে কিশোরগঞ্জের উদ্দেশে ছেড়ে আসা একটি সিএনজি কিশোরগঞ্জ-ঢাকা সড়কের কোদালিয়া এলাকায় পৌঁছামাত্র নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে। এ সময় রাস্তার পাশে পথচারী শিশু ফাতেমাকে চাপা দেয়। এতে গুরুতর আঘাতপ্রাপ্ত হয় ফাতেমা। মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।


আরো সংবাদ




astropay bozdurmak istiyorum