১৯ অক্টোবর ২০১৯
বৃষ্টির পানি সংরক্ষণবিষয়ক কনভেনশনে বিশেষজ্ঞরা

ভূগর্ভস্থ পানির স্তর নেমে যাওয়ায় সময় এসেছে বৃষ্টির পানি ব্যবহারের

-

ভূগর্ভস্থ পানির স্তর অনেক নিচে নেমে গেছে। গৃহস্থালি ও অন্যান্য কিছু কাজে বৃষ্টির পানি ব্যবহার করতে হবে। সময় এসেছে বর্ষাকালে বৃষ্টির পানি সংরক্ষণ করে ভূগর্ভস্থ পানির উপর চাপ কমানোর জন্য। বাংলাদেশে প্রতি বছর গড়ে দুই হাজার মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়। এ পানি সঠিক উপায়ে সংগ্রহ করলে বসতবাড়ির পানি চাহিদার খানিকটা হলেও পূরণ করা সম্ভব।
গতকাল বৃহস্পতিবার হোটেল সোনাওগাঁওয়ে আয়োজিত চতুর্থ রেইন ওয়াটার হারভেস্টিং কনভেনশনে এসব তথ্য তুলে ধরা হয়। বক্তারা বলেছেন, বৃষ্টির পানি সংগ্রহ করে দৈনন্দিন ব্যবহার এবং ভূগর্ভস্থ পানির উৎসগুলোতে পুনরায় পানি ফিরিয়ে দিয়ে ক্রমশ নিচে নামতে থাকা পানির স্তরকে আরো নিচে নেমে যাওয়া রোধ করা যেতে পারে। আবার বৃষ্টির পানি সংরক্ষণ করে পানি সঙ্কট অনেকটাই কমিয়ে আনা সম্ভব। এতে জলাবদ্ধতা কমানোর পাশাপাশি সঠিক পানি ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে কার্যকরভাবে জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলা করাও সম্ভব।
বুয়েটের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষক ড. তানভীর আহমেদ এ বিষয়ে নিবন্ধ উপস্থাপন করেন। তিনি বলেন, ‘যথাযথ নকশা এবং ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে বৃষ্টির পানি সংগ্রহ পদ্ধতি গ্রাম ও শহর উভয় এলাকার বসতবাড়ি ও কলকারখানার পানির চাহিদা মেটানোর জন্য যথেষ্ট।’
এইচএসবিসি, রেইন ফোরাম, ইএসটিএক্স, বাংলাদেশ অ্যাপারেল এক্সচেঞ্জ ও আইটিএন-বুয়েট সহযোগিতায় কনভেনশনটির আয়োজন করে ওয়াটার এইড বাংলাদেশ। এতে মূলত বৃষ্টির পানি সংগ্রহ ও সংরক্ষণের নীতিমালা, চ্যালেঞ্জ এবং সম্ভাবনা নিয়ে আলোচনা করা হয়। বক্তারা বলেন, দেশে বর্তমানে পানি ব্যবস্থাপনা নিয়ে যে বিভিন্ন সমস্যা রয়েছে তার একটি বাস্তবসম্মত, সাশ্রয়ী ও টেকসই সমাধান হল রেইন ওয়াটার হারভেস্টিং।
সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ে সচিব মো: শহীদ উল্লা খন্দকার। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং সংস্কার উপদেষ্টা শীতাংশু কুমার সুর চৌধুরী, রাজউকের চেয়ারম্যান ড. সুলতান আহমেদ এবং স্থানীয় সরকার বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো: জহিরুল ইসলাম। সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শ্রীলঙ্কার লঙ্কা রেইনওয়াটার হারভেস্টিং ফোরামের চেয়ারম্যান রাজীন্দ্রী ডি সিলভা আরিয়বান্দু।
গ্রাম ও শহরেরে বসতবাড়ি ও শিল্প করকারখানার পানি সঙ্কট মোকাবেলায় সাশ্রয়ী ও কার্যকর ব্যবস্থাপনা এবং প্রযুক্তিগত জ্ঞান অর্জনের জন্য সরকারি ও বেসরকারি খাত, একাডেমিয়া এবং অন্যান্য সহযোগী অংশীজনরা এ সম্মেলনে অংশ নেন। বক্তারা বাংলাদেশ ন্যাশনাল বিল্ডিং কোডে (বিএনবিসি) বাসাবাড়ির ছাদে প্রযুক্তির ব্যবহারে বৃষ্টির পানির সংরক্ষণ বাধ্যতামূলক করার জন্য রাজউকের প্রতি আহ্বান জানান।

 


আরো সংবাদ

দেশী-বিদেশী পাইলটরা লেজার লাইট আতঙ্কে (৩৯৯৩৬)পাকিস্তান বনাম ভারত যুদ্ধপ্রস্তুতি : কে কতটা এগিয়ে (২৮৪৮৪)ভারতীয় বিমানকে ধাওয়া পাকিস্তানের, আফগানিস্তান গিয়ে রক্ষা (২১৮৯৮)দুই বাঘের ভয়ঙ্কর লড়াই ভাইরাল (ভিডিও) (২০৬১৪)শীর্ষ মাদক সম্রাটের ছেলেকে আটকে রাখতে পারলো না পুলিশ, ব্যাপক দাঙ্গা-হাঙ্গামা (১৪৭১৯)রৌমারী সীমান্তে বিএসএফ’র গুলি ও ককটেল নিক্ষেপ! (১৪৫৭২)বিশাল বিমানবাহী রণতরী নির্মাণ চীনের, উদ্বেগে যুক্তরাষ্ট্রসহ অনেকে (১৪৩৩৮)‘গরু ছেড়ে মহিলাদের দিকে নজর দিন’,: মোদির প্রতি কোহিমা সুন্দরীর পরামর্শে তোলপাড় (১৩৫৮২)বিএসএফ সদস্য নিহত হওয়ার বিষয়ে যা বললো বিজিবি (১১৮৬৩)লেন্দুপ দর্জির উত্থান এবং করুণ পরিণতি (৯৩৩৫)



portugal golden visa