১৬ অক্টোবর ২০১৯

দুর্নীতিবাজ জনবলের প্রয়োজন নেই : কাদের

বিআরটিসিতে মতবিনিময় সভায় ওবায়দুল কাদের : নয়া দিগন্ত -

সরকারি পরিবহন সংস্থা বিআরটিসির দুর্নীতি কঠোর হাতে দমনে নতুন চেয়ারম্যানকে নির্দেশ দিয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘জনবল কম হলে কম দিয়ে চলব কিন্তু দুর্নীতিবাজ জনবলের প্রয়োজন নেই।’
গতকাল সোমবার মতিঝিল বিআরটিসি ডিপোতে দিকনির্দেশনামূলক সভায় তিনি এ কথা বলেন। এ সময় বিআরটিসির সাবেক চেয়ারম্যানকে ইঙ্গিত করে মন্ত্রী বলেন, ‘দুর্নীতিবাজ অভিজ্ঞ হলেও তাকে প্রয়োজন নেই। এই সংস্থায় চেয়ারম্যান আসে আর যায়। আসার সময় শুনি তিনি সৎমানুষ। কিছুদিন পরেই দেখি নানা অভিযোগ। ডিপো ম্যানেজারকে সাথে নিয়ে তিনিও দুর্নীতি অনিয়মে নিমজ্জিত হয়ে পড়েন।
বিআরটিসির দুর্নীতিবাজদের প্রতি কড়া হুঁশিয়ারি দিয়ে তিনি আরো বলেন, ‘বিআরটিসিতে যারা দায়িত্ব অবহেলা এবং দুর্নীতি করে তাদেরকে যদি শাস্তির আওতায় না আনা হয় তাহলে প্রতিষ্ঠানটি জনস্বার্থ রক্ষা করতে পারবে না। যারা অনিয়ম, অপকর্ম এবং দুর্নীতি করবে তারা যতই অভিজ্ঞ কর্মকর্তা হোক তাদের বিআরটিসিতে প্রয়োজন নেই।’
তিনি বলেন, ‘বিআরটিসির ডিপো ম্যানেজাররা যদি ঠিক না হয় তাহলে বারবার গাড়ি আমদানি করেও বিআরটিসিকে লাভজনক করা যাবে না। বিআরটিসিকে লাভজনক করতে হলে ভেতরের দুর্নীতি দূর করতে হবে। দুর্নীতিকে আশ্রয়-প্রশ্রয় দিয়ে একে লাভজনক করা দুঃস্বপ্নের মতো।
এ সময় নতুন চেয়ারম্যান আহসান এলাহি বিআরটিসিতে তার নেয়া বিভিন্ন পদক্ষেপ তুলে ধরে জানান, এখানে গ্রামীণফোনের সহযোগিতায় অটোমেশন পদ্ধতি চালু করা হচ্ছে। এ ক্ষেত্রে প্রতিটি বাসে ভেহিক্যাল ট্র্যাকিং সিস্টেম লাগানো থাকবে। প্রতিটি বাসের ট্রিপ হিসাব অনলাইনে মনিটরিং করা হবে। ডিপো ম্যানেজারদেরকে টার্গেট দেয়া হয়েছে তারা প্রতি মাসের বেতন দেবেন এবং সাথে এক মাসের বকেয়া বেতনও দিতে হবে।
দায়িত্ব নেয়ার পর বিভিন্ন পদক্ষেপের কারণে বিআরটিসির দুর্নীতি ৭০ থেকে ৮০ ভাগ কমে এসেছে বলেও দাবি করেন নতুন চেয়ারম্যান।


আরো সংবাদ




astropay bozdurmak istiyorum