২০ জুলাই ২০১৯

ঝুলে গেল আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার নির্বাচন আগামী বছর ফের ভোট

-

কোনো প্রার্থীই প্রয়োজনীয়সংখ্যক ভোট না পাওয়ায় আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার (আইওএম) উপমহাপরিচালক পদের নির্বাচন ঝুলে গেছে। আগামী বছর আবারো এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। অন্তর্বর্তীকালে বর্তমান উপমহাপরিচালক দায়িত্ব পালন করবেন।
নির্বাচনে বাংলাদেশের প্রার্থী ছিলেন পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক। গত শুক্রবার জেনেভাস্থ আইওএম সদর দফতরে নির্বাচনের ভোটাভুটি পঞ্চম রাউন্ড পর্যন্ত গড়ায়। চূড়ান্ত পর্বে সুদানকে পরাজিত করে জয়ী হয় বাংলাদেশ। নির্বাচনের শেষ রাউন্ডে শহীদুল হক ৭৫ ভোট পান। তার প্রতিদ্বন্দ্বী সুদানের প্রার্থী পান ৭৩ ভোট।
এরপর সংখ্যাগরিষ্ঠ প্রার্থীকে দুই-তৃতীয়াংশ সমর্থন আদায়ের জন্য হ্যাঁ-না ভোটের সুযোগ দেয়া হয়। এ জন্য ১৪৩টি ভোটের মধ্যে প্রয়োজন ৯৬টি হ্যাঁ ভোট। গতকাল অনুষ্ঠিত নির্বাচনে শহীদুল হক পান ৮৬টি হ্যাঁ ভোট পান। এরপর নির্বাচনী কাউন্সিল পুনর্নিবাচনের সিদ্ধান্ত নেয়। সে পর্যন্ত বর্তমান ডিডিজি লাউরা থমসন দায়িত্ব পালন করে যাবেন।
এ নির্বাচন নিয়ে পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক ব্যাপক কূটনৈতিক তৎপরতা ও প্রচারণা চালিয়েছেন। তিনি ঢাকা ও দিল্লিতে নিযুক্ত বিদেশী কূটনীতিকদের ব্রিফ করেছেন। প্রচারণা চালিয়েছেন ইউরোপসহ পশ্চিমা দেশগুলোতেও। মধ্যপ্রাচ্যে বাংলাদেশ দূতাবাসগুলো এ নির্বাচনে পররাষ্ট্র সচিবের পক্ষে প্রচারণা চালিয়েছে।
আইওএমে কাজ করার ক্ষেত্রে পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হকের রয়েছে দীর্ঘ অভিজ্ঞতা। ২০১৩ সালের জানুয়ারিতে পররাষ্ট্র সচিব হিসেবে যোগ দেয়ার আগে শহীদুল হক ১২ বছর লিয়েনে আন্তর্জাতিক এ সংস্থার বিভিন্ন পদে কাজ করেছেন। সর্বশেষ তিনি পরিচালক (বহির্সম্পর্ক) হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।
আইওএমের স্বাধীন বিশেষজ্ঞ হিসেবে শহীদুল হক দুই মেয়াদে ২০১৪ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করছেন। এ ছাড়া তিনি আইওএম পরামর্শক বোর্ডের একজন সদস্য।
শহীদুল হক গত ডিসেম্বরে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব হিসেবে পদোন্নতি পান। একই সাথে তাতে এক বছরের জন্য চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দেয়া হয়। চলতি ডিসেম্বরে চুক্তির মেয়াদ শেষে তিনি আবারো পুরনো কর্মস্থল আইওএমে ফিরতে চাইছিলেন।


আরো সংবাদ




gebze evden eve nakliyat instagram takipçi hilesi