০৬ ডিসেম্বর ২০১৯

বিদ্যালয়ের ইট বহন করতে গিয়ে গুরুতর আহত ৫ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী

বাগেরহাটের শরণখোলায় পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্র মারুফের (১৩) বিদ্যালয়ের ইট বহনের সময় পড়ে গিয়ে হাত ভেঙ্গে গেছে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

শরণখোলা উপজেলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ৫ম শ্রেণীর ছাত্র মারুফ জানায়, সোমবার দুপুরে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নাসির উদ্দিন মুক্তা অন্য ছাত্রদের সাথে তাকেও বিদ্যালয়ে রাখা ইট দোতলার ছাদে উঠাতে বলেন। তখন সে ছাদে ইট বহন করে। এক পর্যায়ে মারুফ পা পিছলে ছাদ থেকে নীচে পড়ে তার ডান হাত ভেঙ্গে এবং হাটু জখম হয়। সোমবার রাতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

হাসপাতালে মারুফের মাতা মানসুরা বেগম বলেন, তার পুত্রের আর কয়েকদিন পরেই প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা দেয়ার কথা। তিনি তার পুত্রের সুচিকিৎসা ও ঘটনার বিচার দাবী করেন।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নাসির উদ্দিন মুক্তা জানান, তিনি ঐ ছাত্রকে ইট বহনের কথা বলেননি। ছাত্র মারুফ নিজেই ইট তুলতে গিয়ে পা ফসকে পড়ে যায় এবং তিনি নিজে তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন বলে জানান।

শরণখোলা উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আশরাফুল ইসলাম জানান, তিনি ঘটনা শুনেছেন তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শরণখোলা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সরদার মোস্তফা শাহীন বলেন, ছাত্র আহত হওয়ার ঘটনা শুনে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ ব্যপারে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।


আরো সংবাদ




Paykwik Paykasa
Paykwik