০৬ ডিসেম্বর ২০১৯

ঝিনাইদহে আরও এক বাংলাদেশীকে গুলি করে হত্যা করল বিএসএফ

-

৪ দিনের ব্যবধানে ঝিনাইদহের মহেশপুর সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফে গুলিতে নিহত হয়েছেন আরো এক বাংলাদেশী। নিহত সুমন (২৫) মহেশপুর উপজেলার শ্যামকুড় গ্রামের আব্দুল মান্নানের ছেলে।

শুক্রবার ভোরে ভারতের নদীয়া জেলার হাসখালী থানার শিলগেইট নামক স্থানে সুমন বিএসএফ’র গুলিতে নিহত হয়। শুক্রবার দুপুরে ঝিনাইদহের মহেশপুর ৫৮ বিজিবির অতিরিক্ত পুরিচালক কামরুল হাসান গণমাধ্যমে পাঠানো এক ই-মেইল বার্তায় এ খবর নিশ্চিত করেন। ই-মেইল বার্তায় নিহত সুমনকে ‘গরু চোর’ হিসেবে আখ্যা দিয়ে উল্লেখ করা হয়, মহেশপুর ব্যাটালিয়ন এর অধীনস্ত লড়াইঘাট বিওপির বিপরীতে প্রতিপক্ষ ৮ ব্যাটালিয়ন বিএসএফ এর পাখিউড়া ক্যাম্পের দায়িত্বপূর্ণ এলাকায় মেইন পিলার থেকে আনুমানিক ৩০০ গজ ভারতের অভ্যন্তরে শিলগেইট নামক স্থানে বিএসএফ ০১ রাউন্ড ফায়ার করে। এতে সুমন নিহত হয়।

বিজিপি আরো জানায়, নিহত বাংলাদেশী নাগরিকের লাশ পাখিউড়া বিএসএফ ক্যাম্প এবং হাসখালী থানা পুলিশের হেফাজতে রয়েছে বলে বিজিবি জানায়।

উল্লেখ্য গত ৩ নভেম্বর মহেশপুর সীমান্তের পলিয়ানপুরের বিপরীতে বিএসএফ’র গুলিতে আব্দুর রহিম (৫০) নামে এক রাখাল নিহত হন। তিনি মহেশপুর উপজেলার সেজিয়া ইউনিয়নের বাউলিয়া গ্রামের আবুল কাসেমের ছেলে। ঘটনার দিন ভারতের হাবাশপুর এলাকার ৬০ নং মেইন পিলারের পাশে তাকে গুলি করে হত্যা করে বিএসএফ। ঘটনার চার দিনের মাথায় আবারো বিএসএফ সুমন নামে এক বাংলাদেশীকে হত্যা করলো।


আরো সংবাদ

সকল




Paykwik Paykasa
Paykwik