১৬ অক্টোবর ২০১৯

ট্রাফিক ইন্সপেক্টরকে পেটালেন ছাত্রলীগ নেতা

মনিরুজ্জামান
আহত মনিরুজ্জামান - ছবি : নয়া দিগন্ত

নড়াইলে ট্রাফিক পুলিশের ইন্সপেক্টর মনিরুজ্জামানকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে রক্তাক্ত করেছে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান তোফায়েল মাহমুদ তুফান। রোববার সন্ধ্যায় শহরের পুরাতন বাস টার্মিনাল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। মাথাসহ দুই হাতে গুরুতর আহত পুলিশ কর্মকর্তা মনিরুজ্জামানকে নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় রাত ১০টার দিকে সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান তোফায়েল মাহমুদ তুফান আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, নিয়মিত কার্যক্রমের অংশ হিসেবে নড়াইল শহরের পুরাতন বাস টার্মিনাল এলাকায় পুলিশের পক্ষ থেকে যানবাহনের কাগজপত্র দেখা হচ্ছিল। এ সময় কাগজপত্রবিহীন মোটরসাইকেলসহ এক যুবককে আটক করে পুলিশ। বিষয়টি ওই যুবক মোবাইল ফোনে সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ছাত্রলীগ নেতা তোফায়েল মাহমুদ তুফানকে জানালে তুফানসহ তার লোকজন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পুলিশের সাথে ঔদ্ধত্বপূর্ণ আচরণ করেন। এক পর্যায়ে তোফায়েল মাহমুদ তুফানসহ তার লোকজন চেরাই কাঠ দিয়ে ট্রাফিক পুলিশের ইন্সপেক্টর মনিরুজ্জামানকে বেধড়ক মারধর করেন। এ ঘটনায় পুলিশ কর্মকর্তা মনিরুজ্জামানের মাথা ও দুই হাত গুরুতর আহত হয়েছে।
এছাড়া ট্রাফিক সার্জেন্ট শাহ জালাল, এটিএসআই সরোয়ার আলম এবং একজন কনস্টেবল সামান্য আহত হয়েছেন। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম (বার) বলেন, ট্রাফিক পুলিশের ইন্সপেক্টর মনিরুজ্জামানকে মারধরের ঘটনায় সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান তোফায়েল মাহমুদ তুফানকে আটক করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।


আরো সংবাদ




astropay bozdurmak istiyorum