১৬ জুলাই ২০১৯

সৈয়দপুরে বাল্য বিয়ে থামালেন এসিল্যান্ড, বর ও কনের বাবাকে ১৫ দিনের কারাদণ্ড

-

নীলফামারীর সৈয়দপুরে ১৩ বছরের মেয়ের সাথে ২০ বছরের ছেলের বিয়ে বন্ধ করলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি)। বৃহস্পতিবার সন্ধায় শহরের ক্যান্টবাজার সংলগ্ন সৈয়দপুর সেনানিবাসের গ্যারিসন অডিটরিয়ামে এ ঘটনায় বর ও কনের পিতাকে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেছেন এসিল্যান্ড ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট পরিমল কুমার সরকার।

জানা যায়, সৈয়দপুর পৌরসভার ১৩ নং ওয়ার্ড সাহেবপাড়ার ওয়াজেদ আলীর ছেলে ইমরান (২০ বছর ৮ মাস) এ সাথে ৮ নং ওয়ার্ড হাতিখানা উর্দুভাষী ক্যাম্পের ইরফান এর মেয়ে স্থানীয় প্রজাপতি স্কুলের ছাত্রী সাবিয়া (১৩)-এর বিয়ে প্রায় ৬ মাস আগেই সম্পন্ন হয়। ঘটনার দিন সেনানিবাসের গ্যারিসন অডিটরিয়ামে এই দম্পতির বিদায় অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এ খবর পেয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনার পরিমল কুমার সরকার উপজেলা মহিলা বিষয়ক অফিসার নুরুন্নাহার শাহজাদী ও নির্বাচন অফিসার রবিউল আলম কে সঙ্গে নিয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ছেলে ও মেয়ের বয়স প্রমাণের জন্য কাগজপত্র দেখতে চান। এতে উভয়পক্ষই তেমন কোন প্রমাণ উপস্থিত করতে পারেননি। এ অবস্থায় বর কনে ও তাদের উভয়ের পিতাদ্বয়কে এসিল্যান্ড এর কার্যালয়ে নিয়ে আসা হয়। পরে সেখানে ভ্রাম্যমান আদালতে মেয়ে ও ছেলের পিতাকে বাল্য বিয়ে দেয়ার অপরাধে ১৫ দিনের করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।

এ ঘটনায় মেয়ে ও ছেলেকে ছেড়ে দেয়া হয়। ঘটনাটি শহরজুড়ে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে। 


আরো সংবাদ




gebze evden eve nakliyat instagram takipçi hilesi