১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র-বহিরাগত সংঘর্ষ

-

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের (খুবি) খান জাহান হলের মাঠে খুলনা সিনিয়র ডিভিশন ফুটবল লিগের খেলা চলাকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের সঙ্গে বহিরাগতদের সংঘর্ষে দুই পক্ষের ১৩ জন আহত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার বিকেলের এ সংঘর্ষের ঘটনায় দুই পক্ষে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও মোটরসাইকেলে অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর বিক্ষুব্ধ ছাত্ররা বহিরাগত তিনজনকে ভার্সিটির একটি হলে নিয়ে আটকে রাখে। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। কথা কাটাকাটিকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের সূত্রপাত হয় বলে জানা গেছে। মারামারি শুরু হওয়ার পর খেলা বন্ধ করে দেয়া হয়।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানায়, বিকেল তিনটায় খুলনা জেলা ক্রীড়া সংস্থার আয়োজনে বিশ্ববিদ্যালয়ের খাজা হলের সামনের মাঠে সিনিয়র ডিভিশন ফুটবল লিগের খেলা শুরু হয়। উদয়ন ক্লাব ও আলীর ক্লাবের মধ্যে খেলা ছিল। এসময় বহিরাগতরা বিশ্ববিদ্যালয়ে সমাজ বিজ্ঞান অনুষদের এক ছাত্রকে মাঠে স্লেজিং করলে খেলোয়াড়েরা মাঠ থেকে ছাত্রদের ধাওয়া দিয়ে খাজা হলের গেটে নিয়ে যায়। ছাত্ররা এতে বাধা দিতে গেলে উভয়পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে।

সূত্র জানায়, উত্তেজিত ছাত্ররা বহিরাগতদের কয়েকটি মোটরসাইকেলে অগ্নিসংযোগ করে এবং তিনজনকে হলের রুমে আটকে রাখে।

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র বিষয়ক পরিচালক ড. শরীফ হাসান লিমন সন্ধ্যা সাড়ে সাত টায় জানান, ঘটনার খবর পেয়ে খাজা হলের ছাত্রদের নিবৃত্ত করে তাদের সঙ্গে আলোচনা করা হচ্ছে। বহিরাগত তিনজনকে প্রশাসনের হাতে তুলে দেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

উল্লেখ্য, সিনিয়র ডিভিশন ফুটবল লীগ পরিচালনার জন্য খুলনা জেলা ক্রীড়া সংস্থা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে ১২ অক্টোবর থেকে ২০ অক্টোবর পর্যন্ত খাজা হলের মাঠ ব্যবহারের অনুমতি নিয়েছিলো। সংর্ঘের পর ফুটবল লিগ বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।


আরো সংবাদ




Hacklink

ofis taşıma Instagram Web Viewer

canli radyo dinle

Yabanci Dil Seslendirme