১৪ নভেম্বর ২০১৮

ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীকে ছুরিকাঘাত

ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীকে ছুরিকাঘাত - সংগৃহীত

ইভটিজিং এর প্রতিবাদ করায় যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসী বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী মাসুম বিল্লাকে (২৩) ছুরিকাঘাত করেছে দুবৃত্তরা। বৃহস্পতিবার সন্ধায় যশোর শহরের পৌর পার্কে দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে মাসুম জখম হয়। গুরুতর অবস্থায় তাকে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহত মাসুম মণিরামপুর উপজেলার নেহালপুরের বালিদা গ্রামের শহিদুজ্জামান মাস্টারের ছেলে এবং যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসী বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী। তিনি শহরতলী ধর্মতলার একটি ছাত্রাবাসে থাকেন।

আহতের বন্ধু শামীম জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ছয়টার দিকে তারা ছয় বন্ধু ও দু’বান্ধবী শহরের পৌর পার্কে আড্ডা দিচ্ছিলেন। এ সময় একদল বখাটে যুবক তাদের বান্ধবীদের নিয়ে নানা রকম বাজে কথা বলতে থাকে। মাসুম বিল্লা ইভটিজিং এর প্রতিবাদ করলে দুর্বৃত্তরা তাকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। পরে বন্ধুরা তাকে হাসপাতালে ভর্তি করে।

জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডাক্তার নাজমুল হাসান তুহিন জানিয়েছেন, মাসুম বিল্লার নিতম্বে ও পিঠে ছুরিকাঘাত করা হয়েছে। তার অবস্থা আশঙ্কামুক্ত।

উল্লেখ্য, পাঁচ সেপ্টেম্বর বিকালে পৌর পার্ক অদূরে কামরুল ইসলাম নামে এক চটপটি বিক্রেতাকে ছুরিকাঘাতে জখম করে সন্ত্রাসীরা। সম্প্রতি পৌর পার্ক এলাকায় বিভিন্ন হামলা ও ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটছে। পার্ক এলাকায় পুলিশের টহল বাড়াতে অনুরোধ জানিয়েছে স্থানীয়রা।


আরো সংবাদ