২১ নভেম্বর ২০১৮

আন্দোলনের মাঝেই বাসের চাকায় প্রাণ গেল আরেক শিশুর

দুর্ঘটনা
বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে প্রাণ গেল আরেক শিশুর - নয়া দিগন্ত

বাসের চাপায় ঢাকার দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর ঘটনার প্রতিবাদে এবং নিরাপদ সড়কের দাবিতে উত্তপ্ত হয়ে আছে রাজধানী শহর। এ আন্দোলন ছড়িয়ে পড়ছে দেশজুড়ে। আর এর মাঝেই প্রাণ গেল আরেক শিশুর।

সাতক্ষীরার মাধবকাটিতে যাত্রীবাহী বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে ৫ বছরের এক কন্যাশিশু নিহত হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে সাতক্ষীরা-যশোর সড়কের মাধবকাটি নামক স্থানে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে।

এ ঘটনায় পুলিশ ঘাতক বাসটিকে কলারোয়া উপজেলা সদর থেকে জব্দ করতে পারলেও বাসের চালককে আটক করতে সক্ষম হননি।

নিহত শিশুটির নাম বুশরা খাতুন। সে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার বলাডাঙ্গা গ্রামের লিয়াকত সরদারের মেয়ে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বেলা ১২টার দিকে শিশু বুশরা বাড়ি থেকে বের হয়ে তার এক আত্মীয়ের বাইসাইকেলের পিছনে বসে ঝাউডাঙ্গা বাজারের দিকে যাচ্ছিলো। পথিমধ্যে সাতক্ষীরা-যশোর সড়কের মাধবকাটি নামক স্থানে একটি যাত্রীবাহী বাস তাদেরকে পিছন দিক থেকে সজোরে ধাক্কা দেয়। এতে শিশু বুশরা ছিটকে ওই যাত্রীবাহী বাসের চাকায় মাথা পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যায়।

সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান জানান, নিহত শিশুটির লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। পুলিশ ঘাতক বাসটিকে ধাওয়া করলে বাসের চালক ও হেলপার বাসটিকে কলারোয়া উপজেলা সদরে ফেলে রেখে পালিয়ে যাওয়ায় তাদের আটক করা সম্ভব হয়নি। তবে, ঘাতক বাসটিকে জব্দ করে পুলিশ হেফাজতে রাখা হয়েছে।

আরো পড়ুন : 

আরো এক স্কুলছাত্র পিষ্ট হলো ট্রাকের চাকায়
নয়া দিগন্ত অনলাইন
ঢাকার দোহারে ট্রাকচাপায় মো. রিশাদ (১৩) নামে এক স্কুল শিক্ষার্থী নিহত হয়েছে। দোহারের চরকুশাই এলাকায় বৃহস্পতিবার সকালে এ ঘটনা ঘটে।

রিশাদ নবাবগঞ্জ উপজেলার বান্দুরা হলিক্রস স্কুল অ্যান্ড কলেজের সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থী বলে জানা গেছে। তিনি দোহার উপজেলার জামালচর এলাকার সামছুল হকের ছেলে বলে জানা গেছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার সকালে আম বোঝাই একটি ট্রাক (ঢাকা মেট্রো-ন-১৩-০২৩০১) মানিকগঞ্জ থেকে দোহারে আসার পথে চরকুশাই নামক স্থানে বিপরীত দিক থেকে মোটরসাইকেলে আসা রিশাদকে চাপা দেয়। এসময় ট্রাকটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে যায়। স্থানীয়রা গুরুত্বর আহত অবস্থায় রিশাদকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

এদিকে ঘটনার পরপরই পালিয়ে যায় ট্রাকের চালক। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

দোহার থানা মাহমুদপুর পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক নুরুল হুদা বলেন, আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন।

বাসের চাপায় প্রাণ গেল ২ শিক্ষার্থীর

রাজধানী ঢাকার বিমানবন্দর সড়কে বাসের চাপায় শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট স্কুল এন্ড কলেজের দুই শিক্ষার্থী নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আরো ১০ জন আহত হয়েছেন।

নিহতদের মধ্যে একজন ছাত্রী বলে জানা গেছে। তবে তাৎক্ষণিক তাদের নাম জানা যায়নি।

রোববার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে হোটেল র‌্যাডিসনের সামনে এই দুর্ঘটনা ঘটে। এরপর ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট এলাকার ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা বেরিয়ে এসে রাস্তায় বিক্ষোভ শুরু করে। বিক্ষোভের কারণে রাস্তায় ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হয়।

হোটেল র‌্যাডিসনের কাছেই শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট স্কুল এন্ড কলেজ।

এ সময় সেখানে বেশ কয়েকটি গাড়ি ভাঙচুরের শিকার হয় বলে ক্যান্টনমেন্ট থানার এএসআই রেজাউল ইসলাম জানান।

স্থানীয়রা জানান, ঘটনার সময় শিক্ষার্থীরা র‌্যাডিসনের গ্যাপ দিয়ে রাস্তা পার হচ্ছিলেন, অনেকে বাসের জন্য ফুটপাতে দাঁড়িয়ে ছিলেন। এ সময় জাবালে নূর পরিবহনের একটি বাস শিক্ষার্থীদের চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই দুইজনের মৃত্যু হয়।

সহপাঠিদের মৃত্যুর খবর পেয়ে শিক্ষার্থীরা বেরিয়ে এসে সড়কে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ শুরু করে। বিক্ষুব্ধ ছাত্ররা কয়েকটি যানবাহনে ভাঙচুরও চালায়।

জাবালে নূর (ঢাকা মেট্রো ব-১১৯২৯৭) পরিবহনের বাসটি জব্দ করা হয়েছে বলে জানান পুলিশ। তবে চালক পালিয়ে গেছেন। বাসের সুপারভাইজারকে শিক্ষার্থীরা আটক করেছে।

পুলিশ জানায়, বিক্ষোভের কারণে যানবাহনকে বিকল্প সড়ক ব্যবহার করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। ঘটনাস্থলে থাকা পুলিশ সদস্যরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছেন।


আরো সংবাদ