২০ মে ২০১৯

মানব জীবনে তাওহিদের প্রভাব

-

তাওহিদ শব্দের অর্থ একত্ববাদ। মহান আল্লাহ তায়ালাকে এক ও অদ্বিতীয় হিসেবে বিশ্বাস করার নামই হলো তাওহিদ। তাওহিদের কেন্দ্রীয় বিষয় হলো আল্লাহ এক ও অদ্বিতীয়। তিনি অনাদি ও অনন্ত। তাঁর সমকক্ষ বা সমতুল্য কিছুই নেই। তিনিই একমাত্র মাবুদ। সব প্রশংসা ও ইবাদত একমাত্র তারই প্রাপ্য। তিনি সব গুণের আধার। তিনি চিরস্থায়ী, চিরঞ্জীব, শাশ্বতও সত্য। তিনি সৃষ্টিকর্তা, পালনকর্তা, রক্ষাকর্তা, পুরস্কারদাতা, শাস্তিদাতা। তাঁর গুণাবলির সাথে কোনো কিছুরই তুলনা করা যায় না। তাঁর তুলনা একমাত্র তিনি নিজেই। ইমানের সর্ব প্রথম ও সর্ব প্রধান বিষয় হলো তাওহিদ। ইসলামের সব শিক্ষা ও আদর্শই তাওহিদের ওপর প্রতিষ্ঠিত। তাওহিদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠার জন্যই সব নবী আজীবন সংগ্রাম করেছেন। এমন কোনো নবী ছিলেন না, যিনি তাওহিদের কথা বলেননি। বরং সব নবী রাসূলই তাওহিদের শিক্ষা প্রচার করেছেন। তাওহিদের পরিপন্থী কোনো বিধান ইসলামে নেই। তাওহিদের জন্যই হজরত ইবরাহিম আ: অগ্নিকুণ্ডে নিক্ষিপ্ত হয়েছেন, ইউনূস আ: মাছের পেটে গেছেন, মূসা আ: ফেরাউনের সাথে লড়েছেন, আমাদের প্রিয় নবী সা: মক্কা থেকে মদিনায় হিজরত করেছেন। এককথায় মানব জীবনে তাওহিদের প্রভাব অত্যন্ত ব্যাপক।
তাওহিদে বিশ্বাস মানুষকে দুনিয়া ও আখিরাতে সফলতা এনে দেয়। কেননা, তাওহিদ মানুষকে আল্লাহর পরিচয় দান করে। এর মাধ্যমে মানুষ আল্লাহ তায়ালার ক্ষমতা ও গুণাবলি জানতে পারে। দুনিয়ার কাজকর্মেরর জন্য মানুষকে পরকালে আল্লাহর কাছে জবাবদিহি করতে হবেÑ এ শিক্ষা তাওহিদের মাধ্যমে লাভ করা যায়। এ শিক্ষার দ্বারা মানুষ অন্যায় কাজ থেকে বিরত থাকে, এর ফলে সে আখিরাতে সফলতা লাভ করবে।
তাওহিদে বিশ্বাস মানুষকে আত্মসচেতন ও আত্মমর্যাদাবান করে। মানুষ আল্লাহ ছাড়া অন্য কারো সামনে মাথা নত করে না। পক্ষান্তরে, তাওহিদে বিশ্বাস না করলে মানুষ বিপথগামী হয়ে যায়। সে গাছপালা, পশু-পাখি, চন্দ্র-সূর্য ইত্যাদির কাছে মাথা নত করে। নানা রকমের মূর্তিপূজা করতে থাকে। ফলে মানুষের আত্মমর্যাদা বিনষ্ট হয়। তাওহিদে বিশ্বাস মানুষের মধ্যে আত্মসম্মানবোধ ও আত্মসচেতনতা জাগিয়ে তোলে। তাওহিদ বা আল্লাহর একত্ববাদে বিশ্বাস মানুষকে এক জাতিত্ব বোধ এনে দেয়। ফলে মানুষ একে অপরের ভ্রাতৃত্ব ও সহমর্মিতায় উদ্বুদ্ধ হয়। পক্ষান্তরে শিরক বা বহু উপ্যাসের বিশ্বাস মানুষকে বহুদল ও গোষ্ঠীতে বিভক্ত করে দেয়। এতে মানব জাতির বিভাজন পরিণতিতে পারস্পরিক দ্বন্দ্ব-সঙ্ঘাত ও হানাহানির কারণ হয়। এতে শান্তি ও মানবতা বিপর্যস্ত হয়। তাওহিদে বিশ্বাস মানুষকে এক আল্লাহর প্রতি নির্ভরশীল করে। ফলে যাবতীয় বিপদ- আপদে, দুঃখ-কষ্টে মানুষ হতাশ বা নিরাশ হয় না। বরং মহান আল্লাহর ওপর ভরসা রেখে পূূর্ণোদ্দমে কাজ করতে থাকে এবং সাফল্য লাভ করে। এভাবে তাওহিদে বিশ্বাস মানুষকে দুনিয়ার জীবনে সুখ শান্তি ও সফলতার সবকটি দরজা খুলে দেয়।
তাওহিদে বিশ্বাস মানুষকে ইবাদত ও সৎকর্মে উৎসাহিত করে। মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের সন্তুষ্টি লাভের জন্য মানুষ সৎকর্মে অগ্রসর হয়। অসৎ ও অশ্লীল কাজ থেকে বিরত থাকে। ফলে মানব সমাজে শান্তি-শৃঙ্খলা প্রতিষ্ঠিত হয়। তাওহিদে বিশ্বাস পরকালীন জীবনে মানুষকে সফলতা দান করে। তাওহিদে বিশ্বাস ছাড়া কেউই জান্নাতে প্রবেশ করতে পারবে না। বস্তুত মানব জীবনের সব ক্ষেত্রেই তাওহিদে বিশ্বাস মুক্তি ও সফলতার দ্বার উন্মুক্ত করে দেয়। সুতরাং আসুন, আমরা দৃঢ়ভাবে তাওহিদে বিশ্বাস করি।
লেখক : প্রাবন্ধিক


আরো সংবাদ

ব্যতিক্রমী সফরে তিব্বতে মার্কিন রাষ্ট্রদূত হুয়াওয়ে স্মার্টফোন অ্যান্ডয়েড ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা কোপায় নেইমারকে অব্যাহতি দেয়ার আহ্বান গোপালগঞ্জে মসজিদ ফান্ডের হিসাব চাওয়ায় কুপিয়ে জখম আড়াইহাজারে দেয়াল চাপায় নির্মাণশ্রমিকের মৃত্যু জাবিতে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের আদলে হয়রানিমূলক শৃঙ্খলাবিধি পাকিস্তানের বিশ্বকাপ দলে ফিরলেন আমির-ওয়াহাব-আসিফ দলিত সম্প্রদায়ের প্রথম গ্র্যাজুয়েট সনু রানী সৈয়দপুরে ডায়রিয়া ও জ্বরে আক্রান্ত ১৫২ জন হাসপাতালে ভর্তি ‘পঞ্চগড়’ এক্সপ্রেস ট্রেনের জয়পুরহাট স্টেশনে যাত্রা বিরতির দাবি রংপুর মহানগরীতে বিআরটিসির দ্বিতল সিটি সার্ভিস বাস চালু

সকল




agario agario - agario