১৬ নভেম্বর ২০১৮

ইয়েমেন আলোচনা পুনরায় শুরুর উদ্যোগ জাতিসঙ্ঘের

ইয়েমেন আলোচনা পুনরায় শুরুর উদ্যোগ জাতিসঙ্ঘের - সংগৃহীত

ইয়েমেন বিষয়ক জাতিসঙ্ঘ দূত মঙ্গলবার বলেছেন, তিনি দেশটির সৌদি আরব সমর্থিত সরকার ও হুতি বিদ্রোহীদের মধ্যে আবারো আলোচনা শুরুর উদ্যোগ নেবেন। দেশটিতে যুদ্ধের অবসানে সমঝোতার লক্ষ্যে প্রথম দফার আলোচনার উদ্যোগ ব্যর্থ হওয়ার পর তিনি এ কথা বললেন। 

আনুষ্ঠানিক শান্তি আলোচনার জন্য জেনেভায় গত সপ্তাহের প্রাক বৈঠকে হুতি বিদ্রোহীদের বিভিন্ন দাবি পূরণ না হওয়ায় তারা বৈঠকে যোগ দেয়নি।

জাতিসঙ্ঘ দূত মার্টিন গ্রিফিথস নিরাপত্তা পরিষদকে বলেন, ইয়েমেন যুদ্ধের অবসানে ধারাবাহিক আলোচনা আয়োজনে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন পক্ষের দৃঢ় অঙ্গীকার পেতে বুধবার তিনি মাস্কাট সফর করবেন এবং পরে সেখান থেকে সানা ও রিয়াদে যাবেন।

এদিকে আহত বিদ্রোহীদের ওমান সরিয়ে নেয়া এবং বিদ্রোহী প্রতিনিধি দলকে নিরাপদে সানায় ফিরে আসার দাবিতে বিদ্রোহীরা জেনেভায় প্রাক শান্তি আলোচনায় যোগ দেয়নি।

গ্রিফিথস নিরাপত্তা পরিষদের এক বৈঠকে বলেন, ইয়েমেন শান্তি আলোচনা প্রক্রিয়ার ‘উত্থান ও পতন’ থাকবে। এক্ষেত্রে তিনি সমঝোতা উদ্যোগের প্রাথমিক বাধাকে সাময়িক হিসেবে উল্লেখ করা হয়।

‘সংশ্লিষ্ট সকল পক্ষকে আলোচনার টেবিলে ফিরিয়ে আনতে’ তার নতুন কূটনৈতিক প্রচেষ্টাকে সমর্থন জানাতে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন গ্রিফিথস।

২০১৬ সাল থেকে সেখানে যুদ্ধরত বিভিন্ন পক্ষের মধ্যে আলোচনা আয়োজনের লক্ষে এটি ছিল প্রথম পদক্ষেপ।

বৈঠকের পর মার্কিন দূত নিকি হেলি সাংবাদিকদের বলেন, জেনেভায় এ আলোচনায় হুতি বিদ্রোহী গ্রুপ অংশ না নেয়ায় নিরাপত্তা পরিষদ দুঃখ প্রকাশ করেছে এবং পরবর্তী কোন আলোচনায় সরল বিশ্বাসে অংশ নিতে সংশ্লিষ্ট সকল পক্ষের প্রতি আহবান জানানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, দারিদ্রপীড়িত ইয়েমেনে ২০১৫ সাল থেকে এ যুদ্ধে ১০ হাজার লোক নিহত হয়েছে।


আরো সংবাদ