২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯

রোনালদোর ডিনারের আমন্ত্রণ গ্রহণ করলেন মেসি

উয়েফা বর্ষসেরার অনুষ্ঠানে লিওনেল মেসির সঙ্গে ডিনার করার ইচ্ছার কথা শুনিয়েছিলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। দীর্ঘদিন একসঙ্গে পুরস্কার বিতরণীর মঞ্চ ভাগাভাগি করলেও কখনও ডিনারে না যাওয়ার ‘আক্ষেপ’ ছিল পর্তুগিজ খেলোয়াড়ের কণ্ঠে। রোনালদোর সেই আক্রমণে এবার সাড়া দিলেন মেসি।

তাদের মাঠের লড়াই ফুটবলকে করেছে আরও আকর্ষণীয়। ব্যক্তিগত প্রতিদ্বন্দ্বিতা আগের সবকিছুকে ছাড়িয়ে গেছে। ২০০৯ সালে রোনালদো রিয়াল মাদ্রিদে যোগ দেয়ার পর গত বছরের আগপর্যন্ত একই লিগে খেলায় তাদের দ্বৈরথ ছিল জমজমাট। পর্তুগিজ অধিনায়ক জুভেন্টাসে চলে যাওয়ায় সেই উত্তেজনায় কিছুটা ভাটা পড়লেও ব্যক্তিগত পুরস্কারের লড়াইটা এখনও তার মেসির সঙ্গে।

ব্যালন ডি’অর কিংবা ফিফা বর্ষসেরা মেসি ও রোনালদো মঞ্চ ভাগাভাগি করেছেন একসঙ্গে। কিন্তু কখনও একসঙ্গে ডিনারে যাওয়া হয়নি তাদের। উয়েফার অনুষ্ঠানে তাই রোনালদো বলেছিলেন, ‘অবশ্যই আমাদের সম্পর্ক ভালো। তবে আফসোসের বিষয় হলো, এখনও আমাদের একসঙ্গে ডিনার করা হয়নি। তবে ভবিষ্যতে আশা করি সেটা হবে।’

রোনালদোর আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছেন মেসি। সম্পর্কটা বন্ধুত্বপূর্ণ না ‍হলেও চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর সঙ্গে ডিনারে যেতে আপত্তি নেই বার্সেলোনা অধিনায়কের। ডিনার প্রসঙ্গে স্প্যানিশ ক্রীড়া দৈনিক ‘স্পোর্ত’কে তিনি বলেছেন, ‘হ্যাঁ, আমার ডিনার করতে কোনও সমস্যা নেই। আমি সবসময় বলে এসেছি, কোনও বিষয় নিয়ে তার (রোনালদো) সঙ্গে আমার ঝামেলা নেই। হয়তো আমরা বন্ধু হতে পারেনি, কারণ কখনও একসঙ্গে ড্রেসিং রুম ভাগাভাগি করা হয়নি আমাদের। তবে অ্যাওয়ার্ড শোতে তার সঙ্গে আমার সবসময় দেখা হয়েছে।’

যদিও কখনও ডিনারের সুযোগ হবে কিনা, তা নিয়ে সংশয় আছে মেসির। কেন? ব্যাখ্যাটা মেসির মুখ থেকেই শুনুন, ‘সবশেষ অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে লম্বা সময় পর আমাদের কথা হয়েছে। জানি না আমাদের একসঙ্গে ডিনার করা হবে কিনা, কোনও নির্দিষ্ট কারণে আমাদের পথ একসঙ্গে মিলবে কিনা, তাও জানি না। কেননা, প্রত্যেকে নিজের জীবন নিয়ে ব্যস্ত, প্রত্যেকের নিজস্ব প্রতিশ্রুতি আছে। তবে অবশ্যই আমি তার আমন্ত্রণ গ্রহণ করলাম।’ গোল ডটকম


আরো সংবাদ