২২ আগস্ট ২০১৯

ব্রাজিলের নেইমার-নির্ভরতা এখন অতীত

দলের তারকা ফুটবলার নেইমারকে ছাড়াই এবারের কোপা আমেরিকায় বিজয়ী ব্রাজিল। এ নিয়ে নয় বার তারা দক্ষিণ আমেরিকার সেরা দল হল। প্রতিযোগিতা শুরুর আগেই গোড়ালিতে চোটের কারণে দল থেকে ছিটকে যান নেইমার। কিন্তু তাঁর বাদ পড়ার ক্ষেত্রে কেবল চোটই একমাত্র কারণ ছিল না। ধর্ষণের অভিযোগে অভিযুক্ত থাকাটাও একটা ফ্যাক্টর ছিল।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম মুখর ছিল সেই অভিযোগ নিয়েও। নেইমারকে ছাড়া ব্রাজিল প্রতিযোগিতায় জিততে পারবে কি না, তা নিয়ে সংশয় ছিল ভক্তদের। অনেকেরই মনে পড়ছিল ২০১৪ বিশ্বকাপের কথা। সেবার কোয়ার্টার ফাইনালে চোট পেয়ে ছিটকে যান নেইমার। সেমিফাইনালে জার্মানির কাছে ৭-১ গোলে চূর্ণ হয় ব্রাজিল। ঘটনাচক্রে, সেবারের মতো এবারও আয়োজক দেশ ছিল ব্রাজিল।

গ্রুপ পর্বে ভেনেজুয়েলার সঙ্গে ০-০ ড্র করে ব্রাজিল। নেইমার ছাড়া সেই ম্যাচে তেমন ভাল খেলতে পারেনি তাঁর দল। কিন্তু ওই ম্যাচের পর থেকেই ধীরে ধীরে উন্নতি হতে থাকে দলের খেলার। শেষ পর্যন্ত ফাইনালে ৩-১ গোলে পেরুকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হল ব্রাজিল। ১২ বছর কোপা আমেরিকা সেরা হয়ে ট্রফি হাতে তুলে নিলেন অধিনায়ক দানি অ্যালভিস। সেই সঙ্গে ব্রাজিল দল প্রমাণ করে দিল তারা নেইমারকে ছাড়াই কাপ জিততে পারে।

নেইমার-‌নির্ভরতা কাটিয়ে উঠে দলগত ভাবে খেলেই এবার কোপা আমেরিকা সেরা হল তারা। সেরা আক্রমণ, সেরা ডিফেন্স-ব্রাজিল সত্যিই অপ্রতিরোধ্য হয়ে উঠেছিল। রক্ষণে অ্যালভিসের দুরন্ত প্রদর্শনের পাশাপাশি টপ স্কোরার এভার্টনের দুর্দান্ত খেলা, সেই সঙ্গে গোলরক্ষক হিসেবে অ্যালিসনের দক্ষতা- নেইমারের অভাবটুকুও অনুভূত হতে দেয়নি।

তবে লিভারপুলের হয়ে ক্লাব ফুটবল খেলা খেলোয়াড় অ্যালিসন মানতে রাজি নন, ব্রাজিল দল নেইমারের প্রভাব কাটিয়ে উঠতে পেরেছে। তিনি জানিয়েছেন, নেইমারের অনুপস্থিতিতে সেরা হওয়া কঠিন ছিল। কিন্তু দলের শক্তি দেখানোর জন্যই সেরা হওয়া একান্ত প্রয়োজন ছিল, এমনটাই মত তাঁর।

নেইমারের অনুস্থিতিতে জ্বলে উঠেছিলেন মে মাসে দলের অধিনায়কত্ব পাওয়া অ্যালভিস ও এভার্টন। অ্যালভিস ‘প্লেয়ার অফ দ্য টুর্নামেন্ট' হয়েছেন। সেমিফাইনালে আর্জেন্টিনার বিরুদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ২-০ জয়ের পথে দলকে এগিয়ে নিয়ে যান তিনিই। প্রথম গোলটাই যে তাঁর।

এবং এভার্টন। তারকা উইঙ্গারের দুরন্ত প্রদর্শনে মুগ্ধ দর্শকরা। তিনিই টপ স্কোরার। অথচ নেইমার খেললে তিনি হয়তো সুযোগই পেতেন না। এমনকী, ভেনেজুয়েলার সঙ্গেও তিনি প্রথম থেকে দলে ছিলেন না। কিন্তু পরে দলে ধীরে ধীরে অপরিহার্য হয়ে ওঠেন তিনি।

ব্রাজিলের ৪৩ বছরের ফুটবল ফ্যান এলিন ভিয়েরা পেসোয়া ডিসুজা সংবাদ সংস্থা এএফপিকে জানিয়েছেন, ‘‘এর থেকে প্রমাণ হল আমরা ওঁর (নেইমার) উপরে আর নির্ভর করি না। সব কিছু ওঁর উপরে আর নেই। এটা ব্রাজিল। কে খেলছে সেটা কোনও ব্যাপারই নয়।''

এটা কেবল তাঁর গোটা ব্রাজিল সমর্থকদেরই মনের কথা হয়ে উঠেছে কোপা বিজয়ের পরে।


আরো সংবাদ

৭৫-এর পরিকল্পনাকারীদের বিচারে জাতীয় কমিশন গঠনের দাবি রাজধানীতে জেএমবির চার সদস্য গ্রেফতার ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় জড়িতদের শাস্তি নিশ্চিত করা হবে : প্রধানমন্ত্রী মিয়ানমারে ফিরে না গেলে রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে পাঠানো হবে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী সংসদ সচিবালয়ের আবাসন সমস্যা দূর করতে আরো ৫০০ ফ্যাট কুড়িগ্রামে ব্রহ্মপুত্র নদে ভেলায় সবজি চাষ বর্জ্য ব্যবস্থাপনা খাতে বিনিয়োগ করার আহ্বান অবশেষে রোহিঙ্গারা ফিরছেন আজ থেকে মিয়ানমারে রোহিঙ্গা পরিস্থিতি আরো অবনতির আশঙ্কা ১৫ আগস্ট আর ২১ আগস্টের হত্যাকাণ্ড একই সূত্রে গাঁথা : কাদের কাশ্মির নিয়ে আন্তর্জাতিক আদালতে যাবে পাকিস্তান

সকল




mp3 indir bedava internet