২৩ জুলাই ২০১৯

মেসিকে কোপার কাপটি দিতে চান আগুয়েরো

ক্লাব ফুটবলে যার কোন অপূর্ণতা নেই। রেকর্ডে গড়া যার ফুটবল ক্যারিয়ার। কিন্তু; ক্লাবে যতটা অম্লান জাতীয় দলে ততোটা ম্লান এই ফুটবলার। বলা হাচ্ছে আর্জেন্টিনা ফরোয়ার্ড লিওনেল মেসির কথা। জাতীয় দলের জার্সিতে লিওনেল মেসির শিরোপা খরা কাটাতে অধীর হয়ে আছেন তার সতীর্থ সার্জিও আগুয়েরো। অধিনায়কের জন্য জিততে চান এবারের কোপা আমেরিকা।

আর্জেন্টিনার জার্সিতে লিওনেল মেসির শিরোপা খরা কাটাতে অধীর হয়ে আছেন তার জাতীয় দলের সতীর্থ সার্জিও আগুয়েরো। অধিনায়কের জন্য জিততে চান এবারের কোপা আমেরিকা।

জাতীয় দলের হয়ে মেসি এখনও কোনো শিরোপা জিততে পারেননি। ২০০৭, ২০১৫ এবং ২০১৬ সালের কোপা আমেরিকার ফাইনাল এবং ২০১৪ সালের ব্রাজিল বিশ্বকাপের ফাইনালে আর্জেন্টিনার হারে স্বপ্ন ভাঙে বার্সেলোনা তারকার।

২০১৬ সালের কোপা আমেরিকার ফাইনালে চিলির বিপক্ষে টাইব্রেকারে গোল করতে ব্যর্থ হওয়া মেসি টুর্নামেন্টের পর জাতীয় দলকে বিদায়ও বলে দিয়েছিলেন। গত মার্চে অবসর ভেঙে ফেরেন এই ফরোয়ার্ড।

সান হুয়ানে আগামী শনিবার নিকারাগুয়ার বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচ খেলবে আর্জেন্টিনা। এ ম্যাচ সামনে রেখে ফক্স স্পোর্ট আর্জেন্টিনাকে আগুয়েরো তার চাওয়ার কথা জানান।

“নিজের চেয়েও আমি মেসির জন্য চ্যাম্পিয়ন হতে অধীর হয়ে আছি। আশা করি একদিন এটা পূরণ হবে।”

“এটা জেতা তার স্বপ্ন এবং সবারই স্বপ্ন। তার জন্য কোপা আমেরিকা জিততে আমি আমার সর্বোচ্চ দিয়ে চেষ্টা করতে চাই।”

“জাতীয় দলে সে দীর্ঘদিন আছে এবং সে কষ্ট করেছে। আমিও কষ্ট করেছি। আমরা জানি দলের জন্য সে কি আনতে পারে। ব্যর্থ না হওয়ার জন্য দলের বাকিদের মানসিকভাবে প্রস্তুত হতে হবে।”
আগামী ১৪ জুন ব্রাজিলে শুরু হবে কোপা আমেরিকার পরের আসর। ১৫ জুন সালভাদোরে কলম্বিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শিরোপা জেতার অভিযান শুরু করবে আর্জেন্টিনা। ‘বি’ গ্রুপে মেসিদের অপর দুই প্রতিপক্ষ প্যারাগুয়ে ও কাতার।

গত মৌসুম ম্যানচেস্টার সিটির ঘরোয়া ট্রেবল জয়ে ৩২ গোল করে অবদান রাখলেও কোপা আমেরিকায় খেলা নিয়ে অনিশ্চয়তার মধ্যে থাকার কথা জানান আগুয়েরো।

“যখন আমাকে দলে ডাকা হলো না, তখন আমার সন্দেহ হয়েছিল যে আমি খেলতে পারব কি-না। লিও এপ্রিলে আমাকে ফোন করে বলল যে আমাকে ডাকা হবে।”

“আমি খুব খুশি হয়েছিলাম। জানি না, এটা শেষ টুর্নামেন্ট হবে কিনা। আমরা জাতীয় দলের হয়ে কিছু জিততে চাই।”

৩১ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ড ছোটখাট ভুল নিয়েও সতীর্থদের সতর্ক করে দিয়েছেন।

“আমরা জানি আর্জেন্টিনার ওপর অনেক চাপ আছে। ক্ষুদ্রতম ভুলেও আপনি টুর্নামেন্ট থেকে বাদ পড়ে যেতে পারেন; কেননা, এটি সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটের একটি প্রতিযোগিতা। একটা বাজে ম্যাচ খেলারও সুযোগ নেই। সিটির হয়ে যেটা করেছি, একই চেষ্টা আমি আর্জেন্টিনার হয়ে করব।”

 


আরো সংবাদ

gebze evden eve nakliyat instagram takipçi hilesi