২৪ মার্চ ২০১৯

মেসি-কুটিনহোকে নিয়ে উভয়সঙ্কটে বার্সেলোনা

মেসি-কুটিনহো - ছবি : সংগৃহীত

শিরোপা অক্ষুণ্ন রাখার মিশনে আগামী রোববার পুনঃরায় যাত্রা শুরু করবে বার্সেলোনা। এদিকে দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়ে নতুন করে লা লীগার শিরোপা জয়ের আশা জাগতে শুরু করেছে রিয়াল মাদ্রিদ শিবিরে।
বার্সেলোনায় কুটিনহো ভাবনা :
জানুয়ারিতে পায়ের গোঁড়ালির ইনজুরিতে পড়েছিলেন ওসমানে ডেম্বেলে। ফলে বার্সেলোনার সেরা একাদশে যুক্ত হবার দ্বার উন্মোচিত হয় ফিলিপ কুটিনহোর জন্য। যদিও ধারাবাহিক ব্যর্থতার কারণে বার্সেলোনায় তার দীর্ঘ সময়ের ভবিষ্যৎকে প্রশ্নের মুখে ঠেলে দিয়েছে।

এদিকে ডেম্বেলেও এখন সুস্থ হয়ে উঠেছেন। এখন দেখার বিষয়, রোববারের ম্যাচের মূল একাদশে তাকে অন্তর্ভুক্ত করা হবে কি-না। বার্সা কোচ আর্নেস্টো ভালভার্দে অবশ্য কুটিনহোর ঝুঁকি নেয়ার প্রবণতার প্রশংসা করেছেন। যদিও তাকে নিয়ে কিছুটা আস্থার ঘাটতি রয়েছে। বিষয়টি বিশ্লেষণ করে কোচ বলেছেন, তিনি (কুটিনহো) এখনো তার দায়িত্ব বুঝে উঠতে পারছেন না।

মেসির ফিটনেস :
রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে ড্র হওয়া কোপা ক্লাসিকোতে লিওনেল মেসি বেঞ্চ থেকে মাঠে নেমেছিলেন। পরের ম্যাচে অ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের বিপক্ষে ড্র হওয়া ম্যাচে তিনি মুল একাদশের হয়ে মাঠে নামলেও তার ফিটনেসে ঘাটতি ছিল।

বিশ্রামের জন্য পুরো এক সপ্তাহ সময় পাওয়ার কারণে আর্জেন্টাইন সুপারষ্টার অবশ্য উরুতে পেশীর টান জনীত সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন। কিন্তু সপ্তাহের শেষ ম্যাচে কোচ ভালভার্দেকে এ বিষয়েও সিদ্ধান্ত নিতে হবে। কারণ মঙ্গলবার চ্যাম্পিয়ন্স লীগের শেষ ষোলর লড়াইয়ে লিয়ঁর মোকাবেলা করতে হবে বার্সেলোনাকে।

আগের মৌসুমে দলের মুখ্য খেলোয়াড়দের বিশ্রামে রাখার সমালোচনা সহ্য করতে হয়েছিল বার্সা কোচকে। কিন্তু একদিকে টানা তিন ম্যাচে ড্র করা এবং চির প্রতিদ্বন্দ্বি রিয়াল মাদ্রিদের পুনর্গঠিত হবার ঘটনায় সিদ্ধান্ত গ্রহই নিয়ে কঠিন সংকটে পড়ে গেছেন ভালভার্দে।
মাদ্রিদের ভয়ঙ্কর আক্রমইের নেতৃত্বে ভিনিসিয়াস :
গত বুধবার চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ম্যাচে ভিনিসিয়াসের আগ্রাসী আক্রমণের কারণে রিয়াল মাদ্রিদের কাছে ২-১ গোলে হার মেনেছে আয়াক্স। ম্যাচ শেষে স্বাগতিক কোচ এরিক টেন হাগ ভিনিসিয়াস প্রসঙ্গে বলেছিলেন, ‘সে দেখিয়েছে কতটা ভাল সে খেলতে পারে।’

ভিনিসিয়াসের পারফর্মেন্স দলকেও আগ্রাসী খেলার দিকে ঠেলে দিয়েছে। তার বয়সের তারুণ্য তাকে প্রায়ই অযৌক্তিক সিদ্ধান্ত গ্রহণের দিকে ঠেলে দিচ্ছে। কিন্তু বিদ্যুৎগতির বিক্ষিপ্ত ওই আক্রমণের কারণেই সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে তাকে দলের মূল একাদশেও জায়গা করে দিয়েছে।
একই কারণে কোচ সান্তিয়াগো সোলারি অনুভব করছেন অভিষেক মৌসুমেই ১৮ বছর বয়সী এই উদীয়মান তারকার সুযোগ পাওয়া দরকার। তার পারফর্মেন্স যথেষ্ট ভাল হলেও দলের গভীর পরিকল্পনা বাস্তবায়নে ব্যাঘাত ঘটাচ্ছে। কারণ এরই মধ্যে ইনজুরি কাটিয়ে দলে ফিরেছেন গ্যারেথ বেল ও মার্কো এ্যাসেনসিও। সব কিছু মিলিয়ে প্রয়োজন মোতাবেক অস্ত্র ব্যাবহারের সুযোগ রয়েছে মাদ্রিদের।

চ্যালেঞ্জের মুখে সিমিওনে :
গতকাল বৃহস্পতিবার কোচ দিয়াগো সিমিওনের সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ ২০২২ সাল পর্যন্ত বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। তবে আর্জেন্টিনার এই কোচের সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ বাড়ানোর খবরটি ক্লাবের জন্য সুখকর নয় বলে এ বিষয়ে কিছুটা প্রতিবাদও হয়েছে।
লা লীগায় রিয়াল বেতিস ও রিয়াল মাদ্রিদের কাছে দুটি পরাজয় অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের শিরোপা জয়ের চ্যালেঞ্জে টিকতে পারবে কি-না তা নিয়ে সন্দেহ দেখা দিয়েছে। অবশ্য আগামীকাল রায়ো ভায়োকানো সফরে যাবার আগেই ইনজুরি কাটিয়ে দলে ফিরেছেন দিয়াগো কস্তা। যা তাদেরকে সহায়তা করতে পারে। তবে এই লীগে এখনো পর্যন্ত বার্সেলোনার অর্ধেক গোলও করতে পারেনি অ্যাটলেটিকো। তাদের রক্ষণ যতটাই শক্তিশালী হোক না কেন এমন অবস্থায় শিরোপার লড়াইয়ে টিকে থাকা বেশ কষ্টসাধ্যই হবে।

জমে উঠেছে শীর্ষ চারে দখল নেয়ার লড়াই :
গত নভেম্বরে লা লীগার পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে ছিল সেভিয়া। কিন্তু এখন তাদের মোকাবেলা করতে হচ্ছে আগামী মৌসুমের চ্যাম্পিয়ন্স লীগে খেলার যোগ্যতা অর্জনের চ্যালেঞ্জ। বেশ কয়েকটি দল এখন তাদেরকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিচ্ছে। বর্তমানে সেভিয়ার সঙ্গে ২ পয়েন্টের ব্যবধানে পিছিয়ে রয়েছে গেটাফে। যাদের রয়েছে এই আসরের দ্বিতীয় সেরা রক্ষণভাগ। দলটি শুধুমাত্র গোল ব্যবধানে তালিকায় এগিয়ে রয়েছে আলাভেসের চেয়ে। বেতিসও মনে করছে তারা শীর্ষ চারের প্রতিযোগিতায় টিকে আছে। কারণ চতুর্থ স্থানধারীদের সঙ্গে ৫ পয়েন্টের ব্যবধানে পিছিয়ে রয়েছে তালিকার সপ্তম স্থানধারী ক্লাবটি। তাদের চেয়ে এক পয়েন্টে পিছিয়ে রয়েছে ভ্যালেন্সিয়া।

ফিকশ্চার :
শুক্রবার : এইবার বনাম গেটাফে
শনিবার : সেল্টাভিগো বনাম লেভান্তে, রায়ো ভায়োকানো বনাম অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ, রিয়াল সোসিয়াদাঁদ বনাম লেগানেস এবং বার্সেলোনা বনাম রিয়াল ভ্যালাডোলিড।
রোববার : রিয়াল মাদ্রিদ বনাম জিরোনা, ভ্যালেন্সিয়া বনাম এস্পানিওল, ভিলারিয়াল বনাম সেভিয়া এবং রিয়াল বেতিস বনাম আলাভেস।
সোমবার : হুয়েস্কা বনাম অ্যাথলেটিক বিলবাও।


আরো সংবাদ




iptv al Epoksi boya epoksi zemin kaplama Daftar Situs Agen Judi Bola Net Online Terpercaya Resmi

Hacklink

hd film izle instagram takipçi satın al ofis taşıma Instagram Web Viewer

canli radyo dinle

Yabanci Dil Seslendirme

instagram takipçi satın al