১৩ নভেম্বর ২০১৮

রামোসের চ্যালেঞ্জে রক্তাক্ত

রামোসের চ্যালেঞ্জে রক্তাক্ত হাভেল - সংগৃহীত

করিম বেনজেমার ল্যান্ডমার্ক গোলে বুধবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ভিক্টোরিয়া প্লাজেনকে ৫-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদ। এই ম্যাচে দুই গোল করে ফ্রেঞ্চম্যান বেনজেমা রিয়ালের হয়ে ২০০তম গোলের মাইলফলক ছাড়িয়ে গেছেন।
নতুন কোচ সানতিয়াগো সোলারির অধীনে এটি ছিল রিয়ালের প্রথম ইউরোপীয়ান ম্যাচ। এই জয়ে চার ম্যাচে ৯ পয়েন্ট নিয়ে রিয়াল দৃঢ়ভাবেই গ্রুপ-জি’র শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে।

২০ মিনিটে একক প্রচেষ্টায় রিয়ালকে এগিয়ে দেন বেনজেমা। যদিও গোলটির আগে মিলান হাভেলকে কনুই দিয়ে সার্জিও রামোসের আঘাত করার বিষয়টি খুব একটা বড় চোখে দেখেননি জার্মান রেফারি ডেনিজ আয়াটেকিনের। তিন মিনিট পর ক্যাসেমিরো সফরকারীদের ব্যবধান দ্বিগুন করেন। ৩৭ মিনিটে বেনজেমা নিজের দ্বিতীয় গোল করার তিন মিনিট পর গ্যারেথ বেলকে দিয়ে দলের চতুর্থ গোলটি করিয়েছেন। ৬৭ মিনিটে টনি ক্রুস শেষ গোলটি করলে মাদ্রিদের বড় জয় নিশ্চিত হয়।

মাদ্রিদের ইনজুরিগ্রস্ত রক্ষণভাগকে কাল অবশ্য খুব একটা বিপদে ফেলতে পারেনি স্বাগতিক প্লাজেন। তবে ৯ মিনিটে প্যাট্রিক রোসোভিস্কর ক্রসবারে লেগে ফেরত না আসলে তখনই হয়ত এগিয়ে যেতে পারতো চেক রিপাবলিকের চ্যাম্পিয়ন দলটি।

১৪ মিনিটে রামোসের চ্যালেঞ্জে হাভেলের নাকে আঘাত লাগে। তারপরেও রক্তাক্ত নাক নিয়ে তিনি কিছুক্ষণ মাঠে ছিলেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ৩৮ মিনিটে এই মিডফিল্ডারকে পরিবর্তন করতে বাধ্য হন প্লাজেন বস ভারবা। তার আগেই অবশ্য মাদ্রিদ ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিজেদের করে নেয়। ২০ মিনিটে অনেকটা একক প্রচেষ্টায় বেনজেমা প্লাজেন গোলরক্ষক এ্যালেস রুসকার পায়ের মাঝ দিয়ে নিজের মাইলফলক গোল আদায় করে মাদ্রিদকে এগিয়ে দেন। তিন মিনিট পর ক্রসের কর্ণার থেকে ক্যাসেমিরো ব্যবধান দ্বিগুন করেন। ৩৭ মিনিটে বেলের সহায়তায় বেনজেমা মাদ্রিদের হয়ে ২০১তম গোল পূরণ করেন। ৪০ মিনিটে আবারো ফ্রেঞ্চ তারকা বেনজেমাই রিয়ালের হয়ে চতুর্থ গোলে ভূমিকা রেখেছেন। তার সহায়তায় বেল দারুন এক ভলিতে মাদ্রিদের ব্যবধান ৪-০’তে নিয়ে যান।

দ্বিতীয়ার্ধে রামোস ও বেনজেমার স্থানে সোলারি জাভি সানচেজ ও ভিনসিয়াস জুনিয়রকে মাঠে নামান। এটি ছিল ব্রাজিলিয়ান তরুন ভিনসিয়াসের চ্যাম্পিয়ন্স লিগে অভিষিক্ত ম্যাচ। আর প্রথম ম্যাচেই তিনি নিজেকে প্রমান করেছেন। ৬৭ মিনিটে তার অসাধারণ পাসেই ক্রুস মাদ্রিদের হয়ে পঞ্চম গোলটি করেন। লুকাস ভাসকুয়েজের গোল অফ-সাইডের কারনে বাতিল না হলে ও স্টপেজ টাইমে বেল গোলের সুযোগ নষ্ট না করলেও মাদ্রিদের জয়ের ব্যবধান হয়ত আরো বাড়তে পারতো। তবে গুরুত্বপূর্ণ এই তিন পয়েন্টে মাদ্রিদের শেষ ১৬’তে যাওয়া যে এখন সময়ের ব্যপারে তা অনেকটা নিশ্চিত করে বলাই যায়।

রিয়ালের সাথে রোমাও চার ম্যাচে ৯ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে। সে কারণেই আগামী তিন সপ্তাহের মধ্যে স্তাদিও অলিম্পিকোতে এই দুই দলের ম্যাচেই নির্ধারিত হয়ে যাবে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে কোন দল নক আউট পর্বে যাচ্ছে। সোলারি অবশ্য জয়ের লক্ষ্য নিয়েই মাঠে নামবে। তারপরেও পারফরমেন্স নিরিখে রোমার বিপক্ষে ম্যাচটা যে মোটেই সহজ হবে না তা অনুমেয়।
মাদ্রিদের হয়ে ২০০তম গোলের মাইলফলক স্পর্শ করে বেনজেমা ক্লাবের ইতিহাসে সপ্তম খেলোয়াড় হিসেবে এই কৃতিত্ব দেখালেন। তার আগে এই কৃতিত্ব অর্জনের মধ্যে অন্যতম হলেন ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডো, রাওল, আলফ্রেডো ডি স্টিফানো। গত দুই মাসে গোলমুখে বারবার ব্যর্থ হওয়া এই ফ্রেঞ্চ তারকা সব ধরনের প্রতিযোগিতায় শেষ পাঁচটি ম্যাচে চার গোল করেছেন।
ইউরোপীয়ান প্রতিযোগিতায় কোন চেক দলের বিপক্ষে এ্যাওয়ে ম্যাচেই এটাই কোন স্প্যানিশ দলের সবচেয়ে বড় জয়।


আরো সংবাদ

১০ বিশিষ্ট ব্যক্তিকে নির্বাচনে সম্পৃক্ত করতে চান ড. কামাল আস্থা রাখুন, হিন্দু সম্প্রদায়কে ফখরুল ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন আগের চেয়ে বেশি দমনমূলক : অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল আ’লীগের মনোনয়ন বোর্ডের সদস্য হলেন ফারুক খান ও আব্দুর রাজ্জাক সহকর্মীর আঘাতে প্লাস্টিক ফ্যাক্টরির কর্মচারী নিহত শিক্ষাক্ষেত্রে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে হবে : শিক্ষামন্ত্রী সাংবাদিক শিমুল হত্যা মামলায় মেয়র মিরুর জামিন স্থগিত শিশুশ্রম নির্মূলের ল্যমাত্রা অর্জনে দেশ যথেষ্ট পিছিয়ে নির্বাচনী তফসিল পুনর্নির্ধারণ জাপা ইতিবাচকভাবেই দেখছে : জি এম কাদের ৩২ আসনে প্রার্থী চূড়ান্ত করেছে খেলাফত আন্দোলন অভিভাবক ঐক্য ফোরাম চেয়ারম্যানের মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি

সকল