২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮

মালদ্বীপকে হারিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হিসেবেই সেমিতে ভারত

-

আগেই সেমিফাইনালে পা রেখেছিল ভারত। সাফ সুজুকি কাপ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশীপে তিন দলের বি গ্রুপ থেকে প্রথম ম্যাচে শ্রীলংকাকে ২-০ হারানোর পর ওই গ্রুপের দ্বিতীয় ম্যাচে শ্রীলংকা ও মালদ্বীপ গোল শূন্য ড্র করায় সেমিফাইনাল নিশ্চিত হয় ভারতের।
আজ বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত গ্রুপের দ্বিতীয় ম্যাচেও মালদ্বীপকে ২-০ গোলে পরাজিত করেছে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। ফলে বি গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন হিসেবে টুর্নামেন্টের সেমিফাইনাল নিশ্চিত করেছে ভারত।
কিন্তু তিন দলের বি-গ্রুপে শেষ চারে যাওয়ার জন্য দোদুল্যমান অবস্থায় পড়ে যায় মালদ্বীপ ও শ্রীলংকার ভাগ্য। দু’দলের পয়েন্ট সমান এক করে। গোল ব্যবধানও মাইনাস দুই। কিন্তু সেমিফাইনালের জন্য একটি দলকে নির্বাচন করতে হবে। আর ওই নির্বাচনের জন্য প্রচলিত আন্তর্জাতিক নিয়মে যায়নি আয়োজকরা। আন্তর্জাতিক নিয়মে সমান পয়েন্টধারী দুই দলের একটিকে নির্বাচনের জন্য প্রথমে বেছে নেয়া হয় ফেয়ার প্লে। কার্ড সংখ্যা দিয়ে এটিকে বিচার করা হয়। কিন্তু সাফের বাইলজে সেটি নির্ধারণের জন্য টস করতে হবে। বাইলজ অনুযায়ী টসে যেতে হলো ম্যাচ কমিশনার চেন লিয়াং চেনকে। ওই টসে শ্রীলংকাকে হারিয়ে মালদ্বীপ পেয়ে যায় সেমিফাইনালের টিকিট। আগামী ১২ সেপ্টেম্বর বুধবার অনুষ্ঠিত হবে দুই সেমিফাইনাল।
আজ শুরু থেকেই পরিকল্পিত পারফর্মেন্স দিয়ে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয় ভারত। ১১তম মিনিটেই প্রথম আক্রমন রচনা করে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। নিখিল পুজারার নেয়া জোরালো একটি শট মালদ্বীপের গোলবার উচিয়ে বাইরে চলে যায়।
২০তম মিনিটে প্রতিআক্রমনে যায় মালদ্বীপ। কর্নার থেকে বল পেয়ে ইমাজ আহমেদের শট লক্ষ্যভ্রস্ট হয়। এর পর ২৪তম মিনিটে ভারত এবং পরের মিনিটে মালদ্বীপ দুটি নিষ্ফল আক্রমণ রচনা করে।
ম্যাচের ৩৬তম মিনিটে এসে প্রথম সফলতা পায় ভারত। ফারুক চৌধুরীর সঙ্গে বল আদান প্রদান করে মালদ্বীপের ডি বক্সে ঢুকে প্লেসিং শটে গোল করেন নিখিল পুজারা (১-০)। ম্যাচের ৪৪তম মিনিটে ফের গোল করে দ্বিগুন ব্যবধানে পৌছে যায় ভারত। জেরির বাড়িয়ে দেয়া বল দৌড়ে গিয়ে নিয়ন্ত্রনে নিয়ে মালদ্বীপের গোল রক্ষককে কাটিয়ে কৌনিক শটে গোল করেন মানভির সিং (২-০)।
প্রথমার্ধে এগিয়ে যাবার কারণে দ্বিতীয়ার্ধে গোল করার তেমন কোন তোরজোড় দেখা যায়নি ভারতীয়দের মধ্যে। যদিও ওই অর্ধেও মাঠের নিয়ন্ত্রণ ছিল ভারতীয়দের কাছে। ফলে বেশ কটি আক্রমণও রচনা করেছে তারুণ্য নির্ভর ভারতীয় দল। কিন্তু অপরিকল্পিত ওই সব আক্রমণ থেকে আর কোন গোল আসেনি। মালদ্বীপও এ সময় গোল পরিশোধের চেষ্টা করেছে। তবে শক্তিশালী ভারতীয়দের বিপক্ষে খুব একটা সুবিধা করতে পারেনি তারা। ফলে ২-০ গোলের পরাজয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে মালদ্বীপ।


আরো সংবাদ