১৭ নভেম্বর ২০১৮

পাকিস্তান দলে তিন প্রবাসী

সাফ ফুটবলের লোগো - ছবি : সংগ্রহ

নবম সাফ সুজুকি কাপের ‘এ’ গ্রুপে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ নেপাল, ভুটান ও পাকিস্তান। এদের মধ্যে র‌্যাংকিংয়ে সাবর নীচে পাকিস্তান। তারা আছে ২০১ এ। এর একটু আগে বাংলাদেশের অবস্থানন। তাদের র‌্যাংকিং ১৯৪। ভুটান ১৮৩ ও নেপাল ১৬১ তে থেকে অবস্থান করে লাল-সবুজদের উপরে আছে।

তিন বছর আন্তর্জাতিক ফুটবলের বাইরে ছিল পাকিস্তান। ফিফা তাদের নিষিদ্ধ করেছিল ফেডারেশনের উপর সরকারী হস্তক্ষেপের কারনে। তিন বছর আন্তর্জাতিক ম্যাচের বাইরে থাকা ও র‌্যাংকিংয়ে ২০০ এর নীচে অবস্থান, এই ভেবে পাকিস্তানকে দুর্বল ভাবার কোনো সুযোগই নেই। রোববার তাদের ব্রাজিলিয়ান কোচ হোসে অ্যান্তনিও নগেইরো যে তথ্য দিলেন তাতে পাকিস্তান কঠিন প্রতিপক্ষ হবে জেমি ডে বাহিনীর জন্য।

মে মাসে কোচ হওয়া এই লোকটির মতে, ‘তার দলে তিন জন ডেনমার্ক প্রবাসী ফুটবলার আছেন। এদের একজন গোলরক্ষক ইউসুফ, অন্য দুই জন স্ট্রাইকার হাসান বশির ও উইংগার মোহাম্মদ আলী।’ বাংলাদেশ অধিনায়ক ডেনমার্ক প্রবাসী জামাল ভূঁইয়ার পরিচিত তারা। জানিয়েছেন জামাল।

অ্যান্তনিও নগেইরো আফসোস করে বলেন,‘তিন বছর নিষিদ্ধ থাকার পর শেষ হয়ে গেছে পাকিস্তানের ফুটবল। ফুটবলের সব কার্যক্রম বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। ফুটবলারা খেলা ছেড়ে অন্য পেশায় চলে যায়।’

এখন তিনি ও ফেডারেশন মিলে নতুন ভাবে সাজাচ্ছেন পাকিস্তান জাতীয় দল ও দেশটির ফুটবলকে। এই অবস্থার মধ্যেও তারা ঘুরে দাঁড়ানো ইংগিত দিয়েছে। এবারের এশিয়ান গেমসে ২-১গোলে হারিয়ে দিয়েছে নেপালকে। অল্পের জন্য যেতে পারেনি দ্বিতীয় রাউন্ডে। সেই দলের ১০ ফুটবলার আছেন সাফের এই দলে।

এদের নিয়েই তারা খেলতে চায় সেমিফাইনালে। জানান কোচ। ৪০ দিনের ক্যাম্প তাদের। তবে বাংলাদেশের ভিসার জন্য আবেদন করে তা পেতে বেশ বিলম্ব হওয়ায় তাদের পক্ষে অন্যত্র ম্যাচ খেলতে যাওয়া সম্ভব হয়নি- অভিযোগ কোচের। জানান, চার বছরে পাকিস্তান মাত্র তিনটি ম্যাচ খেলেছে। চ্যালেঞ্জ কাপ আয়োজন করে সেখান থেকে তারা জাতীয় দলের জন্য খেলোয়াড় বাছাই করেছেন তিনি। এই ব্রাজিলিয়ানও স্বাগতিক হিসেবে ফেবারিটের তালিকায় রাখলেন বাংলাদেশকে।

দেখুন:

আরো সংবাদ