২২ জুলাই ২০১৮

রিয়ালের কোনো টোপই গিলেননি সালাহ! কারণ কী?

সালাহ
মোহাম্মদ সালাহ - সংগৃহীত

গুঞ্জন শোনা গিয়েছিল, লিভারপুল ছেড়ে রিয়াল মাদ্রিদে যোগ দিচ্ছেন মিসরীয় তারকা ফরোয়ার্ড মোহাম্মদ সালাহ। অনেক বড় অঙ্কের লোভ দেখানো হয়েছিল তাকে। কিন্তু তিনি সেই টোপ গিলেননি। শেষ পর্যন্ত সালাহ লিভারপুলেই থেকে গেছেন। গত সপ্তাহে নতুন করে ক্লাবের সাথে চুক্তি করেছেন তিনি।

এই কথা কেন এখন উঠছে? উঠছে কারণ গতকাল রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে জুভেন্টাসে যোগ দিয়েছেন সুপারস্টার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। ৯৯.২ মিলিয়ন ইউরোতে এই ক্লাবে গেছেন তিনি। গত পাঁচ বছরে চারটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শিরোপা জিতেছেন ৩৩ বছর বয়সী এই তারকা। দীর্ঘ সময় ক্লাবের হয়ে খেলার পর কেন চলে গেলেন সি আর সেভেন?

রোনালদো অবশ্য বলেছেন, জীবনের একটি নতুন অধ্যায় শুরু করতে চাচ্ছেন তিনি।

এখন প্রশ্ন উঠেছে সালাহ কেন রিয়ালে গেলেন না? তাকে তো অনেক বড় অঙ্কের লোভ দেখানো হয়েছিল?

সেই প্রশ্নের উত্তর এখনো জানা যায়নি। তবে ধারণা করা হচ্ছে, চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালের সেই দুঃস্বপ্নের পর রামোসের পাশে কোনোভাবেই খেলতে চাননি সালাহ। সেই ম্যাচে রামোসের বাজে ট্যাকেলে প্রথমার্ধেই মাঠ ছাড়ে হয় মিসরের এই রাজপুত্রকে। কাঁধে মারাত্মক চোট পান তিনি। এর প্রভাব পড়ে বিশ্বকাপেও। হয়ত সেই ঘটনা ভুলতে পারেননি সালাহ। এই ঘটনা দীর্ঘ সময় পর তিনি অবশ্য বলেছিলেন, রামোসকে কোনো দিন ক্ষমা করতে পারবেন না তিনি।

তবে সালাহকে পেতে মরিয়া ছিল রিয়াল। স্প্যানিশ পত্রিকা ডন ব্যালনের প্রতিবেদনে বলা হয়, সালাহর ব্যাপারে অনেক আগ্রহ ছিল রিয়ালের।

হবেই বা না কেন? এক মৌসুমে ৪৪ গোলের রেকর্ড যে গড়েছিলেন এই সালাহ। রোনালদোর ৩৮ গোলের রেকর্ডটি ভেঙে নতুন এই রেকর্ড গড়েন তিনি।

শোনা গিয়েছিল, লিভারপুলের কোচ জারগেন ক্লপকে শেষ মেষ বড় অঙ্কের পাশাপাশি রিয়ালের একজন তারকাকেও দিতে চেয়েছিল ক্লাবটি। কিন্তু লিভারপুল বস তাতে রাজি হননি। উল্টো দ্রুত নতুন চুক্তি সেরে ফেলেছেন সালাহর সাথে।

 

আরো পড়ুন : সালাহকে দলে টানতে মরিয়া রোনালদোদের নতুন কৌশল

মিসরের রাজপুত্র মোহাম্মদ সালাহ এখন ইনজুরিতে। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে ম্যাচে সার্জিও রামোসের কড়া ট্যাকেলে ঘাড়ে মারাত্মক চোট পেয়ে মাঠ ছাড়েছেন এই লিভারপুল ফরোয়ার্ড। পুরোপুরি সেরে উঠে বিশ্বকাপের মাঝামাঝি সময় মাঠে নামতে পারবেন বলে আশা করা হচ্ছে। তবে তার ফিরতে যত দেড়িই হোক, তাকে দলে টানতে দৌড়-ঝাঁপ কিন্তু থেমে নেই। প্রতিদিনই নতুন নতুন শিরোনাম হচ্ছে, কখনো রিয়ালে তো, কখনো বার্সেলোনায়। তবে তাকে নিতে মরিয়া রিয়াল, যেকোনোভাবেই হোক এই সুপারস্টারকে নিতে নানা কৌশল অবলম্বন করছে ক্লাবটি।

সর্বশেষ ব্রিটেনের ডেইলস্টার পত্রিকা জানিয়েছে, সালাহকে দলে নিতে বিশাল অঙ্কের পাশাপাশি বড় ধরণের অদলা-বদলি করার প্রস্তাব দিয়েছে রিয়াল। নিউজ পোর্টাল দিয়ারিও গোলের বরাত দিয়ে জানায়, সালাহকে পেতে ৮৮ মিলিয়ন ইউরোর দেয়ার পাশাপাশি মার্কো অ্যাসেনসিওকেও লিভারপুলকে দিতে রাজি রিয়াল মাদ্রিদ।

হঠাৎ কেন এই অফার দেয়া হলো লিভারপুলকে?

কারণ রিয়াল জানতে পেরেছে, সালাহর বস জাগান ক্লপ মার্কোর অনেক বড় ভক্ত। তাই টোপ ফেলেছে তারা। অর্থের পাশাপাশি মার্কোকেও দিতে রাজি বলে জানিয়েছে তারা।

এখন ক্লপ কি এই প্রস্তাব লুফে নিবে? সেটা অবশ্য পরে জানা যাবে। তবে রিয়ালের এই লোভনীয় প্রস্তাব দেখে বোঝা যাচ্ছে, সালাহকে দলে নিতে তারা যে কোনো কিছু করতে রাজি। আর কেনই বা করবেন না চলতি মৌসুমে রেকর্ড গড়া ৪৪ গোলের মালিক সালাহ। রিয়ালের প্রাণভোমরা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর এক মৌসুমে করা ৩৮ গোলের রেকর্ড যে ভেঙেছেন এই মিসরীয় সুপারস্টার। (০৯ জুন ২০১৮ প্রকাশিত সংবাদ)

 

আরো পড়ুন : রামোসকে কখনো ক্ষমা করবেন না সালাহ!

সার্জিও রামোস। লিভারপুল, মিসর এবং সালাহভক্তদের কাছে 'ভিলেন' তিনি। তার চ্যালেঞ্জের কারণেই গুরুতর আঘাত পেয়ে এখন মাঠ থেকে দুরে মোহাম্মদ সালাহ। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেই ফাইনাল সব সৌন্দর্য হারিয়েছে যখন কাঁদতে কাঁদতে মাঠ ছেড়েছেন মিসরের এই রাজপুত্র। গ্যালারিভর্তি সালাহ ভক্তের চোখে তখন অশ্রু ঝরছে। সেই ঘটনার জন্য রামোসকে কখনো ক্ষমা করবে না সালাহভক্তরা, ক্ষমা করবেন না সালাহ নিজেও। এমনটাই ইঙ্গিত দিয়েছেন তিনি।

সেই দিনের ঘটনার পর সমালোচনার ঝড় উঠে। মাঠের খেলায় জিততে মরিয়া রিয়াল মাদ্রিদ অধিনায়ক এমন 'ঘৃণ্য' কাজ করতে পারেন -সেটা অনেকেই ভাবতেই পারেননি। কিন্তু রামোস বরাবরই এ ধরণের কাণ্ড ঘটান। এবং সেই দিনের ঘটনার জন্য কোনো শাস্তিও পাননি। কিন্তু ফুটবলবিশ্বে 'অপরাধী'র কাঠগড়ায় তাকে দাড় করিয়েছেন অনেকে। তার জন্য ফুটবল তার সৌন্দর্য হারিয়েছে। তার বিরুদ্ধে মামলাও করেছিলেন মিসরের এক আইনজীবী।

এতো সমালোচনার পর সালাহকে উদ্দেশ্য করে টুইট করেন রামোস, ‘অনেক সময় ফুটবল তোমাকে ভালো দিক দেখাবে, আবার কোন সময় খারাপ দিক। সর্বোপরী আমরা সবাই সতীর্থ। দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠো সালাহ, ভবিষ্যত তোমার জন্য অপেক্ষা করছে।’

কিন্তু এ ব্যাপারে সালাহ কি বলেছেন?

ঘটনার অনেকদিন পর মুখ খুলেছেন সালাহ। বলেছেন, ''ওই ঘটনার পর রামোস আমাকে মেসেজ পাঠিয়েছিল। আমি কিন্তু তাকে কখনো বলিনি, 'ওকে, যা হওয়ার হয়েছে।''

তিনি বলেন, ''কোনো ব্যাপারে তখনি 'ওকে' বলা যায়। যখন কেউ তোমাকে কাঁদাবে, পরক্ষণেই হাসাবে।''

এই কথা থেকে সহজেই অনুমান করা যায় যে, সেই ঘটনা ভোলা সালাহর পক্ষে ভুলে যাওয়া কঠিন। এবং এর জন্য রামোসকে ক্ষমা করা সালাহর জন্য অতোটা সহজ নয়।

বিশ্বকাপে খেলার ব্যাপারে তিনি বলেন, ''আশা করছি প্রথম ম্যাচে উরুগুয়ের খেলতে পারব। তবে সবকিছু নির্ভর করবে, আমার শারিরীক অবস্থার উপর।'' (১০ জুন ২০১৮ প্রকাশিত সংবাদ)

দেখুন:

আরো সংবাদ