২০ আগস্ট ২০১৮

সোনায় মোড়ানো ব্যাগ নিয়ে স্বপ্ন কুড়াতে রাশিয়ায় নেইমার

নেইমার, ব্রাজিল, ফুটবল
সোনায় মোড়ানো ব্যাগ কাঁধে বিমান বন্দরে নেইমার - সংগৃহীত

ষষ্ঠবারের মতো বিশ্বকাপ জয়ের লক্ষ্য নিয়ে রাশিয়া পৌঁছেছেন ব্রাজিল ফুটবল দল। সোমবার সকালে সোচির ব্ল্যাক-সি রিসর্ট সিটিতে পৌঁছায় পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। প্রিয় তারকাদের দেখেই উল্লাসে ফেটে পড়েন স্থানীয় ব্রাজিল সমর্থকরা। বিমানবন্দর থেকে বেরিয়ে টিমবাসে ওঠার সময় দারুণ চনমনে মেজাজেই দেখা গেল নেইমার-কুতিনহোদের। ব্রাজিলের সেরা তারকা নেইমারের কাঁধে ছিল সাত শ' পাউন্ড মূল্যের গোল্ড প্লেটেড ব্যাগ, অর্থাৎ সোনায় মোড়ানো। আর তার ওপর খোদাই রয়েছে মা-বাবা সহ গোটা পরিবারের ছবি। তার চোখ-মুখেও ছিল স্বপ্নের সোনালি ঝিলিক। ঠোঁটের কোণের মুচকি হাসিতে পরিষ্কার ফুটে উঠছিল বলিষ্ঠ আত্মবিশ্বাস। টিম বাসে ওঠার আগে নেইমারকে সামনে রেখে গ্রুপ ছবিও তুলতে দেখা যায় কয়েকজন জুনিয়র খেলোয়াড়কে।

 

দুই সপ্তাহ আগেই দেশ ছেড়েছিল ব্রাজিল দল। ইংল্যান্ডের ক্লাব টটেমহ্যামের মাঠে দুই সপ্তাহের অনুশীলন শেষে লন্ডন থেকে সোজা রাশিয়ায় হাজির হয় ব্রাজিল দল। সেখানে টিম হোটেল সুইসোটেল রিসর্ট সোচি ক্যামেলিয়ায় অবস্থান করছে ব্রাজিল দল। নেইমারদের সাথে একই রিসর্টে রয়েছে পোল্যান্ড দলও। স্পুটনিক স্পোর্টস এরিনায় অনুশীলন করবে পোলিশরা। আর নেইমাররা অনুশীলন করবেন সোচির ইয়োগ স্পোর্টস স্টেডিয়ামে।

আজ মঙ্গলবার থেকে শুরু হবে তিতের শিষ্যদের অনুশীলন। বিশ্বকাপে ১৭ জুন নিজেদের প্রথম ম্যাচে সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নামবেন নেইমাররা। ‘ই’ গ্রুপে থাকা ব্রাজিলের বাকি দুই প্রতিপক্ষ হল কোস্টারিকা ও সার্বিয়া।

রাশিয়াগামী বিমানে ওঠার আগে রোববার অস্ট্রিয়ার বিপক্ষে শেষ প্রস্তুতি ম্যাচে ৩-০ গোলে জয়লাভ করে ব্রাজিল। এই ম্যাচেও একটি গোল করে দেশের হয়ে সর্বাধিক গোলের তালিকায় তৃতীয় স্থানে থাকা রোমারিওর পাশে বসেন সদ্য চোট সারিয়ে ওঠা নেইমার। দু’জনেরই গোল সংখ্যা আপাতত ৫৫টি। আর সাতটি গোল করতে পারলেই দ্বিতীয় স্থানে থাকা সিনিয়র রোনালদোর পাশে বসবেন পিএসজি তারকা। তবে নেইমারের চেয়ে এখনও ২২ গোলের ব্যবধানে এগিয়ে থেকে শীর্ষে রয়েছেন কিংবদন্তি পেলে।

ব্যাগের উপর খোদাই করা মা-বাবা সহ গোটা পরিবারের ছবি

 

রোমারিওকে স্পর্শ করা নিয়ে নেইমার সাংবাদিকদের বলেন, ‘রোমারিওর কাছে পৌঁছানো এবং ব্রাজিল দলের শীর্ষ গোলদাতাদের তালিকায় থাকাটা আমার কাছে বিরাট সম্মানের ও আনন্দের ব্যাপার। তবে আবারও বলছি, আমি কারোর চেয়ে ভালো হতে চাই না। আমি নিজের মতোই হতে চাই।’

অস্ট্রিয়ার বিপক্ষে দাপুটে জয়ের পর দলের সেরা তারকার প্রশংসায় পঞ্চমুখ ব্রাজিল কোচ তিতে বলেন, ‘আমিও জানি না, নেইমারের চূড়ান্ত সীমানা কোথায়। তার কৌশল ও সৃষ্টিশীলতা সত্যিই মুগ্ধ করার মতো। আশা করি, বিশ্বকাপে দলকে সামনে থেকেই পথ দেখাবে নেইমার।’

 

আরো পড়ুন : নেইমারকে কৌশলে খেলাবেন তিতে

গত সপ্তাহে প্রস্তুতি ম্যাচে ক্রোয়েশিয়ার বিরুদ্ধে মাত্র ৪৫ মিনিট খেলেছিলেন নেইমার। পায়ের পাতার চোটের জন্য নেইমার গত জানুয়ারির পর আর খেলতে পারেননি। ক্রোয়েশিয়ার বিরুদ্ধে খেলার পর নেইমার বলেছিলেন, ‘আমি এখন ৮০ শতাংশ ফিট। তবে ১৭ জুন প্রথম ম্যাচের আগে আমি সম্পূর্ণ ফিট হয়ে উঠব।

এই প্রসঙ্গে শনিবার ব্রাজিলের কোচ তিতে বলেছেন, ‘আমি আগামী ১৭ জুন সুইজারল্যান্ডের বিরুদ্ধে গ্রুপ লিগের প্রথম ম্যাচে নেইমারের কাছ থেকে বেশি কিছু আশা করছি না। তারপর কোস্টারিকা আর সার্বিয়া ম্যাচ আছে। আস্তে আস্তে ফিট হয়ে উঠুক। কোনো তাড়াহুড়ো নেই।’

তিতের কথা শুনে মনে হয়েছে, তিনি চাচ্ছেন গ্রুপ লিগের ম্যাচে আস্তে আস্তে নেইমারকে খেলিয়ে তাকে ফিট করে নিতে। তিতে মনে করছেন, নেইমারকে গ্রুপ লিগের চেয়েও নক আউটে অনেক বেশি প্রয়োজন হবে। একদিক থেকে তিতের হিসাবে তেমন ভুল নেই। গ্রুপ লিগে গ্যাব্রিয়েল হেসাসের মতো স্ট্রাইকার থাকায় তিতে হয়তো এমন ছক করছেন।


আরো সংবাদ