২০ জুন ২০১৮

রাশিয়ায় পৌঁছালেন হাস্যজ্জল সালাহ

রাশিয়ায় পৌঁছালেন হাস্যজ্জল সালাহ - ছবি : সংগৃহীত

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে ইনজুরিতে পড়লেও বিশ্বকাপে মিসর জাতীয় দলে সুযোগ পান মোহাম্মদ সালাহ। তবে তার খেলা নিয়ে গুঞ্জন এখনও সর্বত্র। কিন্তু এসবের মাঝে দলের সাথে রাশিয়ায় পৌঁছালেন সালাহ। বিমানে চড়ে রাশিয়া যাওয়ার সময়ের ছবি সামাজিক মাধ্যম টুইটার ও ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছেন তিনি। ছবিতে দলের অন্যান্য সতীর্থদের সাথে হাসিমুখেই দেখা গিয়েছে সালাহকে।

২৮ বছর পর বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে মিসর। তাই এবারের বিশ্বকাপ নিয়ে মিশরের স্বপ্ন অনেক বড়। সাথে যোগ হয়েছে সদ্যই পার করে আসা সালাহ’র দুর্দান্ত পারফরমেন্সের মৌসুম। ইংলিশ লিগে লিভারপুলের হয়ে ৩২টি গোল করেছেন তিনি। ইংলিশ লিগে সর্বোচ্চ গোলদাতা তিনিই।
ফলে ফুটবল রাইটার্স এসোসিয়েশনের বর্ষসেরা ও প্রফেশনাল ফুটবলার অ্যাসোসিয়েশনের (পিএফএ) সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন সালাহ। এছাড়া প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে ইংলিশ প্রিমিয়ার ফুটবল লিগের এক মৌসুমে তিনবার ‘প্লেয়ার অব দ্য মান্থ’য়ের পুরস্কার জিতেন সালাহ।

তবে চ্যামিম্পয়ন্স লিগ ফাইনালে রিয়াল মাদ্রিদের সার্জিয়ো রামোসের আঘাতে ইনজুরিতে পড়ায় বিশ্বকাপের সালাহ’র খেলা নিয়ে এখনও সংশয় রয়েছে। তবে সালাহ’কে খেলানোর ব্যাপারে ইঙ্গিত দিয়ে রেখেছেন মিসর ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের বোর্ড সদস্য খালিদ লতিফ। তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি প্রথম ম্যাচের শুরুর লাইন আপে থাকবে না সে। তবে ম্যাচের যেকোনো সময় নামতে পারে সে। কারণ সে দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠেছে। রাশিয়ায় মিসরের প্রথম অনুশীলনে দেখা যাবে সালাহকে।’

বড় জয় দিয়ে বিশ্বকাপ প্রস্তুতি শেষ করল ব্রাজিল

বড় জয় দিয়ে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি শেষ করলো পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল। বিশ্বকাপের আগে গতরাতে দ্বিতীয় ও শেষ প্রস্তুতি ম্যাচে ব্রাজিল ৩-০ গোলে হারিয়েছে অস্ট্রিয়াকে। এর আগে প্রথম প্রীতি ম্যাচে ব্রাজিল ২-০ গোলে হারায় ক্রোয়েশিয়াকে।
ইনজুরি থেকে প্রথম প্রীতি ম্যাচে বদলি খেলোয়াড় হিসেবে খেলেছিলেন নেইমার। ৬৯ মিনিটে গোল করে ব্রাজিলকে প্রথমবারের লিড দেন তিনি। ঐ ম্যাচের পর নিজের শারীরিক অবস্থা নিয়ে সন্তুষ্ট ছিলেন না নেইমার। তবে গতকাল অস্ট্রিয়ার বিপক্ষে ম্যাচের শুরু থেকেই ছিলেন নেইমার। পুরো ম্যাচ জুড়েই নেইমার ছিলেন উজ্জল।
নেইমারের জোগান দেয়া বল মার্সেলোর পাস থেকে ৩৬ মিনিটে গোল করেন গ্যাবরিয়েল জেসুস। এই গোলে এগিয়ে থেকে ম্যাচের প্রথমার্ধ শেষ করে ব্রাজিল।

দ্বিতীয় গোলের জন্য ম্যাচের দ্বিতীয় ভাগে মরিয়া হয়ে উঠে ব্রাজিল। দলকে গোলের স্বাদ দেন নেইমার নিজেই। ৬৩ মিনিটে একক প্রচেষ্টায় অস্ট্রিয়ার দু’জনকে খেলোয়াড়কে পরাস্ত করে বলকে গোলবারে প্রবেশ করান নেইমার। এই গোলে ব্রাজিলের হয়ে সর্বোচ্চ গোলে যৌথভাবে তৃতীয়স্থানে বসলেন নেইমার। রোমারিওর মত ৫৫ গোল নেইমারেরও। তাদের উপরে রয়েছেন পেলে ও রোনাল্ডো। পেলের ৭৭ ও রোনাল্ডোর ৬২ গোল।
নেইমারের গোলের ৬ মিনিট পর ব্রাজিলকে আরও এগিয়ে দেন ফিলিপ কুটিনহো। ফলে ৩-০ গোলে এগিয়ে যায় তারা। এই স্কোরেই শেষ পর্যন্ত মাঠ ছাড়ে ব্রাজিল। তাই এবার দুর্দান্ত জয় নিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করবে নেইমারের দল। এমনটা মনে করেন ব্রাজিলের কোচ তিতেও।

অস্ট্রিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ শেষে তিতে বলেন, ‘আমরা পুরোপুরি প্রস্তুত হয়েই বিশ্বকাপে যাবো। দু’টি প্রীতি ম্যাচেই দল ভালো খেলেছে। বিশেষভাবে অস্ট্রিয়ার বিপক্ষে ছেলেদের খেলায় আমি সন্তুষ্ট।’
‘ই’ গ্রুপে ব্রাজিলের প্রতিপক্ষ সুইজারল্যান্ড, কোস্টা রিকা ও সার্বিয়া। ১৭ জুন সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে এবারের বিশ্বকাপের মিশন শুরু করবে ব্রাজিল।

 


আরো সংবাদ