২৪ জানুয়ারি ২০২০

স্পিকারের সাথে তুরস্কের রাষ্ট্রদূতের বিদায়ী সাক্ষাৎ

-

জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সাথে বাংলাদেশে নিযুক্ত তুরস্কের রাষ্ট্রদূত দেভরিম ওজতুর্ক বিদায়ী সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন। গতকাল স্পিকারের সাথে তার সংসদ ভবনের কার্যালয়ে এ সাক্ষাৎকালে রাষ্ট্রদূত বলেন, ঐতিহাসিকভাবে বাংলাদেশের সাথে তুরস্কের সুসম্পর্ক রয়েছে। রোহিঙ্গা ইস্যুতে তুরস্ক সবসময় বাংলাদেশের পাশে থাকবে।
এ সাক্ষাৎকালে তারা দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কোন্নয়ন, সংসদীয় মৈত্রী গ্রুপ, রোহিঙ্গাদের নিরাপদ ও শান্তিপূর্ণ প্রত্যাবাসন ও ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসার নিয়ে আলোচনা করেন। এ সময় বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
স্পিকার বলেন, তুরস্কের সাথে বাংলাদেশের সম্পর্ক অত্যন্ত নিবিড়। সংসদীয় মৈত্রী গ্রুপ প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে এ সম্পর্ক আরো সুদৃঢ় হয়েছে। ইস্তাম্বুল খুবই সুন্দর শহর উল্লেখ করে তিনি ইস্তাম্বুলের বিভিন্ন স্থাপনার নির্মাণশৈলীর প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ‘মুজিববর্ষ-২০২০’ উদযাপন করা হবে। বাংলাদেশে এখন বিনিয়োগের ইতিবাচক পরিবেশ রয়েছে। এ সময় তিনি বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের মাধ্যমে তুরস্কের ব্যবসায়ী সমাজকে পাটজাত পণ্যের প্রসারে বিনিয়োগের আহ্বান জানান। স্পিকার মিয়ানমার থেকে জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গা ইস্যুতে তুরস্ক বাংলাদেশের পাশে থেকে সহযোগিতা করায় কৃতজ্ঞতা জানান।
বাংলাদেশের জনগণ খুবই আন্তরিক উল্লেখ করে রাষ্ট্রদূত দেভরিম ওজতুর্ক বলেন, বাংলাদেশে তার নিয়োগকাল স্মরণীয় হয়ে থাকবে।


আরো সংবাদ