২৭ মে ২০১৯

শাহীন হত্যায় প্রমাণ হয় আইনশৃঙ্খলা বলতে দেশে কিছু নেই : মির্জা ফখরুল

মির্জা ফখরুল ইসলাম গতকাল বগুড়া বিএনপি নেতা মরহুম মাহবুব আলম শাহীনের পরিবারের সদস্যদের সাথে সাক্ষাৎ করেন : নয়া দিগন্ত -

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, বর্তমানে দেশে আইনের শাসন নেই, ন্যায়বিচার নেই, মানবাধিকার নেই। দেশে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির চরম অবনতি ঘটেছে। কোথাও কারো নিরাপত্তা নেই। বিএনপি নেতা শাহীন হত্যা প্রমাণ করে দেশে আইনশৃঙ্খলা বলতে কিছু নেই। তাই দেশের মানুষকে সব অপকর্মের বিরদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে, রুখে দাঁড়াতে হবে। তিনি বলেন, শাহীনের পরিবার আজ অসহায়। জনগণের পাশে দাঁড়ানোই শাহীনের অপরাধ। এ হত্যাকাণ্ডে খালেদা জিয়া ও তারেক রহমান অত্যন্ত মর্মাহত। তারা বলেছেন, বগুড়াবাসীর পাশে ছিলাম, আছি এবং থাকব। তাই বগুড়াবাসী তাদের দু’জনের জন্য দোয়া করবেন। তিনি আরো বলেন, অধিকার আদায়ে সবাই একসাথে থাকবেন। নেতাকর্মীরা শাহীনের পরিবারের পাশে দাঁড়াবেন। যেকোনো প্রয়োজনে যেকোনো সময় পাশে থাকব। আল্লাহ যেন শাহীনকে বেহেশত নসিব করেন।
মির্জা ফখরুল বলেন, দেশনেত্রী কারাগারে অত্যন্ত অসুস্থ। তিনি হুইল চেয়ার ছাড়া চলতে পারেন না। এ ছাড়া তারেক রহমান বিদেশে রয়েছেন। তাই তাদের জন্য দোয়া করবেন।
তিনি গতকাল বৃহস্পতিবার সম্প্রতি সন্ত্রাসীদের হাতে নিহত বিএনপি নেতা অ্যাডভোকেট মাহবুব আলম শাহীনের পরিবারের সাথে সাক্ষাৎ শেষে উপস্থিত নেতাকর্মীদের উদ্দেশে এসব কথা বলেন। তিনি শাহীনের শোকাহত পরিবারের সদস্যদের সমবেদনা জানান এবং ধৈর্য ধরতে বলেন।
বিএনপির রাজশাহী বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট এম রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু বলেন, এ সরকারের আমলে মানুষের জীবনের কোনো মূল্য নেই। অবিলম্বে শাহীন হত্যার সাথে জড়িতদের গ্রেফতার করে বিচার করতে হবে। আমি এ আন্দোলনের সাথে থাকব।
বগুড়া জেলা বিএনপির সভাপতি ভিপি সাইফুল ইসলাম বলেন, শাহীন হত্যার বিচার না হওয়া পর্যন্ত রাজপথে থাকব। এ সময় উপস্থিত ছিলেনÑ চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও পৌর মেয়র অ্যাডভোকেট এ কে এম মাহবুবর রহমান, জেলা সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন চাঁন, নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য আলহাজ মো: মোশারফ হোসনে, বিএনপি নেতা আলী আজগর হেনা, সাবেক এমপি গোলাম মো: সিরাজ, ফজলুল বারী বেলাল, আহসানুল তৈয়ব জাকির, এম আর ইসলাম স্বাধীন, শাহ মেহেদী হাসান হিমু, শাহাবুল আলম পিপলু, এস এম রফিকুল ইসলাম, শহীদুল ইসলাম খোকন, লিটন শেখ বাঘা, ফারুকুল ইসলাম, মাসুদ রানা, মাহবুব হাসান লেমন প্রমুখ। এর আগে মির্র্জা ফখরুল নেতাকমীদের নিয়ে মরহুমের কবর জিয়ারত করেন।
পরে মির্জা ফখরুল শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সাবেক এমপি ও চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হেলালুজ্জামান তালুকদার লালুকে দেখতে যান। এ সময় তিনি তার চিকিৎসার খোঁজখবর নেন।

 


আরো সংবাদ




Instagram Web Viewer
Epoksi boya epoksi zemin kaplama hd film izle Instagram Web Viewer instagram takipçi satın al/a> parça eşya taşıma evden eve nakliyat Bursa evden eve taşımacılık gebze evden eve nakliyat Ankara evden eve nakliyat
agario agario - agario