১৮ জুলাই ২০১৯

কুমিল্লার ২ মামলায় খালেদা জিয়ার জামিন শুনানি পেছাল

-

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে কাভার্ডভ্যান পোড়ানো এবং চৌদ্দগ্রামে বাসে আগুন দিয়ে আটজন হত্যার পৃথক দুই মামলায় সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার জামিন শুনানি পিছিয়েছে। বুধবার চৌদ্দগ্রামে কাভার্ডভ্যান পোড়ানো মামলায় খালেদা জিয়ার জামিন শুনানি হয়েছে। দীর্ঘ সময় ধরে খালেদার জামিন শুনানি শেষে রাষ্ট্রপক্ষ অধিকতর শুনানির আবেদন করলে কুমিল্লা জেলা ও দায়রা জজের বিচারক কে এম সামছুল আলম ১৩ সেপ্টেম্বর অধিকতর শুনানির জন্য পরবর্তী দিন ধার্য করেন।
বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কুমিল্লা কোর্টের পিপি অ্যাডভোকেট মোস্তাফিজুর রহমান লিটন ও খালেদা জিয়ার আইনজীবী অ্যাডভোকেট কাইমুল হক রিংকু।
কাইমুল হক রিংকু বলেন, কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে কাভার্ডভ্যান পোড়ানো মামলায় খালেদা জিয়ার জামিনে একাধিক শুনানি হয়েছে। বার বার অধিকতর শুনানি চেয়ে রাষ্ট্রপক্ষের লক্ষ্য খালেদা জিয়াকে কারাগারে আটকে রাখা।
২০১৫ সালের ২৫ জানুয়ারি ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চৌদ্দগ্রাম উপজেলার হায়দারপুল নামক স্থানে একটি কাভার্ডভ্যানে আগুন দেয়ার ঘটনা ঘটে। পরদিন ২৬ জানুয়ারি চৌদ্দগ্রাম থানায় বিএনপি চেয়ারপারসনসহ ২০ দলের স্থানীয় ৩২ জনের বিরুদ্ধে মামলাটি করা হয়। মামলায় খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে নাশকতায় হুকুমের অভিযোগ আনা হয়।
অন্য দিকে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে বাসে আগুন দিয়ে আটজন হত্যা মামলায় খালেদা জিয়ার জামিন শুনানি রাষ্ট্রপরে সময় আবেদনের পরিপ্রেেিত পিছিয়ে দেয়া হয়। গতকাল মামলাটির শুনানি শেষে কুমিল্লা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ৫ নং আমলী আদালতের বিচারক পরবর্তী শুনানির জন্য আগামী ২০ সেপ্টেম্বর দিন ধার্য করেছেন।
মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৫ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি ভোরে ২০ দলীয় জোটের অবরোধের সময় চৌদ্দগ্রামের জগমোহনপুরে একটি বাসে পেট্রল বোমা ছুঁড়ে মারে দুর্বৃত্তরা। এতে আটজন যাত্রী দগ্ধ হয়ে মারা যান, আহত হন ২০ জন। এ ঘটনায় চৌদ্দগ্রাম থানায় ৭৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। মামলায় খালেদা জিয়াসহ বিএনপির শীর্ষস্থানীয় ছয়জন নেতাকে হুকুমের আসামি করা হয়। ৭৭ জন আসামির মধ্যে তিনজন মারা গেছেন ইতোমধ্যে, পাঁচজনকে চার্জশিট থেকে বাদ দেয়া হয়েছে। খালেদা জিয়াসহ অপর ৬৯ জনের বিরুদ্ধে কুমিল্লা আদালতে চার্জশিট দাখিল করা হয়েছে।


আরো সংবাদ

gebze evden eve nakliyat instagram takipçi hilesi