১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮
সংসদীয় কমিটির বৈঠক

চাকরিতে প্রবেশ ও অবসরের বয়স বাড়ানোর সুপারিশ

-

সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩৫ এবং অবসরের সময়সীমা বৃদ্ধির বিষয়টি বিবেচনার জন্য মন্ত্রণালয়কে আবারো সুপারিশ করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। দেশের উন্নয়ন ব্যবস্থাপনার বৃহৎ স্বার্থে বিসিএস (প্রশাসন) ও বিসিএস ইকোনমিক ক্যাডার একীভূতকরণের বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশও করে কমিটি।
সংসদ ভবনে গতকাল সোমবার অনুষ্ঠিত কমিটির বৈঠকে এ সুপারিশ করা হয়। কমিটির সভাপতি এইচ এন আশিকুর রহমানের সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ইসমাত আরা সাদেক, এ বি এম ফজলে করিম চৌধুরী, র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী, মো: আবদুল্লাহ, মুস্তফা লুৎফুল্লাহ, খোরশেদ আরা হকসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
শিক্ষার্থীদের দাবির প্রেক্ষাপটে গত জুনে সংসদীয় কমিটি চাকরিতে ঢোকার বয়স ৩৫ করার জন্য সুপারিশ করে।
বৈঠকে মন্ত্রণালয় জানায়, এ সুপারিশ বাস্তবায়নে পরবর্তী কার্যক্রম গ্রহণের বিষয়টি সরকারি নীতিনির্ধারণী সম্পর্কিত। এ বিষয়ে সরকারের নীতিগত সিদ্ধান্ত পাওয়া গেলে পরবর্তী কার্যক্রম গ্রহণ করা হবে।
বৈঠকে তথ্য ক্যাডারের বাংলাদেশ বেতারের পদ পুনর্বিন্যাস (ক্যাডার কম্পোজিশন) ও ডিজি পদকে গ্রেড-১ এ উন্নীতকরণের প্রস্তাবটি এক মাসের মধ্যে বাস্তবায়নের সুপারিশ করে কমিটি। একই সঙ্গে দেশের উন্নয়ন ব্যবস্থাপনার স্বার্থে বিসিএস (প্রশাসন) ও বিসিএস ইকোনমিক ক্যাডার একীভূতকরণের বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে পদক্ষেপ নিতে তাগিদ দিয়েছে তারা।
একই কর্মস্থলে তিন বছরের অধিককাল কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের তালিকাটি সঠিক ও সুষ্ঠুভাবে প্রণয়নের সুপারিশ করেছে কমিটি। পাশাপাশি এ তালিকাটি আরো পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে কমিটির পরবর্তী বৈঠকে উত্থাপনের জন্য বলা হয়েছে।
বৈঠকে ভূমি ব্যবস্থাপনা ও জমি ক্রয়-বিক্রয় সরকারি চাকরিতে প্রবেশ ও অবসরের বয়সসীমাসংক্রান্ত অগ্রগতি এবং উপসচিব থেকে সচিব পর্যায়ে বাংলাদেশ সরকারের স্থায়ী পদ সংখ্যা ও বর্তমানে নিয়োজিত কর্মকর্তাদের সংখ্যাসংক্রান্ত বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়। এ ছাড়াও ভূমি ব্যবস্থাপনা ও জমি ক্রয়-বিক্রয়সংক্রান্ত সরকারি নির্ধারিত ফি অনলাইনের মাধ্যমে জমা প্রদান এবং জমি নিবন্ধনের ফিসহ অন্যান্য বিষয় স্বচ্ছ করার জন্য আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করেছে কমিটি।

 


আরো সংবাদ