২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮

কোচ কেন নামালেন না সালাহকে

কোচ কেন নামালেন না সালাহকে - ছবি : সংগৃহীত

স্বাগতিক রাশিয়ার বিপক্ষে আগামী মঙ্গলবার দলের সেরা তারকা মোহাম্মদ সালাহর মাঠে নামার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে মিসর ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন (ইএফএ)। ইনজুরি থেকে ফিরে পুরোপুরি ফিট হতে না পারায় উরুগুয়ের বিপক্ষে রাশিয়ার প্রথম ম্যাচে খেলতে পারেননি সালাহ। তবে মিশরের ম্যাচে সালাহ খেলা নিশ্চিত বলে জানিয়ে ইএফএ।

গত ২৬ মে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে রিয়াল মাদ্রিদের অধিনায়ক সার্জিও রামোসের সঙ্গে বল দখলের লড়াইয়ে ইনজুরিতে পড়েন লিভারপুলের হয়ে খেলতে নামা ইংলিশ লিগের সর্বোচ্চ গোলদাতা সালাহ। এরপর চিকিৎসকরা জানান, ‘তিন সপ্তাহের জন্য মাঠের বাইরে থাকতে হবে সালাহকে।’ তারপরও সালাহকে বিশ্বকাপ দলে রাখে মিসর।

দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠায় প্রথম ম্যাচে অল্প কিছুক্ষণের জন্য সালাহকে খেলানোর পরিকল্পনা ছিল মিসরের। কিন্তু তাকে নিয়ে কোনো ঝুঁকি নেয়নি মিসরের কোচ হেক্টর পুকার। তিনি বলেন, ‘কিছুক্ষণ বা এক অর্ধ খেলার জন্য ফিট ছিল সালাহ। কিন্তু তাকে নিয়ে আমরা কোনো ঝুঁকি নিতে চাইনি।’

তবে উরুগুয়ের বিপক্ষে সালাহ খেলবেন বলে জানিয়েছে ইএফএ। তারা জানায়, ‘সালাহ আগের চেয়ে অনেক বেশি ফিট। তাকে পরের ম্যাচে খেলতে দেখা যাবে।’
‘এ’ গ্রুপে উরুগুয়ের বিপক্ষে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ১-০ গোলে হারে মিসর।

আরো পড়ুন :
ক্রোয়েশিয়ার জয় আর্জেন্টিনার ওপর চাপ সৃষ্টি করবে

ক্রোয়েশিয়ান তারকা মিডফিল্ডার লুকা মড্রিচ বিশ্বাস করেন শনিবার নাইজেরিয়ার বিপক্ষে তার দলের ২-০ গোলের জয় ‘ডি’ গ্রুপে ফেবারিট আর্জেন্টিনার উপর চাপ সৃষ্টি করবে।

৭১ মিনিটে মড্রিচের পেনাল্টির গোলে নাইজেরিয়াকে ২-০ গোলে পরাজিত করে বিশ্বকাপে শুভ সূচনা করেছে ক্রোয়েশিয়া। অন্যদিকে গ্রুপের প্রথম ম্যাচে পুঁচকে আইসল্যান্ডের বিপক্ষে ১-১ গোলে ড্র করে হতাশ করেছে শিরোপা প্রত্যাশী আর্জেন্টিনা। এই জয়ে পূর্ণ তিন পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপের শীর্ষে রয়েছে ক্রোয়েটরা।

আগামী বৃহস্পতিবার নোভগোরোদে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে আর্জেন্টিনার মুখোমুখি হবে ক্রোয়েশিয়া। আর গুরুত্বপূর্ণ ঐ ম্যাচের আগে মড্রিচ মনে করেন তার দল কিছুটা হলেও এগিয়ে থাকবে। কাল ম্যাচ শেষে মড্রিচ বলেছেন, ‘আর্জেন্টিনা অবশ্যই শক্তিশালী দল। কিন্তু এই জয়টা আমাদের আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে দিয়েছে। আমি বিশ্বাস করি আজেন্টাইনদের বিপক্ষেও আমরা ভালো খেলব। তবে ম্যাচটা মোটেই সহজ হবে না। তারা এই গ্রুপের ফেবারিট দল হতে পারে। একইসাথে তারা অবশ্যই জয়ের জন্য মাঠে নামবে। কিন্তু আজকের ফলাফলটা তাদের কাছে মোটেই প্রত্যাশিত ছিলনা।’

লিওনেল মেসির পেনাল্টি মিসের খেসারত দিতে হয়েছে আর্জেন্টিনাকে। আর সে কারনেই দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে স্পট কিক থেকে শট নেবার আগে মড্রিচ নার্ভাস ছিলেনা কিনা, এমন প্রশ্নের উত্তরে এই রিয়াল মাদ্রিদ তারকা বলেছেন, ‘না, মোটেই না। আমি গোলের দিকে গুরুত্ব দিয়েছি। গোল পাওয়াতে সৃষ্টিকর্তাকে ধন্যবাদ। এছাড়া এ ব্যপারে আর কিছুই বলতে চাই না।’

এর আগে আত্মঘাতি গোলে এগিয়ে গিয়েছিল ক্রোয়েশিয়া। সেট পিস থেকে কোন গোল না পাওয়ার বিষয়টিকে মোটেই নেতিবাচক ভাবে দেখছেন না ক্রোয়েশিয়ান কোচ জ্লাটকো ডালিচ। তিনি বলেন, জয় জয়ই, সেটা যেভাবেই হোক না কেন। কর্নার আর পেনাল্টি, উভয়ই ম্যাচেরই একটি অংশ। গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে সেগুলো থেকে দল গোল পাচ্ছে কিনা। এখানে ভাগ্যেরও একটি বিষয় আছে। আজ আমরা সৌভাগ্যবান ছিলাম। আমাদের আরো বেশী আক্রমনাত্মক হওয়া উচিত ছিল। কিন্তু সব মিলিয়ে এই ফলাফলে আমি সন্তুষ্ট।


আরো সংবাদ