১৮ জুলাই ২০১৯

স্নিগ্ধ সাজে ঈদ

স্নিগ্ধ সাজে ঈদ - সংগৃহীত

ঈদ যেহেতু উৎসবের দিন তাই নতুন পোশাকের সাথে সাজটাও হতে হবে মানানসই। প্রতিবছরের মতো এবারের সাজেও এসেছে নতুনত্ব। এ বছরের সাজের ধারা অনুযায়ী ঈদ দিনের সাজ কেমন হবে এ বিষয়ে পরামর্শ দিয়েছেন পারসোনার বিউটি কনসালটেন্ট নুজহাত খান

ঈদের আনন্দের রোশনাই ফুটে উঠুক চেহারা এবং মেকআপের মুনশিয়ানায়। সে জন্য থাকল পরিপূর্ণ সাজপরামর্শ।

দিনের সাজ
ঈদের সকাল শুরু হোক সতেজতায়। এ সময়টা ব্যস্ততায় কাটে বলে খুব বেশি মেকআপ না করাই ভালো। যতটুকু না করলেই নয়, ততটুকু সেজে উঠতে পারেন। উজ্জ্বল সতেজ ভাব, সাথে দাগছোপহীন নিখুঁত ত্বকই এখন পছন্দের শীর্ষে। সে জন্য মেকআপের আগে ত্বক প্রস্তুতিতে বেশি গুরুত্ব দেয়া উচিত। ত্বককে নিয়মিত যতেœ রাখলে তা দাগছোপ মুক্ত থাকবে।
লাইটওয়েটের ফুল কাভারেজ পাউডার ফাউন্ডেশন সকালের সাজে বেশি উপযুক্ত। গ্লাসের মতো চকচকে উজ্জ্বল ত্বক চান এখন সবাই। সে ক্ষেত্রে গোল্ড পিগমেন্টযুক্ত হাইলাইটার ব্যবহার করুন সকালে। চোখের পাতায় আইশ্যাডো হিসেবে, চিকবোন আইব্রো বোন হাইলাইট করতে ব্যবহৃত হতে পারে এটা। গোল্ডেন গ্লো না চাইলে, হলোগ্রাফিক ফিনিশের রেইনবো হাইলাইটারও ত্বকে দেবে কাক্সিক্ষত উজ্জ্বলতা। তবে খেয়াল রাখুন, হাইলাইটারগুলো যেন শিমার মুক্ত হয়। চকচকে নয়, পার্লি ক্রিমি কিংবা শিশিরসিক্ত ভাব তৈরি হওয়া চাই ত্বকে।

চোখের সাজটা শুরু হোক আইব্রো দিয়ে। পরিষ্কার এবং সুন্দর করে আঁচড়ানো আইব্রো এখন ট্রেন্ড। সকালে আইশ্যাডো ব্যবহারের ঝামেলায় যেতে না চাইলে চোখের পাতায় হাইলাইটার ব্যবহার করলেই চলবে। মাশকারার এক-দুই টানই যথেষ্ট। আর আইলাইনারের ক্ষেত্রে কোমল, গোলাকার উয়িংয়ের ব্ল্যান্ট গ্রাফিক লাইনার কিংবা ডট লাইনার এঁকে নিতে পারেন। এগুলো আঁকতে সহজ, সময়সাশ্রয়ী। সঙ্গে ব্লাশনের ছোঁয়া থাকতেই হবে। রোজি ট্যান শেডের সান ফ্লাশড চিক ত্বকে দেবে স্বাস্থ্যোজ্জ্বল গোলাপি আভা। আর ঠোঁটে ন্যুড শেডের লিপস্টিক দিয়ে এর ওপর গ্লস দিয়ে নিন। কারণ, হাই শাইন গ্লসের সময় এখন। সকালের সতেজতার সঙ্গেও দারুণ মানানসই।

দিনটি দুপুরে গড়ালে খানিকটা হেরফের হতে পারে সাজে। বেজ মেকআপে টাচআপই যথেষ্ট। বেয়ারলি দেয়ার আইশ্যাডোর লুকের বদলে সামান্য রঙের রেশ থাকতেই পারে চোখে। পিনাট বাটার, স্যান্ডি শেডের স্মোকি আই পড়ন্ত দুপুরের সাজে দেবে আরামদায়ক অনুভব। চোখের আইলাইনারের টান চোখের পাতার ওপরে না টেনে নিচে টেনে নিন। আন্ডারলাইনার এ ট্রেন্ড শুধু কালোই নয়, টেকনো কালার ব্যবহারেও ফুটে ওঠে চমৎকারভাবে। ঠোঁটের রঙেও পরিবর্তন আসুক দিনের এ সময়টাতে। ফুশিয়া কিংবা রেডের হাই শাইন গ্লস ব্যবহার করা যেতে পারে।

রাতের সাজে
ঈদের সারা বেলার সাজের মধ্যে রাতের সাজটা তুলনামূলক ভারী হয়। হয় ড্রামাটিক। তবে ত্বকে খুব বেশি মেকআপ না লাগানোই ভালো। বরং ঈদের আগে থেকেই বেশি করে যতœ নিন ত্বকের। স্বাস্থ্যোজ্জ্বল ন্যাচারাল লুকের ত্বক এ বছর চাহিদার শীর্ষে থাকায় মেকআপ শুধু ব্যবহার হবে আপনার প্রাকৃতিক সৌন্দর্যকে বাড়ানোর কাজে। এ বছরকার ক্রেজ গ্লাস স্কিন লুক থাকতেই পারে রাতে। এ ক্ষেত্রে ত্বকে বেশি করে লিকুইড হাইলাইটার মেখে এর ওপরে ফাউন্ডেশন মাখুন। তারপর প্রেসড পাউডার দিয়ে বেজ সেট করে আরেক দফা হাইলাইটার মাখুন ত্বকের উঁচু অংশগুলোতে। আপনার ত্বকের ঝলকানি নজর কাড়তে বাধ্য। বেসপোক কনট্যুরিং করতে পারেন। অর্থাৎ যদি চেহারার গড়নে পরিবর্তন আনা জরুরি হয়, তবেই ব্যবহার করুন, না হলে বাদ। ক্রিম কনটুর ত্বকে সুন্দর মিশে যায়। দেয় একদম ন্যাচারাল লুক। চোখের সাজে নানা রঙের আইলাইনার ব্যবহারের ট্রেন্ড রয়েছে এ বছরও। তবে সামান্য পরিবর্তিত রূপে।

পোশাক কিংবা গয়নার রঙ থেকে বাছাই করতে হবে একটি রঙ। লাইন টানতে হবে চোখের নিচের পাতায়। যারা আরো নাটকীয়তা চান চোখের সাজে, তাদের জন্য ক্লিওপেট্রা আই। গাঢ় ও মোটা করে আইলাইন টানা হয় এর জন্য। চোখের চারপাশজুড়ে। চোখের বাইরের কোণে তো বটেই, ভেতরের কোণেও টানা হয় উইংগড শেপ। যাদের চাকচিক্য পছন্দ, তারা ব্যবহার করতে পারেন ক্রিস্টাল। চোখের ওপরের পাতার আইল্যাশ লাইন বরাবর বসিয়ে দিতে পারেন রঙবেরঙের ক্রিস্টাল। মেটালিকেও সাজতে পারে চোখ। সিলভারটাই এবার বেশি ট্রেন্ডি। চাইলে নিওনও পরে দেখতে পারেন। চোখের সঙ্গে ঠোঁটেও দারুণ দেখাবে ঈদের রাতের সাজে। তবে ঠোঁটে নিওনের রঙ যেন ম্যাট হয়। রাতে ঠোঁটের সাজে পছন্দের রঙ আর ফর্মুলা বেছে নিন। হাই শাইন গ্লস থেকে পারফেক্ট ম্যাটÑ ব্যক্তিত্বের সঙ্গে মানিয়ে গেলে তো সাজ হবে পরিপূর্ণ। পূর্ণতা পাবে ঈদের খুশি।


আরো সংবাদ

gebze evden eve nakliyat instagram takipçi hilesi