০৬ ডিসেম্বর ২০১৯

ইউরোপের কোন দেশে সবচেয়ে বেশি ধার্মিক?

ধর্ম
শতকরা ৪৯ ভাগ অত্যন্ত ধার্মিক নিয়ে তালিকায় চতুর্থ স্থানে রয়েছে গ্রিস। - ছবি : ডয়চে ভেলে

ধর্মচর্চার দিক থেকে ইউরোপের দেশগুলো খুব একটা পিছিয়ে নেই। পিউ রিসার্চ সেন্টারের এক গবেষণায় দেখা গেছে, পূর্ব ইউরোপের দেশগুলোতে ধার্মিক লোকের সংখ্যা তুলনামূলক বেশি।

২০১৫ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত ইউরোপের ৩৪টি দেশে গবেষণাটি পরিচালিত হয়। মূলত তিন ক্যাটেগরিতে এটি করা হয়। এগুলো হলো: অত্যন্ত ধার্মিক, মাঝারি পর্যায়ের ধার্মিক ও কম ধার্মিক। নাগরিকদের মধ্যে যারা ধর্মকে জীবনের গুরুত্বপূর্ণ অংশ মনে করেন, মাসে একবার ধর্মীয় কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করেন, দিনে অন্তত একবার প্রার্থনা করেন ও সৃষ্টিকর্তায় বিশ্বাস করেন, তাদের ‘অত্যন্ত ধার্মিক’ ক্যাটেগরিতে রাখা হয়েছে।

রোমানিয়া
গবেষণা বলছে, ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ধার্মিকের বাস রোমানিয়াতে। দেশটির শতকরা ৫৫ ভাগ লোক অত্যন্ত ধার্মিক। তবে নিয়মিত প্রার্থনার ক্ষেত্রে দেশটির অবস্থান তৃতীয়। গবেষণা বলছে, দেশটির ধার্মিকদের শতকরা ৪৪ ভাগ প্রতিদিন উপাসনা করে থাকেন।

আর্মেনিয়া
ইউরোপের দেশগুলোতে ধার্মিকের সংখ্যার দিক থেকে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে আর্মেনিয়া। দেশটির শতকরা ৫১ ভাগ লোক অত্যন্ত ধার্মিক বলে দাবি করছে গবেষণাটি। এর মধ্যে শতকরা ৪৫ ভাগ লোক প্রতিদিন প্রার্থনা করেন, যা ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে দ্বিতীয়।

জর্জিয়া
দেশটিতে শতকরা ৫০ ভাগ লোক অত্যন্ত ধার্মিক। সে হিসেবে, ধার্মিকের সংখ্যার দিক থেকে ইউরোপের দেশগুলার মধ্যে জর্জিয়ার অবস্থান তৃতীয়। তবে প্রতিদিন প্রার্থনা করার সংখ্যার দিক থেকে দেশটির অবস্থান পঞ্চম (শতকরা ৩৮ ভাগ উপাসনাকারী)।

গ্রিস
শতকরা ৪৯ ভাগ অত্যন্ত ধার্মিক নিয়ে তালিকায় চতুর্থ স্থানে রয়েছে দেশটি। তবে প্রতিদিন প্রার্থনা করার সংখ্যার দিক থেকে ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে গ্রিসের অবস্থান নবম। পিউ রিসার্চ বলছে গ্রিসে ধার্মিকদের শতকরা ২৯ ভাগ লোক প্রতিদিন প্রার্থনা করেন।

মলদোভা
অত্যন্ত ধার্মিক ক্যাটেগরিতে পঞ্চম অবস্থানে রয়েছে মলদোভা। দেশটির শতকরা ৪৭ ভাগ লোক অত্যন্ত ধার্মিক। তবে এ ধার্মিকদের মধ্যে শতকরা ৪৮ ভাগ লোক প্রতিদিন প্রার্থনা করেন বলে জানায় পিউ রিসার্চ।

সবচেয়ে কম এস্তোনিয়াতে
উত্তর ইউরোপের দেশ এস্তোনিয়াতে ধার্মিকের সংখ্যা সবচেয়ে কম। পিউ রিসার্চের তথ্য অনুযায়ী, দেশটির শতকরা সাত ভাগ লোক অত্যন্ত ধার্মিক। এর মধ্যে শতকরা নয় ভাগ লোক প্রতিদিন প্রার্থনা করে থাকেন।

ডেনমার্ক ও চেক প্রজাতন্ত্র
কম ধার্মিকের সংখ্যার দিক থেকে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ডেনমার্ক ও চেক প্রজাতন্ত্র। দেশ দুটিতে প্রতি একশ’ জনে আট জন অত্যন্ত ধার্মিক। ডেনমার্কে বসাবাসকারী ধার্মিকদের শতকরা ১০ ভাগ ও চেক প্রজাতন্ত্রের শতকরা নয় ভাগ প্রতিদিন প্রার্থনা করেন।

জার্মানি ও ফ্রান্স
ইউরোপের দুই সমৃদ্ধরাষ্ট্র জার্মানি ও ফ্রান্সে অত্যন্ত ধার্মিকের সংখ্যা শতকরা ১২ ভাগ। সে হিসেবে গবেষণায় এই দুটি দেশের অবস্থান ২৬তম। একই অবস্থানে রয়েছে সুইজারল্যান্ডও। গবেষণা বলছে, জার্মানির ধার্মিকদের শতকরা নয়ভাগ ও ফ্রান্সের ধার্মিকদের শতকরা ১১ ভাগ প্রতিদিন প্রার্থনা করেন।

যুক্তরাজ্য
ধার্মিকতার দিক থেকে বিলেতের লোকজন অনেক পিছিয়ে। দেশটির শতকরা মাত্র ১১ ভাগ লোক অত্যন্ত ধার্মিক। আর ধার্মিকদের শতকরা ছয় ভাগ প্রতিদিন প্রার্থনা করেন বলে গবেষণা বলছে।

সূত্র : ডয়চে ভেলে

দেখুন:

আরো সংবাদ

বালুর নীচে মিললো শিশু শিক্ষার্থীর লাশ ইরান মোকাবেলায় নতুন করে সেনা মোতায়েন করবে যুক্তরাষ্ট্র তেলেঙ্গানা এনকাউন্টার নিয়ে ভারতজুড়ে তোলপাড় অভিবাসীদের মাধ্যমে বাংলাদেশে এইডসের ঝুঁকি বাড়ছে সীমান্তে ভারতীয় নাগরিককেই গুলি করে মারল বিএসএফ যে লীগই করেন না কেন অপরাধ করলে ছাড় দেয়া হবে না : স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মমতার বিপক্ষে গেলেন দেব-নুসরাত-মিমি! শিক্ষাঙ্গণে সন্ত্রাস-নৈরাজ্যের জন্য অসুস্থ রাজনীতি দায়ী : ডা. ইরান হৃদপিণ্ড থেমে যাওয়ার ৬ ঘন্টা পর বেঁচে উঠলেন তিনি শেখ হাসিনা সব ধর্মের লোকের সমান অধিকার নিশ্চিত করেছেন : গণপূর্ত মন্ত্রী শিশু ধর্ষণকারীদের প্রাণভিক্ষার অধিকারের বিপক্ষে ভারতের রাষ্ট্রপতি

সকল




Paykwik Paykasa
Paykwik